খানসামার বাসুলীতে প্রেমিকের বাড়িতে প্রেমিকার দু’দিন ধরে অনশন

  প্রিন্ট
(Last Updated On: মে ১২, ২০১৭)

 

খানসামা(দিনাজপুর) প্রতিনিধি

প্রেম মানে না কোন নিয়মকানুন, মানেনা কোন জাতকুল। দীর্ঘ তিন বছর ধরে বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে, প্রেম প্রতারণার এক পর্যায়ে গত বুধবার থেকে দু’দিন ধরে প্রেমিকের বাড়িতে অবস্থান করে অনশন চালিয়ে যাচ্ছে প্রেমিকা।
এ প্রেম বিষয়ক ঘটনাটি ঘটেছে খানাসামা উপজেলার ১নং আলোকঝাড়ীর ইউপি’র পূর্ব বাসুলী গ্রামের নিজ পাড়ায়।
জানা গেছে, উপজেলার পূর্ব বাসুলী নিজ পাড়া গ্রামের ডাক্তার নরেশ চন্দ্র রায়ের ২য় পুত্র কেশোর (২৫) একই গ্রামের ধরণি চন্দ্র রায়ের কন্যা বকুল রাণী রায় (১৯) এর সাথে গত তিন বছর ধরে প্রেম সর্ম্পক চলে আসছিল। প্রেমিকা বকুল রানী রায় এবার এইচ.এস.সি পরীক্ষা দিয়েছে।
তার পিতার আর্থিক অবস্থা করুন হওয়ায় ছেলের পিতা নরেশ চন্দ্র কিছুতেই ছেলের বউ হিসেবে মেনে নিচ্ছেন না মেয়েটিকে। বকুল রানী ছেলের বাড়িতে অবস্থান করে গত দুই দিন ধরে অনশন করে মানসিকভাবে বিপর্যয়ে রয়েছেন। তাকে মানসিকভাবে নির্যাতনসহ কারো সঙ্গে কথা বলা বা দেখা করতে দিচ্ছেন না। ডাক্তার নরেশের ভায়েরা ভাই টংগুয়া গ্রামের বাদল চন্দ্র রফাদফা করে মেয়েটিকে ইজ্জতের মূল্য ১ লাখ টাকা দিয়ে বাড়ি হতে বের করে দিতে বলেন।
উক্ত বিষয়ে এলাকায় ব্যাপক গুঞ্জন সৃষ্টি হলে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করতে যান স্থানীয় দুই জন সাংবাদিক। ছেলের খালু বাদল রায় সাংবাদিকদের কোনরুপ তথ্য না দিয়ে বরং তাচ্ছিল্ল ভাষায় কথাবার্তা বলেন যে, বিষয়টি আমাদের আত্মীয়ের ব্যাপার, এটি মিমাংসার পথে নিউজ করবেন না।
পরে বিষয়টি সাংবাদিক মুঠোফোনে উপজেলা নির্বাহী অফিসার ও খানসামা থানা অফিসার ইনচার্জকে অবগত করেন। এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত মেয়েটি ছেলের বাড়িতে অনশন অবস্থায় রয়েছে এবং থানায় কোন মামলা হয়নি।

০ Comments

Leave a Comment

Login

Welcome! Login in to your account

Remember me Lost your password?

Lost Password