বাংলাদেশ, শুক্রবার, ২৬শে এপ্রিল, ২০১৯ ইং, ১৩ই বৈশাখ, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ।

গাজীপুরে বয়লার বিস্ফোরণ ১১ জনের লাশ উদ্ধার

মুহাম্মদ আতিকুর রহমান
গাজীপুরের একটি পোশাক কারখানায় বয়লার বিস্ফোরণের ঘটনা ঘটেছে। এ ঘটনায় ১১ জনের লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। এতে আরও বহু হতাহতের আশংকা করছে স্থানীয়রা।

হতাহতদের পরিচয় তাৎক্ষণিকভাবে নিশ্চিত হওয়া যায়নি।

৩ জুলাই সোমবার রাত সাড়ে ৭টার দিকে গাজীপুরের কাশিমপুর নয়াপাড়া এলাকার মাল্টি ফ্রেব্রিকস নামক একটি পোশাক কারখানায় এ বয়লার বিস্ফোরণের ঘটনা ঘটে।

রাত ১২টা পর্যন্ত ১১টি লাশ উদ্ধারের কথা স্বীকার করেছেন গাজীপুরের ফায়ার সার্ভিসের উপ-সহকারি পরিচালক মোঃ আখতারুজ্জামান লিটন।

ফায়ার সার্ভিসের সদর দফতর, জয়দেবপুর, সাভারে ইপিজেড, কালিয়াকৈর ও টঙ্গী ফায়ার সার্ভিসের ১০টি ইউনিটের কর্মীরা রাত পৌনে ৮টার দিকে ঘটনাস্থলে পৌঁছে উদ্ধার কাজ শুরু করেছেন।

গাজীপুর ফায়ার সার্ভিসের উপ-সহকারী পরিচালক মোঃ আখতারুজ্জামান লিটন বলেন, সন্ধ্যা ৭টার দিকে ওই কারখানায় বয়লার বিস্ফোরণ হওয়ার পর কারখানার চার তলা ভবনের দোতলা পর্যন্ত একপাশের অংশ ধসে পড়েছে।

জয়দেবপুর, কালিয়াকৈর ও টঙ্গী ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা ঘটনাস্থলে গিয়ে উদ্ধার তৎপরতা চালিয়ে যাচ্ছেন। পরে তাদের সাথে ফায়ার ও সিভিল ডিফেন্সের সদর দফতর, সাভার ইপিজেডসহ আশে-পাশের ফায়ার স্টেশনের কর্মীরা যোগ দেন। কারখানার লোকজন ও এলাকাবাসীর সহায়তায় আহতদের উদ্ধার করে স্থানীয় বিভিন্ন ক্লিনিক ও হাসপাতালে পাঠানো হচ্ছে।

এ সময় কারখানার কোনো কর্মকর্তার সঙ্গে কথা বলা সম্ভব হয়নি।

তদন্তে জেলা প্রশাসন ও ফায়ার সার্ভিসের কমিটি

ঘটনার পরপর গাজীপুরের জেলা প্রশাসক ডঃ দেওয়ান মুহাম্মদ হুমায়ূন কবীর ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন।

তিনি বলেন, ঘটনা তদন্তে জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট মোঃ রায়হানুল ইসলামকে প্রধান করে পাঁচ সদস্যের একটি কমিটি গঠন করা হয়েছে। সাত কার্যদিবসের মধ্যে তারা প্রতিবেদন জমা দিবেন।

নিহতদের প্রতি পরিবারকে লাশ দাফনের জন্য ২০ হাজার টাকা করে প্রদান ও শ্রম মন্ত্রণালয় থেকে আহতদের চিকিৎসার খরচ দেওয়া হবে।

ফায়ার ও সিভিল ডিফেন্সের সদর দপ্তরের স্টেশন অফিসার মোঃ আতাউর রহমান জানান, ঘটনা তদন্তে ফায়ার সার্ভিসের পক্ষ থেকে তিন সদস্যের একটি কমিটি গঠন করা হয়েছে। সাত কর্মদিবসে তাদের প্রতিবেদন দিতে বলা হয়েছে।

আরো খবর

Leave a Reply