বাংলাদেশ, বুধবার, ২রা ডিসেম্বর, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ, ১৭ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

দ্বীন সুন্নিয়ত প্রচারে ও জনকল্যাণে আত্মোৎসর্গীত ছিলেন কাযী আমিনুল ইসলাম হাশেমী (রহ.)

আল্লামা কাযী আমিনুল ইসলাম হাশেমীর (রহ.) চন্দ্র বার্ষিকী ওরশ শরীফ

বহুমুখী প্রতিভার অধিকারী কীর্তিমান আধ্যাত্মিক সাধক ও মানবব্রতী ব্যক্তিত্ব হচ্ছেন ফকিহে বাঙ্গাল আল্লামা কাযী আমিনুল ইসলাম হাশেমী (রহ.)। দ্বীন ও সুন্নিয়ত প্রচারে আজীবন সনিষ্ঠ থাকার পাশাপাশি জনসেবা ও সমাজকল্যাণেও তিনি ছিলেন পথিকৃতের ভূমিকায়। নিরহংকার নির্লোভ নির্মোহ সাদাসিধে জীবন-যাপন তাঁর জীবনের বড় বৈশিষ্ট্য ছিল। দ্বীন, সুন্নিয়ত ও তরিক্বত প্রচারে নিবেদিত থাকা স্বার্থত্যাগী এ ধরনের মানবহিতৈষী ব্যক্তিত্ব বর্তমানে বিরল। তাঁর জীবন থেকে শিক্ষা নিয়ে সবাইকে দ্বীন সুন্নিয়ত প্রচারে এবং জনকল্যাণে আত্মোৎসর্গীত হবার তাগিদ দেন বক্তারা। আন্জুমানে আশেকানে মোস্তফা (দ.) বাংলাদেশ ও আশেকানে মোস্তফা (দ.) তরুণ পরিষদের যৌথ ব্যবস্থাপনায় ২৩ অক্টোবর শুক্রবার আমীনে মিল্লাত ফকীহে বাঙ্গাল পীরে কামেল মুফতি আল্লামা শাহ্সূফী কাযী মুহাম্মদ আমিনুল ইসলাম হাশেমী (রহ.) ১৫তম চন্দ্র বার্ষিকী ওরশ শরীফে বক্তারা এসব কথা বলেন। ওরশ উপলক্ষে ব্যাপক কর্মসূচির মধ্যে ১ম অধিবেশন বাদে জুমা হতে কুলগাঁও আল্ আমিন হাশেমী দরবার শরীফে খতমে কুরআন, খতমে তাহলীল, খতমে গাউছিয়া, খতমে খাজেগান, যিয়ারত, ছালাত সালাম ও মুনাজাত।

২য় অধিবেশন বাদে আছর হতে হযরত সুলতান বায়েজীদ বোস্তামী দরগাহ্ ময়দানে হুজুরের কর্ম ও জীবনীর উপর আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। এতে সভাপতিত্ব করেন আল্ আমীন হাশেমী দরবার শরীফের সাজ্জাদানশীন ও সংগঠনের কেন্দ্রীয় চেয়ারম্যান পীরে তরিক্বত হযরতুলহাজ¦ আল্লামা শাহসূফী কাযী মুহাম্মদ ছাদেকুর রহমান হাশেমী (মু.জি.আ)।

উদ্বোধনী বক্তব্য রাখেন হাটহাজারী ইমাম শেরে বাংলা (রহ.) দরবার শরীফের সাজ্জাদানশীন সৈয়দ আমিনুল হক আলকাদেরী (মু.জি.আ)। আল্ আমীন হাশেমী দরবারের সাজ্জাদাশীন কাযী মুহাম্মদ খালেদুর রহমান হাশেমীর সঞ্চালনায় আলোচনায় অংশগ্রহণ করেন আহলে সুন্নাত ওয়াল জামা’আতের চেয়ারম্যান আল্লামা কাজী মুহাম্মদ মঈনুদ্দীন আশরাফী (মু.জি.আ), নেছারিয়া কামিল মাদ্রাসার অধ্যক্ষ আল্লামা রফিক উদ্দিন ছিদ্দীকী, আলহাজ্ব সৈয়দ মুহাম্মদ হাবিবুর রহমান সর্দার, আল্লামা হাফেজ শিব্বির আহমদ ওসমানী, আল্লামা হাফেজ আজিজুল হক হোসাইনী। উদ্বোধক সৈয়দ আমিনুল হক আলকাদেরী বলেন, যুব সমাজ অবক্ষয় অনৈতিকতার প্রাবল্যে আজ তীব্রভাবে ধুঁকছে। তাদের সামনে আমরা আজ মহৎ কোনো আদর্শ রেখে যেতে পারছিনা। আল্লামা আমিনুল ইসলাম হাশেমী (রহ.) এর মতো আলোকিত কীর্তিমান ব্যক্তিত্বরাই হচ্ছেন আমাদের বাতিঘর ও দিশারী। আল্লামা মঈনুদ্দীন আশরাফী বলেন, শরিয়ত তরিক্বতের খেদমতে নিষ্ঠাবান ছিলেন আল্লামা মুফতি আমিনুল ইসলাম হাশেমী (রহ.)। তাঁর বিশাল কর্মময় জীবন থেকে অনেক কিছু শেখার আছে। তাঁর মতো বড় মাপের ত্যাগী এ আধ্যাত্মিক সাধক ও খাঁটি আশেকে রসুল (দ.) বর্তমানে বিরল। সভাপতির বক্তব্যে কাযী মুহাম্মদ ছাদেকুর রহমান হাশেমী বলেন, আল্লাহর ওলীগণের দরবার সর্বমানবতার মিলনস্থল। আল্লামা আমিনুল ইসলাম হাশেমী (রহ.) শুধু একজন আধ্যাত্মিক সাধক ছিলেন তা নয়, বরং তিনি ছিলেন দুস্থ বঞ্চিত মানুষের নিবেদিত সেবক। শেষে তাবারুক বিতরণ এবং বিশে^ শান্তি কামনায় বিশেষ মুনাজাত করা হয়।

শেয়ার করুনঃ

আরো খবর

Leave a Reply