বাংলাদেশ, রবিবার, ১৩ই অক্টোবর, ২০১৯ ইং, ২৮শে আশ্বিন, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

রাউজানে ১৩ বছরের শিশুকে ৫২ বছরের লম্পট কর্তৃক শ্লীলতাহানির অভিযোগ

শিশু নির্যাতনকারীকে ২৪ ঘন্টার মধ্যে গ্রেফতারের দাবী, সংসদ সদস্য এবিএম ফজলুল করিম মহোদয়ের হস্তক্ষেপ কামনা

 

রাউজান থানাধীন কৈয়াপাড়া, ৭নং ওয়ার্ডের বাসিন্দা হাজী মো. সেলিমের শিশু কন্যা, স্থানীয় জগৎচন্দ্র সেন কৃষি ও শিল্প উচ্চ বিদ্যালয়ের ৭ম শ্রেণির ছাত্রী নুসরাত জাহান লিছা (১৩) কে গত ২৭ সেপ্টেম্বর সকাল ১১টায় কৈয়াপাড়াস্থ বিল্ডিং এর ছাঁদের উপর কাপড় শুকাতে গেলে নুসরাত জাহান লিছা কে একা পেয়ে এলাকার মৃত আব্দুল জলিলের পুত্র মঞ্জু মিয়া (৫২)  যৌন কামনা চরিতার্থ করার উদ্দেশ্যে শ্লীলতহানি করে। পরে মেয়েটির চিৎকারে এলাকার লোকজন এসে পড়লে লম্পট মঞ্জু মিয়া পালিয়ে যায়। মেয়েটিকে প্রাথমিক চিকিৎসার পর বর্তমানে বাড়িতে নিয়ে আসা হয়েছে। এই বিষয়ে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণের লক্ষ্যে রাউজান থানায় ৪ অক্টোবর মামলা দায়ের করা হয়। মামলা নং- ৩/১৪৯। এদিকে রাউজান উপজেলার কৈয়াপাড়ায় ১৩ বছরের শিশু ও স্থানীয় স্কুলের ৭ম শ্রেণির ছাত্রী নুসরাত জাহান লিছা কে স্থানীয় লম্পট ঘাতক মঞ্জু মিয়াকে গ্রেফতার পূর্বক দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবী জানিয়েছেন কৈয়াপাড়া জগত চন্দ্র সেন কৃষি ও শিল্প উচ্চ বিদ্যালয়ের অভিভাবক ফোরাম ও বাংলাদেশ শিশু উন্নয়ন মানবাধিকার ফোরাম নেতৃবৃন্দ। বাংলাদেশ শিশু উন্নয়ন মানবাধিকার ফোরামের সভাপতি রেজাউল করিম তালুকদার, মহাসচিব এম.আর.মাহাবুব, সাংগঠনিক সচিব আবদুর রহিম, ভাইস-চেয়ারম্যান ইঞ্জিনিয়ার নুর হোসেন একযুক্ত বিবৃতিতে রাউজানে ১৩ বছরের শিশু কন্যাকে শ্লীলতাহানির সাথে জড়িত মঞ্জু মিয়াকে আগামী ২৪ ঘন্টার মধ্যে গ্রেফতার পূর্বক দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবী করেছেন। বিবৃতিতে তারা বলেছেন, শ্লীলতাহানির অভিযোগে ব্যারিষ্টার মঈনুল হোসেনের মতো মানুষের বিচার এদেশের মাটিতে হতে পারলে, একজন রাউজানের লম্পট ও শিশু কন্যার শ্লীলতাহানির ঘাতক মঞ্জু মিয়াকে গ্রেফতার করতে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর এত নিরবতা কেন? দ্রুত তাকে বিচারের আওতায় আনা হোক। এই বিষয়ে স্থানীয় সংসদ সদস্য এবিএম ফজলুল করিম মহোদয়ের হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন এলাকাবাসী।

আরো খবর

Leave a Reply