বাংলাদেশ, মঙ্গলবার, ২৫শে জুন, ২০১৯ ইং, ১১ই আষাঢ়, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ।

মহিউদ্দিন চৌধুরী ওয়েলফেয়ার ফাউন্ডেশনের উদ্যোগে ব্যতিক্রমী ইফতার

 

প্রয়াত এবিএম মহিউদ্দীন চৌধুরী একজন বর্ষীয়ান রাজনীতিবিদ। তিনি গণমানুষের নেতা ছিলেন। এক টানা ১৭ বছর তিনি চট্টগ্রামের মেয়র হিসাবে দায়িত্ব পালন করেছেন। মেয়র থাকাকালীন সময়ে প্রতিবছর তিনি রমজানে প্রতিদিন নিজ বাসায় সাধারণ মানুষের সঙ্গে ইফতার করতেন। যাদের মধ্যে অধিকাংশ ছিল গরিব, খেটে খাওয়া মানুষ। নির্বাচনে পরাজয়ের পরেও তিনি এই ধারা অব্যাহত রেখেছিলেন। যে শিক্ষা প্রতিষ্ঠান এবিএম মহিউদ্দিন চৌধুরী প্রতিষ্ঠা করেছিলেন। গত কয়েক বছর ধরে এই প্রিমিয়ার বিশ্ববিদ্যালয়ের ক্যাম্পাসে ইফতারের আয়োজন করে আসছিলেন। তিনি থাকাকালীন সময়ে সেই আয়োজনে দাওয়াত দেওয়া হত চট্টগ্রামের রাজনীতিক, শিক্ষক, সাংবাদিক, পেশাজীবী ও সংস্কৃতিকর্মীসহ বিশিষ্টজনদেরও।
প্রায় দুই বছর হতে চলেছে নগরবাসীর প্রিয় এই নেতা, তাঁর জীবনাবসান হয়েছেন। কিন্তু তাঁরই সুযোগ্য সন্তান কেন্দ্রীয় আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের শিক্ষা উপমন্ত্রী ব্যারিস্টার মহিবুল হাসান চৌধুরী নওফেল ইফতার আয়োজনের এই বিষয়টি চালু রেখেছেন। তিনি তাঁর তত্ত্বাবধানে এবিএম মহিউদ্দিন চৌধুরী ওয়েলফেয়ার ফাউন্ডেশনের উদ্যোগে এবারও আয়োজন করেছেন ইফতার মাহফিলের।
গত শুক্রবার সন্ধ্যায় চট্টগ্রাম নগরীর ও আর নিজাম রোডের মুখে প্রিমিয়ার বিশ্ববিদ্যালয়ের ক্যাম্পাসে গিয়ে এই চিত্র দেখা গেছে। খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, প্রতি বছরের মত এবারও রমজানের প্রথমদিন থেকে শুরু করে চট্টগ্রাম প্রিমিয়ার বিশ্ববিদ্যালয়ের ক্যাম্পাস জুড়ে চলছে ইফতারের এই আয়োজন। এতিম, ভিক্ষুক, গরিব, অসহায়, খেটে খাওয়া মানুষ যারা প্রতিবছর আসেন, তাদের প্রায় সবাই এসেছিলেন। সারাদিন রোজা রেখে ইফতারও খেয়েছেন পেট ভরে। মহিউদ্দিন চৌধুরীর ভালোবাসার সিক্ত অনেক খেটে খাওয়া মানুষ, ভিখারী আছেন। তারা প্রতিদিন আসেন। নগরীর জিইসি মোড় থেকে গোলপাহাড় এলাকায় ভিক্ষা করেন বৃদ্ধ আলাউদ্দিন। তিনিও এসেছেন ইফতার মাহফিলে। তাঁর সাথে কথা বলে জানা গেছে, তিনি আয়োজনের এই ইফতারী খেয়ে খুবই তৃপ্ত। এই ইফতারীর আয়োজনে উপস্থিত হয়েছেন সাধারণ মানুষ, এতিম শিশুরা। প্রতিদিন প্রায় ১০০০ থেকে ১২০০ মানুষ ইফতারের এই সময়ে হাজির হন প্রিমিয়ার বিশ্ববিদ্যালয়ের ক্যাম্পাসে এ বি এম মহিউদ্দিন চৌধুরী ওয়েলফেয়ার ফাউন্ডেশনের আয়োজনে ইফতার মাহিফলে। এ যেন এক ব্যতিক্রমী আয়োজন। এই আয়োজনে মহিউদ্দিন চৌধুরী পরিবারের পক্ষে জামাতা ডা. সেলিম আক্তার এবং সাবেক ছাত্রলীগ নেতা ও মহিউদ্দিনের ব্যক্তিগত সহকারীর দায়িত্ব পালনকারী ওসমান গণি ইফতার মাহফিলের কার্যক্রম পরিচালনা করেন।

আরো খবর

Leave a Reply