সেপ্টেম্বর ২৪, ২০২১ ৭:১৭ অপরাহ্ণ

খাগড়াছড়িতে সলাইকো লিঃ ১০ কোটি টাকার বিমা’র দলিল হস্তান্তর

শংকর চৌধুরী,খাগড়াছড়ি

 

 

“মুজিব বর্ষে শপথ করি, জনে জনে বিমা করি” প্রতিপাদ্যকে সামনে রেখে, সন্ধানী লাইফ ইনস্যুরেন্স কোম্পানী লিঃ খাগড়াছড়ি জেলা অফিসের উদ্যোগে চেক, দলিল প্রদান ও আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে।

শনিবার সকালে শহরের মহাজনপাড়াস্থ একটি রেস্টুরেন্টে এ সভা অনুষ্ঠিত হয়।সলাইকো লিঃ এর জেলা সমন্বয়ক ও ইনচার্জ প্রভাষক মুহাম্মদ ইলিয়াছ-উজ্জামানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সভায় প্রধান অতিথি ছিলেন, খাগড়াছড়ি সদর উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান মো: শানে আলম। তিনি বলেন, বিমা করার প্রয়োজনীয়তা জানার আগে আমাদের সকলকে জেনে নেওয়া উচিত যে বিমা আসলে কি। বিমা এমন একটি চুক্তি যা একজন বিমা গ্রহীতা ও একটি বিমা প্রতিষ্ঠানের মধ্যে সম্পাদিত হয়। যেখানে বিমা প্রতিষ্ঠান এই মর্মে নিশ্চয়তা প্রদান করে যে বিমা গ্রহীতার মৃত্যু হলে একটি নির্দিষ্ট পরিমাণ অর্থ বিমা গ্রহীতার উত্তরাধিকারীকে প্রদান করবে। চুক্তির শর্তানুসারে কখনো কখনো মারাত্মক অসুস্থ হলেও বিমা গ্রহীতা অর্থ পেয়ে থাকে। বিমা গ্রহীতা সাধারণত এককালীন বা নির্দিষ্ট সময়ান্তে বীমা কর্তৃপক্ষকে নির্দিষ্ট পরিমান অর্থ প্রদান করে থাকে। বিমা গ্রহীতার সুবিধা হচ্ছে “মানসিক প্রশান্তি” লাভ, কারণ তিনি জানেন যে তার মৃত্যুর পর তার উত্তরাধিকারীরা অর্থ সমস্যায় পতিত হবে না। তায় সকলে একটি করে বিমা করে এর সুযোগ-সুবিধা গ্রহণ করার জন্য উপস্থিত সকলের প্রতি আহবান জানান তিনি।

এতে বিশেষ অতিথি হিসেবে বিশিষ্ঠ সমাজ সেবক নির্নিমেষ দেওয়ান, পার্বত্য জেলা পরিষদের প্রকৌশলি জামির হোসেন ও ব্যবসায়ী বাবুল নাগ বক্তব্য রাখেন।বক্তারা বলেন, বিমার নাম আমরা প্রায় সকলেই কম বেশি জানি। কিন্তু কেন মানুষের জীবনে বিমা দরকার বা কেন আমরা বিমা করব এ বিষয়টা সকলের কাছে পরিষ্কার নয়। এটা ঠিক মানুষের জীবনকালে আমরা একটা সময় উপার্জন করি। কিন্তু আমাদের উপার্জনের সময়কাল নির্দিষ্ট। যেমন যারা চাকরি করে, তারা এক সময় না এক সময় অবসর নেবেন, আবার যারা ব্যবসায়ের সাথে যুক্ত তাদের একটা নির্দিষ্ট সময়কাল পর্যন্ত সামর্থ্য থাকবে কাজ করার। আবার অনেক সময় দেখা যায় পরিবারের অনেক সদস্যের ভবিষ্যতের কথা ভেবে বিমা করা হয়। কারন মানুষের জীবনের কথা কিছুই বলা যায় না। কিন্তু পরিবারের উপার্জনক্ষম সসদ্যের যদি কিছু হয়ে যায়, তাহলে দেখা যায় বাকি সদস্যরা সীমাহীন সমস্যার মধ্যে পড়ে যায়। এই ধরনের নানা ঝুঁকির কথা চিন্তা করলেই বোঝা যায় কেন বিমা মানুষের এত দরকারি।

মানুষের আর্থিক জীবনযাত্রায় বিমা অনেক গুরুত্বপূর্ণ এক সংযোজন। বিমার অনেকগুলো সুবিধা রয়েছে যা পরিবারের আর্থিক নিরাপত্তা নিশ্চিত করে। বিমার মাধ্যমে জীবনের ভিন্ন ভিন্ন লক্ষ্য পূরণের পরিকল্পনা করতে পারেন। জীবনে একেকটি পর্যায়ে আপনি ও আপনার পরিবার একেকটি প্রয়োজনের সম্মুখিন হতে পারেন। সেসব ক্ষেত্রে বিমা প্রয়োজন পূরণে সহায়তা করবে। সন্তানের শিক্ষা, বিয়ে, নিজের একটা স্বপ্নের বাড়ী, অবসরের পরবর্তী দিনগুলো সুন্দরভাবে কাটানো সবকিছুই কিন্তু বিমার মাধ্যমে করা সম্ভব।

বক্তারা বলেন, বেশিরভাগ মানুষ সারা জীবন কষ্ট করার পর জীবনের শেষ প্রান্তে এসে একা হয়ে যায়। অনেক সময় নিজের সন্তানরাই দূরে ঠেলে দেয়। সেই বয়সে গিয়ে নতুন করে আর কিছুই করার থাকে না। কিন্তু দীর্ঘ মেয়াদী ভাবে জীবন বিমায় বিনিয়োগ করে থাকলে জীবনের অন্তিম পর্যায়ে কারও মুখাপেক্ষী হয়ে থাকতে হয় না। একটা নির্দিষ্ট পরিমাণ টাকা পেনশনের মত আজীবন কাল পাওয়া যেতে পারে। এতগুলো সুবিধাকে উপেক্ষা না করলে, আমাদের নিশ্চয়ই মনে হবে কেন বিমা আমাদের জীবনে এত দরকারি একটা বিষয়।

পরে, সন্ধানী লাইফ ইনস্যুরেন্স কোম্পানী লিঃ খাগড়াছড়ি জেলা অফিস কতৃক প্রায় ১৫০ জন বিমা গ্রহণকারিকে একক বিমা, মিয়াদি বিমা, শিক্ষা বিমা, ডিপিএস ও কিস্তি বিমা’র ১০ কোটি টাকার বিমা দলিল ও উপহার সামগ্রী তুলে দেন প্রধান ও বিশেষ অতিথিবৃন্দ।

শেয়ার করুনঃ

Leave a Reply