অর্থমন্ত্রী ঠিক করেননি: সিইসি

  প্রিন্ট
(Last Updated On: সেপ্টেম্বর ৭, ২০১৮)
একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের তারিখ নির্ধারণ করে দিয়ে অর্থমন্ত্রী সঠিক কাজ করেননি বলে মন্তব্য করেছেন প্রধান নির্বাচন কমিশনার (সিইসি) কেএম নূরুল হুদা।
আগামী ২৭ ডিসেম্বর একাদশ জাতীয় সংসসদ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হতে পারে-অর্থমন্ত্রীর এমন বক্তব্যের প্রেক্ষিতে সিইসি বলেন, নির্বাচনের তারিখ নিয়ে আমরা কথা বলিনি। আমাদের সঙ্গে কোনো আলোচনাও হয়নি। আমরা তার সঙ্গে যোগাযোগও করেনি। মন্ত্রী ভুল বলেছেন।
বৃহস্পতিবার রাজধানীর হোটেল র‌্যাডিসনে দক্ষিণ এশিয়ার নির্বাচন কমিশনের সংগঠন ফোরাম অব ইলেকশন ম্যানেজমেন্ট বডিস অব সাউথ এশিয়া (ফেমবোসা) এর দুই দিনব্যাপী সম্মেলন শেষে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে তিনি এ কথা জানান।
সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে সিইসি বলেন, মিডিয়ার সামনে বললাম, অর্থমন্ত্রী ভুল করেছেন। এটা তার কাজ নয়। এভাবে বলা তার ঠিক হয়নি। নির্বাচনের তারিখ নিয়ে আমরা কখনো কিছু বলিনি। তার এ বিষয়ে কথা বলা উচিত হয়নি। নির্বাচনের তারিখ নিয়ে গণমাধ্যমের সামনে কথা বলা তাঁর ঠিক হয়নি।
অপর এক প্রশ্নর জবাবে সিইসি বলেন, আমরা অবাধ, সুষ্ঠু, নিরপেক্ষ নির্বাচন করতে সক্ষম। এর আগে সংবাদ সম্মেলনে সিইসি ফেমবোসা সম্মেলন সম্পর্কে জানান, ৯ দফা ঢাকা ঘোষণার মধ্য দিয়ে এ সম্মেলন শেষ হয়েছে এবং বাংলাদেশের প্রধান নির্বাচন কমিশনার হিসেবে তিনি (কে এম নূরুল হুদা) এর চেয়ারপারসনের দায়িত্ব নিয়েছেন। তিনি জানান, ফেমবোসার আগামী সম্মেলন ভুটানে অনুষ্ঠিত হবে।
গত বুধবার অর্থ মন্ত্রাণালয়ের সম্মেলন কক্ষে সিলেট সিটি কর্পোরেশনের নব নির্বাচিত মেয়র আরিফুল হক চৌধুরীর নেতৃত্বে কাউন্সিলরদের সঙ্গে বৈঠক শেষে অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত বলেন, ডিসেম্বর মাসে নির্বাচনের জন্য দিন পাওয়া কঠিন। তবে নির্বাচন কমিশন ২৭ ডিসেম্বর ঠিক করেছে। সম্ভাবত ২৭ তারিখই নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। এছাড়াও আগামী ২০ দিনের মধ্যে নির্বাচনকালীন সরকার গঠিত হবে বলে জানিয়েছিলেন অর্থমন্ত্রী।
এর আগে আজ সকালে অর্থমন্ত্রীর বক্তব্যের বিষয়ে জানতে চাইলে সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের সাংবাদিকদের বলেন, ‘২৭ ডিসেম্বর নির্বাচনের সম্ভাব্য তারিখ, এটি নিশ্চিত হলেও তা বলার দায়িত্ব আমাদের না, এটি নির্বাচন কমিশনের দায়িত্ব। নির্বাচন কমিশনকে বিব্রত করা আমাদের কাজ না।’
ওবায়দুল কাদের আরও বলেন, ‘নির্বাচন কমিশনই বলবে-কবে নির্বাচন হবে। এটি বলার দায়িত্ব সরকার কিংবা সরকারের কোনো মন্ত্রীর নয় কিংবা দলের কোনো নেতার না। তাই আমাদের যার যার এরিয়ার মধ্যে সীমিত থেকে রেসপনসিবল ভ‚মিকায় থাকলে দেশ, গণতন্ত্র ও সরকারের জন্য ভালো।’
নির্বাচনকালীন সরকার প্রশ্নে ওবায়দুল কাদের বলেন, নির্বাচনকালীন সরকার কখন হবে, আকার কী হবে, আকারে কতটা ছোট হবে, মন্ত্রিসভায় কতজন থাকবেন, তা একমাত্র প্রধানমন্ত্রীর এখতিয়ার। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ছাড়া এ বিষয়ে আর কেউ জানেন না। দলের সাধারণ সম্পাদক হিসেবে তিনিও জানেন না।
২০ দিনের মধ্যে নির্বাচনকালীন সরকার ও ২৭ ডিসেম্বর ভোট হতে পারে বলে গত বুধবার যে মন্তব্য করেছেন সেটি অনুমাননির্ভর বলে জানিয়েছেন অর্থমন্ত্রী।
আজ বৃহস্পতিবার সচিবালয়ে অর্থমন্ত্রী সাংবাদিকদের বলেন, নির্বাচনকালীন সরকার গঠনের সিদ্ধান্ত নেবেন প্রধানমন্ত্রী ও ভোটের তারিখ  ঘোষণা করবে নির্বাচন কমিশন। আমার ধারণা অমন একটা তারিখেই নির্বাচন হতে পারে। তবে এটা নির্বাচন কমিশনের এখতিয়ার। সৌজন্য ইত্তেফাক/কেকে

০ Comments

Leave a Comment

Login

Welcome! Login in to your account

Remember me Lost your password?

Lost Password