বাংলাদেশ, শনিবার, ৮ই আগস্ট, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ, ২৪শে শ্রাবণ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

চট্টগ্রামের আঞ্চলিক নাটকে “লেডা মিয়া”

আবছার উদ্দিন অলি

ঈদ-উল-আযহা উপলক্ষ্যে চারটি নাটকের শুটিং শেষ করেছেন চট্টগ্রামের লেডা মিয়া। নাটকগুলোর শুটিং ঢাকার পূবাইল ও বান্দরবানের বিভিন্ন মনোরম লোকেশানে চিত্রায়িত হয়েছে। এছাড়াও আরো তিনটি নাটকের শুটিং চলছে। বর্তমানে ঈদের বিভিন্ন কাজ নিয়ে ব্যস্ত রয়েছেন অভিনেতা উত্তম কুমার।
চট্টগ্রামের আঞ্চলিক নাটক প্রেমিরা চিনেন ‘লেডা মিয়া’  নামে। ছোট বেলায় স্বপ্ন দেখতেন পরিচালক হবেন। বাড়ি কক্সবাজার জেলার চকরিয়া থানার ডুলাহাজারা গ্রামে হওয়াতে প্রায় সময় কক্সবাজার ইনানী, হিমছড়িতে শুটিং দেখতে ছুটে যেতেন। আর শুটিং দেখতে দেখতে মনে মনে ভাবতেন তিনি নিজেও একদিন ক্যামেরার পেছনে দাঁড়িয়ে লাইট ক্যামেরা এ্যাকশন বলবেন। লালিত স্বপ্নকে বুকে চেপে স্কুলের গন্ডি পেরিয়ে কলেজ জীবনে পা দিলেন। ভর্তি হলেন চকরিয়া ডিগ্রি কলেজে। কলেজের প্রথম দিন প্রথম ক্লাসে পরিচিত হন তৎকালীন বাংলা বিভাগের অধ্যাপক কবি রাহগীর মাহমুদ এর সাথে। তাঁর উৎসাহে কবিতা লেখা শুরু করেন। তখনকার চকরিয়া থেকে প্রকাশিত পাক্ষিক মেহেদী পত্রিকায়। কবিতা লেখার সূত্র ধরে পরিচিত হন তখনকার জনপ্রিয় শিল্পী আজম চৌধুরীর সাথে। উনার বেশ কয়েকটি এ্যালবামে গান রচনা করেন। ২০০৯ সালের দিকে চট্টগ্রামের জনপ্রিয় নাট্যপরিচালক শেখ শওকত ইকবাল একটি নাটকের পান্ডুলিপি খুঁজ ছিলেন উনার পরবর্তী নাটকের জন্য। আজম চৌধুরীর
সহযোগিতায় শেখ শওকত ইকবাল চৌধুরীর সাথে পরিচয় হয় উত্তম কুমারের। “জীবনের রং’’ নামে একটি নাটকের পান্ডুলিপি লিখে শেখ শওকত ইকবাল চৌধুরকে দেন। পান্ডুলিপি পড়ে সাথে সাথে নাটকের শিডিউল ঠিক করেন পরিচালক শেখ শওকত ইকবাল চৌধুরী এবং ঐ নাটকে প্রধান সহকারী পরিচালক ছিলেন শাহবুদ্দীন সাবু। উনার সহকারী হিসাবে কাজ করেন উত্তম কুমার। সেই থেকে তার আর ফিরে তাকাতে হলো না। ২০১৯ সাল পযর্ন্ত অনেক গুলো আঞ্চলিক নাটক রচনা ও পরিচালনা করে আসছেন উত্তম কুমার। উনার পরিচালনায় কাজ করেছেন প্রয়াত চলচিত্র অভিনেতা আনিচ, খালেদা আক্তার কল্পনা, হায়দার আলী, চিকন আলী, জ্যাকি আলমগীর, হারুন কিসিঞ্জার, ম্যারা মিয়া, সোনা মিয়া
সহ দেশের অসংখ্যা গুণি অভিনেতা অভিনেত্রীরা। অবশেষে ২০২০ সালে প্রযোজকমনজুর মোরশেদ ও প্রযোজক নুরুল হকের অনুরোধে অভিনয় জগতে পা রাখেন।
আর জনপ্রিয় হন “লেডা মিয়া’’ নামে। এরই মধ্যে লেডা মিয়া অভিনয়করেছেন স্বনামধন্য পরিচালক নুরুল ইসলাম নুরুর “আবুলাইন্নে বিয়ে”,
আবদুল মোমেন খান এর “পাহাড়ী কন্যা‘’ রেজাউল কবির চৌধুরীর “যাযাবর”। এছাড়া জনপ্রিয় গীতিকার আবছার উদ্দিন অলি’র পরিচালনায়
বিটিভি চট্টগ্রাম কেন্দ্র থেকে প্রচারিত “পাশাপাশি” ম্যাগাজিনেও অভিনয় করে সফলতার স্বাক্ষর রেখেছেন এই “লেডা মিয়া” খ্যাত উত্তম কুমার।
দীর্ঘ তিন মাস পর লকডাউনের কারণে আটকে যাওয়া নাটকগুলোর কাজ নিয়ে বেশ ব্যস্ত সময় কাটাচ্ছেন অভিনেতা লেডা মিয়া। চট্টগ্রামের আঞ্চলিক নাটকে ‘লেডা মিয়া’র উত্তরোত্তর সাফল্য কামনা করছি।

শেয়ার করুনঃ

আরো খবর

Leave a Reply