২ মার্চ ২০২৪ / ১৮ই ফাল্গুন, ১৪৩০ বঙ্গাব্দ / রাত ২:০২/ শনিবার
মার্চ ২, ২০২৪ ২:০২ পূর্বাহ্ণ

ঈদের ৩য় দিন পতেঙ্গা সৈকতে পর্যটকের উপচে পড়া ভীড়

     

২৪এপ্রিল ঈদে সরকারি ছুটির ৩য় দিনেও চট্রগ্রাম শহরের সর্ব দক্ষিণে বঙ্গোপসাগর মোহনায় অবস্থিত পতেঙ্গা সমুদ্র সৈকতে পর্যটকের উপচেপড়া ভীড় দেখা গেছে। শহরের কোলাহল ছেড়ে একটু বিনোদন পেতে তীব্র গরম উপেক্ষা করে ভ্রমন পিপাসু নানা বয়সী মানুষের জমায়েত বলে দিচ্ছে সত্যিই মানুষ কতটা ভ্রমণ ও অবসরে চাই ..! দুপুর গড়িয়ে বিকেল হতেই সারা চট্টলার মানুষ যেন পতেঙ্গার কূলে বসত করেই বিনোদিত হবে। সৈকত এলাকা জুড়ে দেখা যায় যুব-কিশোর, নারী -পুরুষদের স্লান সাঁতার গোসল করার দৃশ্য। আবার গাছের ছায়ায় ও ভাসমান টং দোকানেও বসে দাঁড়িয়ে দাঁড়িয়ে সময় গল্প গুজব করতে। তবে অন্য সময়ের চেয়ে এবার একটু বর্ণিল সাজে সজ্জিত পতেঙ্গা এলাকার বিভিন্ন স্থান সমূহ। যেমন – চরবস্তি, খেজুর তলা,১৫ নং দক্ষিণ পতেঙ্গা নেভাল একাডেমী এরিয়া, বিমানবন্দর এলাকা ,পতেঙ্গা বোর্ড ক্লাব এরিয়া সহ কাঠগড়, দক্ষিণ হালিশহর এলাকার বিশাল স্থান জুড়ে পর্যটন স্পট যেন লোকে লোকারণ্য। সৈকত এলাকা জুড়ে পর্যটন কেন্দ্র নিরাপত্তা নিশ্চিতে সরকারের অধীনস্থ গোয়েন্দা পুলিশ, টুরিষ্ট পুলিশ, কোস্ট গার্ড,নৌ পুলিশ এবং স্থানীয় বিচ কমিটির সদস্য বৃন্দ সার্বিক পরিস্থিতি পর্যবেক্ষণ করেন বলে জানিয়েছেন বিচ কমিটির অন্যতম সদস্য মোঃ মূসা আলম। এদিকে শহরের বিভিন্ন প্রান্ত থেকে ছুটে আসা পর্যটকদের অনেকেই পতেঙ্গার ঐতিহ্যবাহী সমূদ্র সৈকত এলাকার দৃশ্য দেখে অনেকটাই সন্তোষ প্রকাশ করেছেন। বর্তমানে চসিক ও সিডিএ কর্তৃপক্ষের চলমান উন্নয়ন কাজ ও বে-টার্মিনালের(গভীর সমূদ্র বন্দর) প্রকল্পের কাজ চলমান থাকায় পর্যটকের কিছুটা সমস্যা ও হয়। যাই হোক সর্বপরি এবার ঈদে বিনোদন পেতে তীব্র জনযট পতেঙ্গা সমুদ্র সৈকত এলাকা ।
শেয়ার করুনঃ

Leave a Reply