বাংলাদেশ, রবিবার, ১৯শে জানুয়ারি, ২০২০ ইং, ৫ই মাঘ, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

বেনাপোলে সকল সাংবাদিকদের নিয়ে ফেসবুকে কটুক্তি করায় থানায় জিডি

এম ওসমান, বেনাপোল : যশোরের বৃহত্তম স্থলবন্দর বেনাপোলে সাংবাদিকদের নিয়ে ফেসবুকে অপমানজনক কটুক্তি করায় বুধবার ২রা অক্টোবর বেনাপোল পোর্ট থানায় সাধারণ ডায়েরী (জিডি) দায়ের করা হয়েছে।
পুলিশ ও সাধারণ ডায়েরী সূত্রে জানা গেছে, সোমবার ৩০শে সেপ্টেম্বর একই দিনে বিভিন্ন সময়ে জনৈক এম আহসানুর রহমান ইমন নামের একটি ফেসবুক আইডি থেকে বেনাপোলের সকল সাংবাদিকদের নামে একাধিকবার অপমানজনক কুরুচিপূর্ণ, দালাল, থানাবাজ, ফেন্সিখোর, মাদক সেবনকারি ও ছিনতাইকারী কথা লিখে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে ছড়িয়ে দেয়া হয়েছে। যাহা অনেকেই শেয়ার ও কমেন্ট করে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে ছড়িয়ে দিয়েছে। ফলে এই অঞ্চলের তথা শার্শা উপজেলা-বেনাপোলের সকল সংবাদ কর্মীদের মান সম্মান ক্ষুন্নসহ সাংবাদিক ঐক্য পরিষদ বেনাপোল ও বিভিন্ন প্রেসক্লাবের ভাবমুর্তি নষ্ট হয়েছে।
এ ঘটনায় বেনাপোল প্রেসক্লাব, শার্শা প্রেসক্লাব, বন্দর প্রেসক্লাব, সীমান্ত প্রেসক্লাব ও সাংবাদিক ঐক্য পরিষদ বেনাপোলের  বিভিন্ন সাংবাদিকবৃন্দ বাদী হয়ে  বুধবার ২রা অক্টোবর দুপুরে বেনাপোল পোর্ট থানায় একটি সাধারণ ডায়েরী দায়ের করেন।
বেনাপোল পোর্ট থানার ওসি তদন্ত সৈয়দ আলমগীর  হোসেন জানান, এ বিষয়ে সাধারণ ডায়েরি করা হয়েছে। তদন্ত করে ব্যবস্থা নেয়া হবে।
সাংবাদিক ঐক্য পরিষদের আহ্বায়ক ও বেনাপোল প্রেসক্লাবের সভাপতি আলহাজ্ব মহাসিন মিলন, সাংবাদিক ঐক্য পরিষদের যুগ্ন-আহবায়ক ও বেনাপোল প্রেসক্লাবের সহ-সভাপতি আলহাজ্ব জামাল হোসেন, সাংবাদিক ঐক্য পরিষদের সদস্য সচিব ও বেনাপোল প্রেসক্লাবের সহ-সভাপতি আলহাজ্ব বকুল মাহবুব, বেনাপোল প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক রাশেদুর রহমান রাশু, শার্শা প্রেসক্লাবের সভাপতি আব্দুল মুন্নাফ, সাধারণ সম্পাদক ইয়ানুর রহমান, সীমান্ত প্রেসক্লাব সভাপতি সাহিদুল ইসলাম শাহীন, বন্দর প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক আজিজুল হকসহ সবাই একই সুরে বলেন সাংবাদিকদের নিয়ে এরকম কুরুচিপূর্ণ স্ট্যাটাস সংবাদকর্মীদের জন্য নিরাপত্তাহীনতা, ঝুঁকিপূর্ণ, মানহানিকর ও অপমানজনক । আমরা এর উপযুক্ত শাস্তি দাবি করছি, পাশাপাশি আগামীতে যেন এ অঞ্চলের সংবাদকর্মীদেরকে নিয়ে এভাবে ফেসবুকসহ অন্যান্য সোশ্যাল মিডিয়া বা বিভিন্ন যোগাযোগ মাধ্যমে অপমানজনক ও কুরুচিপূর্ণ কথা না লিখতে পারে, সেজন্য যথাযথ কর্তৃপক্ষের নিকট এ বিষয়ে সুষ্ট ব্যবস্থা গ্রহণের আশা করে সাধারণ ডায়েরি (জিডি) করা হয়েছে৷ যদি এগুলো বন্ধ না হয় অথবা দোষীদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহন না করা হয় তবে সংগঠনের পক্ষ থেকে আগামীতে বৃহত্তর আন্দোলনের কর্মসূচি ঘোষণা করা হবে।

আরো খবর

Leave a Reply