মে ২৬, ২০২২ ৮:০৬ অপরাহ্ণ

বায়তুশ শরফ আদর্শ কামিল মাদরাসায় স্বাধীনতার স্থপতি বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৪২তম শাহাদাত বার্ষিকী পালন

জাতির জনক ও স্বাধীনতার স্থপতি বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৪২তম শাহাদাত বার্ষিকী উপলক্ষ্যে বায়তুশ শরফ আদর্শ কামিল মাদরাসার উদ্যোগে আজ সকাল ১০টায় মাদরাসা মিলনায়তনে এক আলোচনা সভা ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়। তার পূর্বে সকাল ৯টা থেকে ছাত্র-ছাত্রীদের চিত্রাংকন প্রতিযোগিতাসহ বিভিন্ন প্রতিযোগিতা মাদরাসা সম্মুখে অনুষ্ঠত হয়। জাতীয় শোক দিবসের আলোচনা সভা ও দোয়া মাহফিলে সভাপতিত্ব করেন মাদরাসার অধ্যক্ষ প্রফেসর ড. সাইয়েদ মুহাম্মদ আবু নোমান। বক্তব্য রাখেন উপাধ্যক্ষ মাওলানা আমিনুল ্ সিলাম, সহকারী অধ্যাপক ড. মাওলানা হাবীবুর রহমান, মুহাদ্দিস মাওলানা জসিম উদ্দিন, আরবী প্রভাষক মাওলানা আবু তাহের, মাওলানা হাফেজ জুনাইদ, পদার্থ বিদ্যা প্রভাষক মুহাম্মদ জামাল উদ্দিন, মুহাম্মদ মোস্তফা কামাল, মাওলানা আবদুর রহমান, মাওলানা আমির উদ্দীন, মাওলানা ফরহাদ আলম, মির্জা জিয়া উদ্দিন আহমদ, জসীম উদ্দিন প্রমুখ।
সভাপতির বক্তব্যে অধ্যক্ষ প্রফেসর ড. সাইয়েদ মুহাম্মদ আবু নোমান বলেন, স্বাধীনতার মহান নায়ক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান না হলে বাংলাদেশ স্বাধীনতা অর্জন করা সম্ভব হতো না। স্বাধীনতার পূর্বে সমগ্র পূর্ব পাকিস্তানের যে অবস্থা বিরাজ করছিল সে অবস্থায় শেখ মুজিবুর রহমানের মত একজন দক্ষ, বিচক্ষণ ও দেশপ্রেমিক মানুষের জন্য সমগ্র পূর্বপাকিন্তানবাসী অপেক্ষা করছিল। শেখ মুজিবুর রহমানের ডাকে সাড়া দিয়ে সারাদেশের আপমর জনতা স্বাধীনতা যুদ্ধে ঝাপিয়ে পড়েছিল। ফলে আমরা স্বাধীন একটি দেশ তথা বিশ্বের মানচিত্রে বাংলাদেশ অংকিত হয়েছে। তিনি বলেন এই মহান নেতার সুদুরপ্রসারী পরিকল্পনা বাস্তবায়নে বাধাগ্রস্থ করার জন্য যে মহল সব সময় উঠে পড়ে লেগেছিল তারাই মূলত শেখ মুজিবুর রহমানকে হত্যা করেছে। তিনি বলেন, বর্তমান প্রেক্ষপটেও শেখ মুজিবুর রহমানের মতো দেশপ্রেমিক মানুষের বড়ই প্রয়োজন। তিনি শেখ মুজিবুর রহমানসহ দেশের জন্য যারা প্রাণ বিসর্জন দিয়েছে সকলের রুহের মাগফেরাত কামনা করেন এবং দেশের উন্নয়নের সকলকে ঐক্যবদ্ধ হয়ে কাজ করার আহবান জানান।

 

শেয়ার করুনঃ

Leave a Reply