বাংলাদেশ, রবিবার, ১৩ই অক্টোবর, ২০১৯ ইং, ২৮শে আশ্বিন, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

আলীকদমে যৌতুকের মামলায় স্বামী জেলহাজতে

 

লামা-আলীকদম (বান্দরবান) প্রতিনিধি
যৌতুকের দাবীতে স্ত্রীকে নির্যাতন ও বহু বিবাহের অভিযোগে দায়ের করা এক মামলায় অভিযুক্ত স্বামীকে জেল হাজতে পাঠিয়েছেন আদালত। অভিযুক্ত আসামী আলীকদম সরকারি স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে সদ্য নিয়োগপ্রাপ্ত গাড়ি চালক।
বান্দরবান চীফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতের সি.আর মামলা নং- ১৬৮/২০১৯ সূত্রে জানা গেছে, আলীকদম উপজেলার সদর ইউনিয়নের ঠান্ডা মিস্ত্রি পাড়ার মৃত মঞ্জুর আলমের ছেলে মিজানুল ইসলামের সাথে ২০১১ সালের ২৭ সেপ্টেম্বর বিয়ে হয় একই পাড়া ছালেহা আক্তার কাজলের (৩০)। তাদের সংসারে ২ ছেলে মেয়ে রয়েছে।
ছালেহা বেগম অভিযোগ করেন, তাকে বিয়ের পরও তার স্বামী মিজান আরো দুটি বিয়ে করেছে। এ কারণে তাকে প্রায়সময় মারধর করেন। ব্যবসা-বাণিজ্য করার কথা বলে বিভিন্ন সময় তার পিতার বাড়ী থেকে যৌতুক এনে দিতে মিজান চাপ প্রয়োগ করতো। সর্বশেষ গত ১০ মে সকালে আলীকদম সরকারি স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে আউটসোর্সিংখাতে ড্রাইভারের চাকুরী নিতে ২ লক্ষ টাকা খরচ হয়েছে দাবী করে মিজান। এ টাকা পিতার বাড়ি থেকে এনে বলেন স্ত্রী ছালেহা কাজলকে। এতে স্ত্রী অপারগতা জানালে ২ সন্তানসহ তাকে ঘর থেকে বের করে দেয়।
ছালেহা কাজল বলেন, তাকেসহ ড্রাইভার মিজান আরো দুইটি বিয়ে করেছে। এরমধ্যে একজনের বিবাহের বিয়ের কাবিন নামা তার কাছে আছে। অপরজনের কাবিনা নামা এখনো পাইনি। এ বিয়েতে আমার অনুমতি নেয়া হয়নি।
এদিকে, এ ঘটনায় বান্দরবান চীফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে মামলা দায়ের হলে আদালত গ্রেফতারী পরোয়ানা জারী করে। পুলিশ অভিযুক্ত মিজানকে গ্রেফতার করে আদালতে পাঠায়। গত বৃহস্পতিবার আদালত অভিযুক্ত মিজানের জামিন নামঞ্জুর করে জেল হাজতে পাঠানোর নির্দেশ দেয়।

আরো খবর

Leave a Reply