বাংলাদেশ, রবিবার, ৩১শে মে, ২০২০ ইং, ১৭ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

বিশ্বকাপের ফাইনালে বাংলাদেশ

শাবাশ যুবা টাইগাররা। ইতিহাস গড়ে প্রথমবারের মতো যুব বিশ্বকাপের ফাইনালে বাংলাদেশ। ৩৫ বল বাকি থাকতেই শক্তিশালী নিউজিল্যান্ডকে ৬ উইকেটে হারিয়েছে যুবারা। দক্ষিণ আফ্রিকার পচেফস্ট্রুমে উড়িয়েছে বাংলাদেশের বিজয়ের পতাকা।

মাথার ওপর অদৃশ্য হাজারো চাপ নিয়ে খেলতে নামে জুনিয়র টাইগাররা। তাদের পারফরম্যান্সে মোটেও চাপের ছাপ ছিলো না। তাদের খেলা দেখে মনে হলো সেমিফাইনাল যুগ যুগ ধরে খেলতে অভ্যস্ত তারা। মাথা ঠান্ডা রেখে কঠিন মঞ্চে কি দারুণ ক্রিকেট খেললেন আকবর আলী, তৌহিদ হৃদয়, মাহমুদুল হাসান, শরিফুল ইসলামরা!

তাদের পরিণত ক্রিকেটের সামনে অসহায় ছিলো নিউজিল্যান্ডের যুবারা। পচেফস্ট্রমে সেমিফাইনালের লড়াইয়ে কিউইদের হেসেখেলে হারিয়ে প্রথমবারের মতো অনূর্ধ্ব-১৯ বিশ্বকাপের ফাইনালে নাম লিখিয়েছে বাংলাদেশ।

এই দলকে হারানো কঠিন। সেমিফাইনালে নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে বাংলাদেশকেই ফেবারিট ভাবা হচ্ছিল। ফেবারিটের মতোই খেলে বড় জয়ে পেল তারা।

মাহমুদুল হাসানের চোখ ধাঁধানো সেঞ্চুরি ২১২ রানের টার্গেট ৩৫ বল ও ৬ উইকেট হাতে রেখেই জয় তুলে নেয় টাইগার যুবারা। আগামী রবিবার ফাইনালে তাদের প্রতিপক্ষ ভারত।

বোলাররাই অর্ধেক কাজ সেরে রেখেছিলেন, বাকীটা ব্যাটাররা। নিউজিল্যান্ড অনূর্ধ্ব-১৯ দলকে তারা আটকে দেন ২১১ রানেই। তবে রান তাড়ায় নেমে ৩২ রানের মধ্যে ২ উইকেট হারিয়ে বসেছিল বাংলাদেশ। ওপেনার তানজিদ হাসান তামিম ফিরে যান মাত্র ৩ রান করে। তার সঙ্গী পারভেজ হোসেন ইমন আউট হন ১৪ রানে।

তৃতীয় উইকেটে ৬৮ রানের জুটিতে সেই ধাক্কা কাটিয়ে ওঠেন মাহমুদুল হাসান জয় আর তৌহিদ হৃদয়। দারুণ খেলছিলেন তারা। তবে দলের স্কোর ১০০ ছুঁতেই ভুল করে বসেন হৃদয়। একটু এগিয়ে শট খেলতে গেলে স্ট্যাম্পিংয়ের ফাঁদে পড়েন তিনি, ৪৭ বলে ৪ বাউন্ডারিতে হৃদয় তখন ৪০ রানে।

পরের সময়টায় শাহাদাত হোসেনকে নিয়ে একদম ঠান্ডা মাথায় এগিয়েছেন মাহমুদুল হাসান জয়। চতুর্থ উইকেটে ১০১ রানের ম্যাচ জেতানো জুটি গড়ে তবেই সাজঘরে ফেরেন জয়, তাসখতকে মারতে গিয়ে ফিরতি ক্যাচ হন তিনি।

তবে তার ঠিক আগেই দারুণ এক বাউন্ডারিতে সেঞ্চুরিও পূরণ করে নিয়েছেন জয়। ১২৭ বলে তার ১০০ রানের ইনিংসটিতে ছিল ১৩ বাউন্ডারির মার। ৪০ রানে অপরাজিত থেকে যান শাহাদাত হোসেন।

এর আগে টাইগার যুবাদের নিয়ন্ত্রিত বোলিংয়ে ৮ উইকেটে ২১১ রানের বেশি করতে পারেনি নিউজিল্যান্ড। ফাইনালে ওঠার লড়াইয়ে টস ভাগ্যটা বাংলাদেশের পক্ষেই ছিল। টস জিতে নিউজিল্যান্ড যুব দলকে ব্যাটিংয়ের আমন্ত্রণ জানান বাংলাদেশ অধিনায়ক আকবর আলী। অধিনায়কের এমন সিদ্ধান্ত যথার্থ প্রমাণ করতে শুরু থেকেই কিউইদের চাপে রাখেন বাংলাদেশের বোলাররা।

শেয়ার করুনঃ

আরো খবর

Leave a Reply