বাংলাদেশ, রবিবার, ৯ই আগস্ট, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ, ২৫শে শ্রাবণ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

চট্টগ্রামে ১ নভেম্বর থেকে শুরু হচ্ছে উইম্যান এসএমই এক্সপো

হোসেন বাবলাঃ৩০অক্টোবর
চিটাগাং উইম্যান চেম্বার অব কমার্স এন্ড ইন্ডাস্ট্রি এর উদ্যোগে ৩০ অক্টোবর বেলা ১২ টায় চট্টগ্রাম প্রেস ক্লাবের ‘বঙ্গবন্ধু হল’এ প্রেস কনফারেন্স অনুষ্ঠিত হয়েছে। ১ নভেম্বর থেকে শুরু হতে যাওয়া ২০১৯এর আয়োজন উপলক্ষ্যে এই প্রেস কনফারেন্সের আয়োজন করা হয়। কনফারেন্সে লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন  ডা. মূনাল মাহবুব। এছাড়াও প্রেস কনফারেন্সে  আবিদা মোস্তফা, রেখা আলম চৌধুরী, নিশাত ইমরান-সহ  অন্যান্য পরিচালক ও সদস্যবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

বিগত ১২ বছর আগে চট্টগ্রাম তথা বাংলাদেশের নারী উদ্যোক্তাসহ এসএমই খাতের উদ্যোক্তাদের উৎপাদিত পণ্য বাজারজাতকরনে সহযোগিতা করার লক্ষ্যে ২০০৭ সাল থেকে ধারাবাহিকভাবে আমরা মেলা আয়োজন করে আসছি । বর্তমানে দেশের গন্ডি পেরিয়ে আন্তর্জাতিক অঙ্গনে উদ্যোক্তাদের কাছে এই মেলা গুরুত্বপূর্ণ হয়ে উঠেছে। যার ফলশ্রুতিতে এবছর আমরা বাহারাইন, কাতার, মধ্যপ্রাচ্য, ইন্দোনেশিয়া, মালয়েশিয়া-সহ বিভিন্ন দেশের বিপুল সংখ্যক প্রতিনিধির এই মেলা পরিদর্শনে নিশ্চয়তা পেয়েছি।

এদেশের নারীরা নিজেদেরকে উদ্যোক্তা হিসেবে প্রতিষ্ঠিত হতে উৎসাহিত হয়েছেন। আমরা চট্টগ্রামের নারীরা আমাদের প্রাপ্ত সুযোগ সর্ব্বোচ্চভাবে কাজে লাগাতে চেষ্টা করে যাচ্ছি। দেশের সকল অঞ্চলের তুলনায় আঞ্চলিকভাবে চট্টগ্রামের নারী উদ্যোক্তারা নিজ নিজ স্থানে অনেক বেশী দায়িত্বশীল ও সফল।

শুধু জাতীয়ভাবে নয় আন্তর্জাতিকভাবে চিটাগাং উইম্যান চেম্বার অব কমার্স এন্ড ইন্ডাষ্ট্রিজ ইতিমধ্যে নিজেদের অবস্থান তৈরী করতে পেরেছেন। তারই ফলশ্রুতিতে আমরা এবার প্রথমবারের মত রিপাবলিক অব ইন্দোনেশিয়াকে আমাদের মেলার পার্টনার কান্ট্রি হিসেবে পেয়েছি। মেলা চলাকালীন সময়ে ইন্দোনেশিয়ার উদ্যোক্তারা পর্যায়ক্রমে মেলায় অংশগ্রহন করবেন এবং স্থানীয় উদ্যোক্তাদের সাথে ই২ই মিটিংসহ বিভিন্ন ব্যবসায়িক সভায় মিলিত হবেন।

বাংলাদেশ সরকারের শিল্প মন্ত্রণালয় কর্তৃক প্রতিষ্ঠিত জুট ডাইভারর্সিফিকেশন প্রমোশান সেন্টার ও বাংলাদেশ ট্যুারিজম বোর্ড এর সহযোগিতায় মহিলা উদ্যোক্তাদের উৎপাদিত পণ্যসহ  পণ্যের বাজার সম্প্রসারণ, প্রচার, প্রসার, আয় বৃদ্ধি ভোক্তা-উদ্যোক্তাদের মাঝে পারস্পরিক সম্পর্ক স্থাপনের লক্ষ্যে আগামী ১ নভেম্বর ২০১৯ তারিখ থেকে রেলওয়ে স্টেডিয়াম পলোগ্রাউন্ড, চট্টগ্রামে মাসব্যাপী  শুরু করতে যাচ্ছি।বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের মন্ত্রী টিপু মুনশি (এমপি) শুক্রবার বিকেল ৩ টায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে মেলার শুভ উদ্বোধন ঘোষণা করবেন বলে আয়োজিত সংবাদনশিয়ার সম্মানিত রাষ্ট্রদূত মিসেস রিনা-পি-সোমারনো, এফবিসিসিআই প্রেসিডেন্ট শেখ ফজলে ফাহিম, এশিয়ান-আরব চেম্বার অব কমার্স এর প্রেসিডেন্ট হার-রয়েল-হাইনেস প্রিন্সেস ফে, কসমিক আর.এন্ড.ডি. সাইন্টিস্ট ও মালয়েশিয়া ওয়ার্ল্ড চেম্বার অব কমার্স এর উইম্যান এম্পাওয়ারমেন্ট বিষয়ক উপদেষ্টা ড. পালাক্কাল নাগারাজ, ইন্ডিয়ান ইকোনোকিম ট্রেড অর্গানাইজেশান (আই.ই.টি.ও) এর প্রেসিডেন্ট ড. আসিফ ইকবাল, মালয়েশিয়ান ওয়ার্ল্ড চেম্বার অব কমার্স এর প্রেসিডেন্ট ড. দাতিন মালিগা সুব্রা-মানিয়াম, চিটাগাং চেম্বার এর প্রেসিডেন্ট মাহবুবুল আলম এবং লায়ন্স ক্লাব ইন্টারন্যাশনাল জেলা গভর্নর, বিশিষ্ট নারী উদ্যোক্তা লায়ন কামরুন মালেক এমজেএফ।

এবছর ইরান, ভারত, চায়না, ইন্দোনেশিয়া, থাইল্যান্ড ও পাকিস্তান, মালয়েশিয়া, বাহারাইন, কাতার, মধ্যপ্রাচ্য-সহ বিভিন্ন দেশের উদ্যোক্তারা এই মেলায় অংশগ্রহন ও পরিদর্শন নিশ্চিত করেছেন। মেলায় ছোট-বড় প্রায় সাড়ে তিনশটি স্টল এবং পনেরটি প্যাভেলিয়ন অংশগ্রহন করবেন। এছাড়া নারী উদ্যোক্তাদেরকে স্বল্পমূল্যে ক্ষেত্রবিশেষে বিনামূল্যে অংশগ্রহনের সুযোগ প্রদান করা হয়েছে। মেলার নিরাপত্তা নিশ্চিত করার জন্য পুলিশ ক্যাম্প, সিসি টিভি ক্যামেরা, বেসরকারী নিরাপত্তা রক্ষী, ফায়ার সার্ভিস-সহ প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা রাখা হবে। বিদ্যুৎ সংযোগের জন্য বৈদ্যুতিক সাব-স্টেশন ও সার্বক্ষনিকভাবে উচ্চ ক্ষমতাসম্পন্ন জেনারেটর স্থাপন করা হয়েছে। প্রয়োজনীয় সংখ্যক পুরুষ ও মহিলা টয়লেট, সার্বক্ষনিক পানি সরবরাহ, সিটিকর্পোরেশন এর সহযোগিতায় পরিস্কার-পরিচ্ছন্নতার ব্যবস্থা রাখা হবে। ইতিমধ্যে মেলার স্পন্সর হিসেবে আছেন ব্র্যাক ব্যাংক তারা, ইউনাইটেড কর্মাশিয়াল ব্যাংক লিমিটেড, সিটি ব্যাংক লিমিটেড, বসুন্ধরা গ্রুপ, ইস্পাহানী গ্রুপ, টেলিটক, মাটি-টা, এপ্রোচ-পি.আর গ্লোবাল লিমিটেড, আরএসপিএল, হিমালয়া, লাফজ্,লেক্-মে।মেলায় বিশেষভাবে অংশগ্রহণ করছে পুলিশ নারী কল্যান সমিতি (পুনাক)।পার্টনার কান্ট্রি হিসেবে আছে রিপাবলিক অফ ইন্দোনেশিয়া। ব্যাংকিং পার্টনার হিসেবে আছে এনআরবি ব্যাংক লিমিটেড। মিডিয়া পার্টনার হিসেবে আছে দৈনিক আজাদী। হেলথ্ কেয়ার পার্টনার হয়েছেন সার্জিস্কোপ হাসপাতাল লিমিটেড। ই-কমার্স পার্টনার হিসেবে আছে শপার্স ওয়ার্ল্ড এবং ইভেন্ট ম্যানেজমেন্টের দায়িত্বে রয়েছে আউটসোর্স। এবারই প্রথম মেলার নানান কর্মকান্ডের তথ্য চিত্র ক্রেতা দর্শনার্থীদের কাছে তুলে ধরতে প্রতি সপ্তাহে বুলেটিন প্রকাশের উদ্যোগ গ্রহন করা হে সম্মেলনে জানানো হয়।

শিশুদের বিনোদনের জন্য আকর্ষণীয় বিনোদন পার্কসহ নগরীর স্কুল গুলোতে শিশুদের জন্য বিনামূলে টিকেট সরবরাহের ব্যবস্থা রাখা হয়েছে। মেলার সৌন্দর্য্য বিকাশের জন্য আকর্ষনীয় তোরণ, দৃষ্টিনন্দন ফোয়ারা, মিউজিক্যাল ওয়াটার ডান্স, সুউচ্চ টাওয়ার, মেলার বাহিরাঙ্গনে আলোক সজ্জ্বার ব্যবস্থা গ্রহন করা হয়েছে। মেলার সার্বিক কর্মকান্ড সঠিকভাবে পরিচালনার জন্য সার্বক্ষনিকভাবে মেলা কার্যালয় সচল থাকবে। এছাড়াও ক্রেতা-দর্শনার্থীদের আকৃষ্ট করতে প্রতি সপ্তাহে প্রবেশ টিকেটের উপর থাকবে মটর সাইকেল-সহ ৫১টি আকর্ষণীয় পুরস্কার।
বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত থাকার সম্মতি জ্ঞাপন করেছেন- এসএমই ফাউন্ডেশনের চেয়ারপার্সন কে.এম. হাবিব উল্ল্যাহ্, দি রিপাবলিক অফ ইন্দোয়েছে।

শেয়ার করুনঃ

আরো খবর

Leave a Reply