ছাত্রলীগ নেতা পরিচয়ে গাড়ি ভাংচুর, ফটো সাংবাদিক লাঞ্ছিত

  প্রিন্ট
(Last Updated On: সেপ্টেম্বর ১, ২০১৮)

চট্টগ্রাম নগরীর আগ্রাবাদ মোড়ে স্লোগান দিয়ে যাত্রীবাহি বাস ভাংচুর ও দায়িত্বরত এক ফটো সাংবাদিককে মারধর করলো ছাত্রলীগ নামধারী দুর্বৃত্তরা। শুক্রবার (৩১ আগস্ট) বিকেল সাড়ে ৩টায় এ ঘটনা ঘটে। লাঞ্চনার শিকার ফটো সাংবাদিকের নাম আজীম অনন। তিনি অনলাইন নিউজ পোর্টাল সিভয়েসটোয়েন্টিফোর.কমে কর্মরত আছেন।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানায়, বিকেলে আগ্রাবাদ মোড়ে ৭ নম্বর রোডের একটি বাসে হঠাৎ স্লোগান দিয়ে ছাত্রলীগ নেতা পরিচয়ে হামলা চালানো হয়েছে। এ সময় বাসে থাকা কয়েক যাত্রী গ্লাসের আঘাতে আহত হয়। মোড়ে পুলিশ তাদের বারবার বাধা দিলেও তারা গাড়ী ভাংচুর ও এক ফটো সাংবাদিককে মারধর করেন। মাসুম নামের এক ছাত্রলীগ নেতার পরিচয়ে এই হামলা চালানো হয়েছে বলে জানা গেছে।

ঘটনাস্থলে থাকা আবুল হোসেন মানিক সিভয়েসকে জানান, আগ্রাবাদ মোড়ে একটি বাস এসে থামলে তার সামনে থাকা এক রিকশার পাশে বাসের এক পাশ সামান্য লাগে। ঐ রিক্সায় ছিলো নিজেকে ছাত্রলীগ পরিচয়দানকারী মাসুম। এরপর ঐ ব্যক্তি মোবাইল ফোনে কয়েকজন ছেলেকে ডেকে আনে। এরপর ১০-১৫ জন ছেলে এসে বাসে হামলা চালায় এবং ক্যামেরা হাতে থাকা এক ছেলেকে মারধর করেন। পরে পুলিশ এসে গাড়ী আটক করে নিয়ে গেলেও হামলাকারীদের কাউকে আটক করেনি।

বাসের চালকের সহকারী ফয়সাল সিভয়েসকে বলেন, অলংকার থেকে আগ্রাবাদ মোড়ে এসে যাত্রী নামানের জন্য স্টপেজে বাস থামানো হয়। গাড়ীর সামনে একটি রিক্সা দাঁড়ানো ছিল প্রায় ৩-৪ হাত দূরে। রিক্সা থেকে নেমে এক ব্যক্তি বলে আমার বাচ্চা ভয় পেয়েছে। তখন সে নিজেকে ছাত্রলীগ নেতা বলে পরিচয় দেয়। সে আমাকেও মারতে বার বার দৌড়ে আসে। গাড়ী রিক্সাতে না লাগার পরও আমি চাকলকে নামিয়ে তার কাছে ক্ষমা চাওয়াই। এরপরও ছাত্রলীগ পরিচয় দানকারী ব্যক্তি কয়েকজন ছেলেকে ফোন দিয়ে এনে গাড়ীর গ্লাস ভাংচুর করে এবং এক ফটো সাংবাদিককেও মারধর করে তারা। ভাংচুর চলাকালীন বাসের বেশ কয়েকজন যাত্রীও আহত হয়েছে। এরপর তারা রাস্তার উপর দাঁড়িয়ে স্লোগান দিতে থাকেন।

জানা যায়, নিজেকে ছাত্রলীগ পরিচয় দিলেও মাসুম ওরফে বাইট্টা মাসুম ২৭ নম্বর দক্ষিণ আগ্রাবাদ ওয়ার্ডের যুবলীগ কর্মী। সে নিজেকে মহানগর যুবলীগের আলতাফ হোসেন বাচ্চুর অনুসারী আগ্রাবাদ ২৭ নম্বর ওয়ার্ড যুবলীগ নেতা পারভেজের কর্মী হিসেবে পরিচয় দেয়। সে এলাকায় বাইট্টা মাসুম হিসেবেই পরিচিত। তার একটি বাহিনীও রয়েছে বলে জানা গেছে।

তবে এই নামের কোন যুবলীগ কর্মী আছে কিনা জানতে চাইলে মহানগর যুবলীগের যুগ্ম আহবায়ক ফরিদ মাহমুদ সিভয়েসকে বলেন, দক্ষিণ আগ্রাবাদ ওয়ার্ডে বাইট্টা মাসুম নামের কোন যুবলীগ কর্মী নেই। বিভিন্ন অপরাধে যুবলীগ কর্মী হিসেবে পরিচয় দিয়ে থাকলে যদি প্রমাণ হয় তাহলে আমরা আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করবো। দায়িত্বকালে এমন হামলা মেনে নেওয়া যায় না। তাদের চিহ্নিত করে বিচারের আওতায় আনা দরকার। আমিও এ ঘটনার তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানাচ্ছি।

এদিকে হামলার শিকার বাসের মালিক মো. ফারুক সিভয়েসকে বলেন, পুলিশের হাতে ভিডিও ফুটেজ রয়েছে। আমরা হামলাকারীদের বিরুদ্ধে মামলা করার প্রস্তুতি নিচ্ছি।
এ ব্যাপারে জানতে চাইলে ঘটনাস্থলে থাকা ডবলমুরিং থানার এসআই আব্দুর রাজ্জাক রুবেল সিভয়েসকে বলেন, আগ্রাবাদ মোড়ে ৭ নম্বর রোডের একটি বাসে ভাংচুর চালায় কয়েকজন ছেলে। এ ঘটনায় আমরা গাড়ীটি আটক করে থানায় নিয়ে যায়।

তিনি আরও বলেন, আমাদের হাতে হামলাকারীদের ভিডিও ফুটেজ আছে। এ ঘটনায় গাড়ীর মালিক পক্ষ থেকে অভিযোগ পাওয়া গেলে অভিযুক্তদের আটক করা হবে। কেউ আইনের উর্ধ্বে নয়।

এদিকে ভাংচুর চলাকালীন সময়ে ছবি তোলায় চট্টগ্রামের অনলাইন নিউজ পোর্টাল সিভয়েস টোয়েন্টিফোর.কম এর ফটো সাংবাদিক আজীম আননের উপর হামলার ঘটনায় বাংলাদেশ ফটো জার্ণালিস্ট এসোসিয়েশন চট্টগ্রামের সভাপতি মঞ্জুরুল আলম মঞ্জু ও সাধারণ সম্পাদক মোস্তাফিজুর রহমান তীব্র নিন্দা জানিয়েছেন।

০ Comments

Leave a Comment

Login

Welcome! Login in to your account

Remember me Lost your password?

Lost Password