বাংলাদেশ, মঙ্গলবার, ২১শে মে, ২০১৯ ইং, ৭ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ।

মৃনাল পাল: বহু প্রতিভার অধিকারী সাধারণ মানুষের প্রিয়মুখ

ডাঃ মৃনাল পাল পিতা মৃত হরেন্দ্র লাল পাল, মাতা মৃত সুরু বালা পাল আনোয়ারা থানার গুজরা গ্রামের এক দরিদ্র পরিবারের সন্তান। মি. পাল ১৯৭২ সালে নিত্যানন্দ উচ্চ বিদ্যালয় হতে মাধ্যমিক পরীক্ষার লেটারমার্কসহ প্রথম বিভাগে উত্তীর্ণ হন। ১৯৮৩ সালে চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় এর অধীনে বি-এড পরীক্ষায় মেধাতালিকায় ৮ম স্থান পেয়ে ১ম বিভাগে উত্তীর্ণ হন। এরপর পরবর্তীতে তিনি রায়পুর ইউনিয়ন উচ্চ বিদ্যালয়  ও চট্টগ্রাম মিউনিসিপ্যাল উচ্চ বিদ্যালয়ে শিক্ষাকতা করেন, শিক্ষকতা জীবন ত্যাগ করে ১৯৮৬ সাল থেকে ন্যাশনাল ব্যাংক লিঃ ২ বৎসর এবং ন্যাশনাল ক্রেডিট এন্ড কমার্স ব্যাংক লিঃ ১২ বৎসর বিভিন্ন মেয়াদে চাকুরী করেন। চাকুরী জীবনে ১৯৯৪ সালে চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় হতে চঁনষরপ অফসরহরংঃৎধঃরড়হ (লোক প্রশাসন)এ মাস্টার ডিগ্রী পরীক্ষায় দ্বিতীয় বিভাগে উত্তীর্ণ হন। পরবর্তীতে ২০০১ সালে ১৮ই এপ্রিল মার্কেন্টাইল ব্যাংক লিঃ এ যোগদান করেন বিভিন্ন ব্যাংকে চাকুরী থাকাকালীন বিভিন্ন কর্মশালায় প্রশিক্ষণ ও সেমিনার যোগদান করেন। ২০০২ সালে সিটি ব্যাংক এর অধীনে অংশগ্রহণ করেন এবং ২০০৩ সালে মার্কেন্টাইল ব্যাংক লিঃ ঞৎধফব ঝবসরহধৎ -এ অংশগ্রহণ করার জন্য মালয়েশিয়া পাঠান , শুধু তাই নয় চাকুরী কালীন সময়ে বাংলাদেশ হোমিওপ্যাথিক বোর্ড ঢাকা নৈশ বিভাগে ৪ বছরের কোর্সে ভর্তি হয়ে ২০০৭ সালে ডিপ্লোমা ইন হোমিও মেডিকেল সাজারীতে ১ম বিভাগে উত্তীর্ণ হন। উল্লেখ্য, মার্কেন্টাইল ব্যাংক কক্সবাজার ও চট্টগ্রামের বিভিন্ন শাখার ম্যানেজারের দায়িত্ব পালন করেন তিনি। মাতৃবিয়োগের পর ২০০৫ সাল হতে অদ্যাবদি পারিবারিক দূর্গা পূজার মন্ডপে নিজ গ্রামে ও পাশ্ববর্তী গ্রামের পাড়ায় অসহায় ও দুস্থ নর-নারীদের প্রতি বৎসর ২৮০ হতে ৩০০ জনকে শাড়ী-লুঙ্গি বিতরণ করে আসছেন এটা কারও অজানা নয়। মি. পাল ২০১২ সালে নিত্যানন্দ উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রাক্তন ছাত্র-ছাত্রী পরিষদের চেয়ারম্যান নিযুক্ত হন এবং ২০১৪ সাল হতে ২০১৮ ইংরেজী নিত্যানন্দ উচ্চ বিদ্যালয় গুজরা অভিভাবক সদস্যদের ভোটে গভর্নিং বোডীর চেয়ারম্যান নির্বাচিত হন। চেয়ারম্যান থাকা কালীন ৪ বৎসর সময়ে মন্ত্রণালয় হতে বিদ্যালয় ভবন ছাত্র-ছাত্রীদের মাল্টিমিডিয়া পাঠ দানের ১৭টি ল্যাপটপ, বিদ্যালয়ের বিদ্যুৎ আনায়নের জন্য গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করেন। ব্যক্তিগত বেতনে বিদ্যালয়ের গরীব ও মেধাবী ছাত্র-ছাত্রীদের শিক্ষার ব্যবস্থা করেন এবং বিদ্যালয়ের সার্বিক উন্নয়নে যথেষ্ট অবদান রাখেন। গ্রামের ৫ ছেলের  ব্যাংকের চাকুরী ও আরো কয়েক জন ছেলে বেসরকারী প্রতিষ্ঠানে চাকুরীর ব্যাবস্থা করণে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করেন তিনি। সারা জীবন এলাকার দরিদ্র জনগোষ্ঠির সেবা করে আসছেন। মি. পাল ২০১৭ সালে ১২ আগষ্ট মার্কেন্টাইল ব্যাংক লিঃ হতে সিনিয়র ভাইস প্রেসিডেন্ট হিসাবে অবসর গ্রহণ করেন। বর্তমানে তিনি চট্টগ্রামের চন্দনপুরায় আনোয়ারা হোমিও প্যাথিতে বিভিন্ন রোগের চিকিৎসা করেন।

আরো খবর

Leave a Reply