বাংলাদেশ, সোমবার, ২২শে জুলাই, ২০১৯ ইং, ৭ই শ্রাবণ, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ।

সারমেধ মহাস্থবিরের জীবন কর্ম নিয়ে গ্রন্থ প্রকাশ

বৌদ্ধ ধর্মের অন্যতম অগ্রদূত, পূণ্য পুরুষ সংঘরাজ সারমেধ মহাস্থবির। তিনি ভারতীয় উপমহাদেশের পূর্বাঞ্চলে বৌদ্ধ ধর্মের হারিয়ে যাওয়া ঐতিহ্য পুন:উদ্ধার করেন। তাঁকে সেজন্য বলা হয়, বৌদ্ধ ধর্মের সংস্কারক। এতদঞ্চলের বৌদ্ধ সমাজ নিজেদের ধর্মকর্ম ভূলে গিয়ে যখন বিপদগামী হয়ে পড়েছিল ও ত্রিরত্ন অর্থাৎ বুদ্ধ, ধর্ম এবং সংঘের প্রকৃত তথ্য সম্পর্কে অজ্ঞছিল ঠিক এই সময়ে ধর্ম সংস্কারক হিসেবে আবির্ভাব হলেন সংঘরাজ মহাস্থবির। সংঘরাজ সারমেধ মহাস্থবিরের নেতৃত্বে ধর্ম সংস্কার আন্দোলনের গুরুত্বপূর্ণ ফল হল চট্টগ্রামে বৌদ্ধ সমাজকে থেরবাদে রূপান্তর করা। এই অবদানের কারণে তিনি কালজয়ী। বিশিষ্ট লেখক ও ব্যাংকার বাবু দুলাল কান্তি বড়–য়ার “বৌদ্ধ ধর্ম সংস্কারক সারমেধ মহাস্থবির মানুষ ও মণীষী” গ্রন্থের প্রকাশনা অনুষ্ঠানে চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের পালি বিভাগের শিক্ষক ড. দীপঙ্কর শ্রীজ্ঞান বড়–য়া উপরোক্ত কথাগুলো বলেন। ৭ এপ্রিল বিকেলে বহদ্দারহাটস্থ মেরিট বাংলাদেশ কলেজ অডিটরিয়ামে বৌদ্ধ ধর্ম সংস্কারক সারমেধ মহাস্থবির মানুষ ও মণীষী গ্রন্থের প্রকাশনা উদযাপন কমিটির সভাপতি ও চট্টগ্রাম ইতিহাস চর্চা কেন্দ্রের সভাপতি সোহেল মুহাম্মদ ফখরুদ-দীনের সভাপতিত্বে ও বিশিষ্ট সাংবাদিক প্রাবন্ধিক এ.কে.এম আবু ইউসুফের সঞ্চালনায় এই প্রকাশনা উৎসবে প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের পালি বিভাগের শিক্ষক ড. দীপঙ্কর শ্রীজ্ঞান বড়ুয়া। প্রধান আলোচক হিসেবে বক্তব্য রাখেন বোয়ালখালী কধুরখীল বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক বাবুল কান্তি দাশ। বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন অধ্যাপক প্রভাস কুসুম বড়ুয়া, চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিষ্টার শিশির বড়ুয়া, লেখক দুলাল কান্তি বড়ুয়া, অধ্যাপক জীতেন্দ্রলাল বড়ুয়া, অধ্যক্ষ ইউনুছ কুতুবী, অধ্যাপক ভবতোষ সরকার, বীরমুক্তিযোদ্ধা প্রাবন্ধিক জামাল উদ্দিন, চকবাজার থানা আওয়ামীলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক অমর কান্তি দত্ত, শিক্ষক তরুণ বড়ুয়া, নাট্যকার অশোক বড়ুয়া, প্রকৌশলী সজীব বড়ুয়া, এডভোকেট অর্জুন বড়য়া, ডাঃ লিটন বড়ুয়া, লায়ন আবু তাহের, সাংবাদিক সৈয়দ শিবলী ছাদিক কফিল, সাংবাদিক অনুতোষ দত্ত প্রমূখ।

আরো খবর

Leave a Reply