বাংলাদেশ, বৃহস্পতিবার, ২১শে নভেম্বর, ২০১৯ ইং, ৬ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

একুশে পদকপ্রাপ্ত লেখক খাগড়াছড়ির মংছেনচীং আর নেই, শোক প্রকাশ আজ দাহকার্য

 

খাগড়াছড়ি,প্রতিনিধি॥ পার্বত্য জেলা খাগড়াছড়ির মহালছড়ি উপজেলার মানিক ডাক্তার পাড়ার নিবাসী একুশে পদকপ্রাপ্ত (গবেষণা) সাহিত্যিক, সাংবাদিক ও মানবাধিকার কর্মী মহালছড়ির কৃতি সন্তান মংছেনচীং মংছিন রাখাইন বঙ্গবন্ধু মেডিকেল হাসপাতালে দীর্ঘদিন চিকিৎসার পর ৭ সেপ্টেম্বর শনিবার রাঙ্গামাটি সদরের মাঝের বস্তি এলাকায় বড় মেয়ের বাড়িতে তিনি শেষ নি:শ্বাস ত্যাগ করেন। দীর্ঘদিন তিনি জটিল রোগে ভুগছিলেন।
১৯৬১ সালে কক্সবাজার জেলার রাখাইন পাড়ায় জন্মগ্রহন করেন তিনি। ২০১৬ সালে সাহিত্যে নিয়ে গবেষণা ও বিভিন্ন ক্ষেত্রে বিশেষ অবদানের জন্য একুশে পদক পান। পার্বত্যাঞ্চলের একমাত্র একুশে পদক প্রাপ্ত ব্যক্তি ছিলেন তিনি। এছাড়াও বিভিন্ন ক্ষেত্রে অবদানের জন্য অসংখ্য পুরষ্কার প্রাপ্ত হন তিনি ।
মৃত্যুকালে তিনি স্ত্রী ও দুই কন্যাসহ অসংখ্য আত্মীয়স্বজন ও শুভাকাঙ্খী রেখে গেছেন। তাঁর স্ত্রী শোভারাণী ত্রিপুরাও একাধারে শিক্ষিকা ও সাহিত্যে অবদানের জন্য ২০১৭ সালে বেগম রোকেয়া পুরষ্কার প্রাপ্ত হন।আজ রবিবার ৮ সেপ্টেম্বর মহালছড়িতে সামাজিক রীতিনীতি অনুযায়ী দাহকার্য সম্পন্ন করার কথা রয়েছে।
এদিকে, গবেষক ও লেখক মংছেনচীং রাখাইনের মৃত্যুতে খাগড়াছড়ির সংসদ সদস্য কুজেন্দ্র লাল ত্রিপুরা, পার্বত্য জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান কংজরী চৌধুরী, পরিষদ সদস্য ও বাংলাদেশ মারমা উন্নয়ন সংসদের সাধারণ সম্পাদক মংসুইপ্রু চৌধুরী অপু, জেলা ক্রীড়া সংস্থার সাধারণ সম্পাদক ও পরিষদ সদস্য জুয়েল চাকমা, খাগড়াছড়ি প্রেসক্লাব, সাংবাদিক ইউনিয়ন সহ বিভিন্ন পেশাজীবী ও সামাজিক সংগঠন গভীর শোক প্রকাশ করেছেন।

আরো খবর

Leave a Reply