যত্নে থাকুক শখের ফার্নিচার

  প্রিন্ট
(সর্বশেষ আপডেট: অক্টোবর ১১, ২০১৮)

সবাই ঘর সাজাতে শখ করেই ফার্নিচার কেনেন। ঘরের আসবাবটি যদি হয় বেমানান তা হলে ঘরের পরিপূর্ণ সজ্জাতেও থেকে যায় অপূর্ণতা। আপনার বাড়ির যে কোনো আসবাবের যত্ন যদি সঠিকভাবে করা যায় তা হলে প্রতি বছর নতুন আসবাব না কিনেও ঘরের সজ্জায় বজায় রাখা যায় একটা নতুন রূপ।অনেকেই আসবাবের যত্ন বলতে শুধু নিয়মিতভাবে আসবাব পরিষ্কার করা বা এর ওপরে পড়া ধুলোর আস্তরণের সাফাইটাকেই বোঝেন। কিন্তু এর বাইরেও আছে অনেক বিষয়। জেনে নিন আসবাবপত্র যত্নের এমনই কিছু কৌশলের কথা।

অনেকের বাসস্থানেই আসবাবের একটি বড় শত্রু হিসেবে দেখা দেয় নানা রকম পোকামাকড়। যেমন- কাঠকাটুনি বা ঘুণপোকার উপদ্রব। বিশেষ করে যাদের বাড়িতে কাঠের আসবাবের পরিমাণ বেশি তাদের এ সমস্যায় পড়তে হয় প্রায়শই। এ ক্ষেত্রে কাঠের আসবাবকে পোকামাকড়ের আক্রমণ থেকে বাঁচিয়ে রাখার জন্য তাতে হালকা নিমের তেল স্প্রে করতে পারেন।ঘরের যে অংশটিতে রোদ পড়ে সেখানে কখনো কাঠের আসবাব রাখবেন না। এতে পলিশ এর রং হালকা হয়ে যাওয়া বা কাঠে ফাটল ধরার মতো নানা ধরনের সমস্যা দেখা দিতে পারে। কাজেই আসবাবের সামনে বা পেছনে কোনো দিকেই যেন সরাসরি রোদ এসে না পড়ে সে দিকে খেয়াল রাখুন। এ জন্য প্রয়োজনে জানালায় ভারী পর্দা ব্যবহার করুন।ডাইনিং টেবিল হোক কিংবা বসার ঘরের সেন্টার টেবিল, কখনই এগুলোতে সরাসরি গরম জিনিস রাখবেন না। টেবিল এর ওপর কোনো ক্লথ বা কাপড় না থাকলে কমপক্ষে একটি কাগজ বা কোস্টার বিছিয়ে তার ওপর গরম জিনিস রাখুন। একই ভাবে পানির গ্লাস বা তরল কোনো কিছু রাখতেও একই ধরনের সাবধানতা অবলম্বন করুন।কাঠের ওপর প্রায়শই গোল রিংয়ের মতো দাগ পড়ে যায়। এ ক্ষেত্রে প্রথমে দাগ পড়া স্থানটি ব্লটিং পেপার দিয়ে চেপে ধরুন। তার পর ব্লটিং পেপার সরিয়ে অলিভ অয়েল বা মেয়নেজ দিয়ে দাগের ওপর ঘষে শুকনো করে মুছে নিন।কাঠের আসবাবের ওপর গরম কিছু রাখার কারণে রং নষ্ট হয়ে গেলে নরম কাপড়ে কর্পূর বা স্পিরিট নিয়ে নির্দিষ্ট স্থানটিতে ঘষে দাগ তুলে ফেলুন।কাঠের আসবাব বহুদিন পর পর বার্নিশ না করিয়ে বছরে, দেড় বছরে একবার করে বার্নিশ করার চেষ্টা করুন। এ ক্ষেত্রে পুরোনো বার্নিশ এর ওপর নতুন প্রলেপ না দিয়ে পুরোনো বার্নিশ পুরোপুরি তুলে ফেলে বার্নিশ এর নতুন আস্তরণ দিন।

০ Comments

Leave a Comment

Login

Welcome! Login in to your account

Remember me Lost your password?

Lost Password