বাংলাদেশ, রবিবার, ২০শে অক্টোবর, ২০১৯ ইং, ৪ঠা কার্তিক, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

খাগড়াছড়িতে ধর্মীয় ভাবগাম্ভীর্যে শুভ মধু পূর্ণিমা পালিত

 

খাগড়াছড়ি, প্রতিনিধি

খাগড়াছড়িতে যতাযত ধর্মীয় ভাবগাম্ভীর্যে পালিত হচ্ছে শুভ মধু পূর্ণিমা। মধু পূর্ণিমা উপলক্ষে ছিল দিন ব্যাপী নানা ধর্মীয় আনুষ্ঠানিকতা।

শুক্রবার ১৩ সেপ্টেম্বর সকাল থেকে বিহারে বিহারে চলেছে বুদ্ধ পূজা, প্রদীপ পূজা, ফুল পুজা, ভিক্ষু সংঘের উদ্দেশে মধু দান, সংঘ দান, অষ্ট পরিস্কার দান, চীবর দান, ভিক্ষুদের পিন্ড দানসহ নানাবিধ দান। এছাড়া সন্ধ্যায় প্রদীপ প্রজ্জলন ও আকাশ প্রদীপ উত্তোলন করা হয়। প্রদীপ জ¦ালিয়ে বৌদ্ধ নর-নারীরা দেশ ও জাতি তথা সকলের মঙ্গল কামনায় বুদ্ধের নিকট প্রার্থনা করে।

এই দিনটি বৌদ্ধ ধর্মালম্বীদের কাছে খুবই গুরুত্ব পূর্ণ একটি দিন। বৌদ্ধ ভিক্ষুদের ত্রৈমাসিক বর্ষাব্রত যাপনের দ্বিতীয় পূর্ণিমা তিথি অর্থাৎ ভাদ্র পূর্ণিমাতে এই মধু পূর্ণিমা পালন করা হয়। মূলত মহামানব গৌতম বুদ্ধের সময় পারল্য বনে বুদ্ধ যখন বষাব্র্রত পালন করছিলেন তখন বনের পশুপাখিরা তাকে অহিংসা সেবা ও শ্রদ্ধা করেছিলেন এবং সেই সময়ে ভাদ্র পূর্ণিমা তিথিতে বনের একটি বানর বুদ্ধকে মধু দান করে তৃপ্ত হয়েছিলেন। শুধু তাই নয় তিন মাস বর্ষা ব্রত পালনের সময় বন্য হাতিসহ সকল পশুপাখিরা বুদ্ধকে সেবা যতœ করেছিলো বলে এই মধু পূর্ণিমা বৌদ্ধ ধর্মালম্বীদের কাছে খুব তাৎপর্যপূর্ণ।

খাগড়াছড়িতে য়ংড বৌদ্ধ বিহার, ধর্মপুর বনবিহার, অপরাজিতা বৌদ্ধ বিহার, পানছড়ি শান্তি অরন্য কুঠিরসহ প্রায় দুই শতেরও অধীক বৌদ্ধ বিহারে এই মধু পূর্ণিমা পালিত হয়েছে। মধু পূর্ণিমা বৌদ্ধদের কাছে ভাদ্র পূর্ণিমা নামেও পরিচিত। কারণ ভাদ্র পূর্ণিমাতেই এর তাৎপর্য বেশি।

আরো খবর

Leave a Reply