বাংলাদেশ, বুধবার, ৩০শে সেপ্টেম্বর, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ, ১৫ই আশ্বিন, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

ঈদের নতুন গানে কৌশলী ইমা

বাংলা প্রেস, নিউ ইয়র্ক

গান পিপাসু বাঙালিরা প্রতিবছর দুই ঈদে একই গান শুনে অভ্যস্ত। বাঙালিরা যুগযুগ ধরেই কবি কাজী নজরুল ইসলামের লেখা সেই কালজয়ী গান ‘ও মন রমজানের ঐ রোজার শেষে এলো খুশির ঈদ’ শুনে আসছে। তাঁর সেই গানের পর আর কোন গান তেমন একটা শোনা যায় না।মার্কিন সংবাদমাধ্যম বাংলা প্রেস এ খবর দিয়েছে।
ঈদের প্রচলিত সেই গানের প্রথা ভেঙে ঈদের নতুন গান গাইলেন যুক্তরাষ্ট্র প্রবাসী শিল্পী কৌশলী ইমা। তার গানের কথা এ রকম- ‘আজ খুশির বান ডেকেছে বাঁকা চাঁদের হাসিতে, রাখালিয়া বাঁশিতে’।
নিউ ইয়র্ক প্রবাসী প্রবীন সাংবাদিক ও গীতিকার জীবন চৌধুরীর লেখা মৌলিক এ গানটির সুর করেছেন বাংলাদেশের প্রখ্যাত সুরকার আনিসুর রহমান তনু এবং সঙ্গীত পরিচালনা করেছেন দেশ ও প্রবাসের জনপ্রিয় সঙ্গীত নাদিম আহমেদ। ২০১৫ সালে কৌশলী ইমা আন্তরিকতার সাথে এ গানটির রেকর্ডিং সম্পন্ন করেছেন নিউ ইয়র্কের মিডি মিউজিক স্টুডিওতে।
ঈদের নতুন এ গান গাওয়া প্রসঙ্গে কৌশলী ইমা বলেন, সেই ছোটবেলা থেকেই প্রত্যেক ঈদে শুধু একটি গানই শুনে আসছি। ‘ও মন রমজানের ঐ রোজার শেষে এলো খুশির ঈদ’ কবি কাজী নজরুল ইসলামের লেখা এ গানের পর আর কোন গান তেমন একটা শোনা যায়না। নতুন এ গানটি গেয়ে খুব স্বাচ্ছন্দবোধ করছেন তিনি। ঈদে গাওয়া এ গানটি ইউটিউবে প্রকাশের পর কৌশলী ইমা বলেন, ঈদের নতুন এ গান সঙ্গীত পিপাসু অনেকেরই ভাল লাগবে।
প্রবাসী সঙ্গীতশিল্পী কৌশলী ইমা সমাজের নানা অনিয়ম-দুর্নীতি, অন্যায়-অবিচার ও কুসংস্কারকে গানের ভাষায় দর্শক-শ্রোতাদের চোখে আঙ্গুল দিয়ে দেখিয়ে দেন। রাজনীতির নামে নেতা-নেত্রীদের ভন্ডামী, রাজাকারদের বিচারের দাবি, নারী-পুরুষে বৈষম্য এবং অবৈধ অভিবাসীদের সুখ-দুঃখসহ নানা সমকালীন বিষয়ে গান গেয়েছেন। তার গাওয়া গান শুনে দর্শক-শ্রোতার হৃদয় ছুঁয়ে যায়। তিনিই প্রথম রাষ্ট্রীয় মর্যাদা থেকে বঞ্চিত, অবহেলিত ও ভিক্ষে করে খাওয়া মুক্তিযোদ্ধাদের নিয়ে গান গেয়েছেন। মুক্তিযুদ্ধ, রাজনীতি, দেশপ্রেম, মানবপ্রেম ও আধ্যাত্মিক বিষয় নিয়ে তার গাওয়া গান সর্ব মহলে প্রশংসিত। সমসাময়িক বিষয় এবং জাতীয় ও আন্তর্জাতিক ইস্যু ভিত্তিক তার বৈচিত্র্যময় গান ইতোমধ্যে দেশ ও বিদেশে বেশ সুনাম কুড়িয়েছে। দেশে অবস্থানকালে গান গেয়েছেন বাংলাদেশ বেতার ও টেলিভিশনে। তিনি ঢাকা সরকারি সঙ্গীত মহাবিদ্যালয় থেকে লোকসঙ্গীতে স্নাতক এবং লালমাটিয়া মহিলা কলেজ থেকে বাংলা সাহিত্যে মাস্টার ডিগ্রি লাভ করেন। তার বৈচিত্র্যময় গানের সংকলন নিয়ে আমলনামা ডটকম, মাটির মানুষ ও জেন্টেলম্যান নামে ৩টি অ্যালবাম বের হয়েছে। তরুন প্রজন্মের এ শিল্পী ইতোমধ্যে মুক্তিযুদ্ধ ভিত্তিক ও সমকালীন গান গেয়ে উত্তর আমেরিকায় ব্যাপক পরিচিতি পেয়েছেন।
কৌশলী ইমা বলেন,  ২০০৮ সালে তার গাওয়া দু’টি গানের সার্থকতা তিনি খুঁজে পেয়েছেন।ওই সময়ে তিনি গেয়েছিলেন- ‘আমার রক্তে গড়া বাংলাদেশ লুটেপুটে করলো শেষ, বেঁচে থাকাই দায়, এই দেশেরই মুক্তিযোদ্ধা ভিক্ষে করে খায়’। এছাড়াও তিনি গেয়েছিলেন ‘রাজাকারদের বিচার করা খুব দরকার, করবে বলে কথা দিয়ে করে না কোন সরকার’। বর্তমান সরকারের আমলে দেশের প্রায় প্রত্যেক মুক্তিযোদ্ধাই  সরকারি ভাতা পাচ্ছেন এবং রাজাকারদেরও বিচার হচ্ছে ও হবে। এজন্যে তিনি বর্তমান সরকারকে ধন্যবাদ জানান।
উল্লেখ্য, যুক্তরাষ্ট্রে এক কোটি ১০ লাখ অবৈধ অভিবাসীদের নিয়ে বাংলা ভাষায় তিনিই প্রথম গান গেয়েছেন। তার সেই গানের কথা এরকম- ‘মোরা আর কতকাল/ বলো থাকবো ইল্লিগ্যাল/ লিগ্যাল হতে চাই, মোরা লিগ্যাল’।
সমকালীন ও লোকসঙ্গীত শিল্পী হিসেবে কৌশলী ইমা যুক্তরাষ্ট্রের সঙ্গীতাঙ্গনে বেশ জনপ্রিয়। ‘আমলনামা ডটকম’ ‘মাটির মানুষ’ ও ‘জেন্টলম্যান’ নামে তার তিনটি অ্যালবাম বের হয়েছে। তার গাওয়া ঈদের এ গানটির একটি মিউজিক ভিডিও ইউটিউবে প্রকাশিত হয়েছে। সুখ মাল্টিমিডিয়া প্রযোজিত এ মিউজিক ভিডিওটি ইতোমধ্যে গণমাধ্যমে বেশে সাড়া ফেলেছে। গানটি শোনার জন্য Eid Mubarak-Kousholy Ema নামে ইউটিউবে অনুসন্ধান করলেই শোনা যাবে এ গান।

গানটি শুনতে নিচের লিঙ্কে ক্লিক করুন:

শেয়ার করুনঃ

আরো খবর

Leave a Reply