অক্টোবর ২১, ২০২১ ৯:৪৩ অপরাহ্ণ

এহসান গ্রুপের প্রতারকরা ধর্মব্যবসায়ী : মোমিন মেহেদী

নতুনধারা বাংলাদেশ এনডিবির চেয়ারম্যান মোমিন মেহেদী বলেছেন, ইভ্যালী-নগদের প্রতারকরা যেমন স্বাধীনতার চেতনা ব্যবসায়ী, তেমনি এহসান গ্রুপের প্রতারকরা ধর্মব্যবসায়ী। এই দুইধরণের প্রতারকদেরকে কেবল সচেতন নাগরিকরাই প্রতিহত করতে পারে। কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে ১৮ সেপ্টেম্বর বিকেল ৫ টায় ‘প্রতারণার জালে বাংলাদেশ : উত্তরণে করণীয়’ শীর্ষক আলোচনা সভায় তিনি উপরোক্ত কথা বলেন।
প্রেসিডিয়াম মেম্বার রাবেয়া চৌধুরীর সভাপতিত্বে এতে বক্তব্য রাখেন প্রেসিডিয়াম মেম্বার অধথ্যাপক শুভঙ্কর দেবনাথ, সিনিয়র ভাইস চেয়ারম্যান শান্তা ফারজানা, ভাইস চেয়ারম্যান নূরে আলম চৌধুরী, ভারপ্রাপ্ত মহাসচিব নিপুন মিস্ত্রী, এনডিবি চেয়ারম্যানের উপদেষ্টা গোলাম রহমান রিপন প্রমুখ। মোমিন মেহেদী তাঁর বক্তব্যে আরো বলেন, নগদ দেশের টাকা পাচার করার জন্য নতুনভাবে প্রতারণা শুরু করেছে কতিপয় দুর্নীতিবাজ মন্ত্রী-এমপির পাশাপাশি সোলায়মান সুখনের মত বাটপারদেরকে সাথে নিয়ে। যারা মুখে সুন্দর কথার ফুলঝুড়ি রাখে, কাজে করে দেশ ও মানুষের ক্ষতি; অন্যদিকে এহসান গ্রুপের নামে মানুষের সাথে প্রতারণা করেছে ধর্ম-মহানবীর সুন্নত দাড়ি-টুপি লাগিয়ে, পবিত্র কোরআনের অর্থ বিকৃত করে। এরা হাজার হাজার কোটি টাকা পাচার করার জন্য বিভিন্ন মন্ত্রণালয়ে কোটি কোটি টাকা ঘুষও দিয়েছে। অথচ ইসলাম বলছে ‘ঘুষ-সুদ হারাম।’ এসব প্রতারকদেরকে সরকারের একাংশ পৃষ্টপোষকতা দিচ্ছে। যা জাতির সামনে স্পষ্ট। আমরা রাজপথে যদি না জাগি এমন অসংখ্য প্রতারক দেশকে শূণ্য করে দেবে।

 

 

 

 

এসময় বক্তারা আরো বলেন, সকল প্রকার অপরাধ-দুর্নীতি প্রতিহত করতে তারুণ্যের রাজনৈতিক ঐক্যবদ্ধতার কোন বিকল্প নেই। আগামী ৯ অক্টোবর পর্যন্ত চলমান ‘রাজনীতিক সংগ্রহ কর্মসূচি’র ধারাবাহিকতায় ‘বায়ান্নকে প্রেরণা-একাত্তরকে চেতনা ও জাতীয় বীরদের প্রতি যথাযথ শ্রদ্ধা জ্ঞাপনের মধ্য দিয়ে দারিদ্র-দুর্নীতি-বেকারত্ব-খুন-গুমমুক্ত দেশ গড়ার জন্য নিবেদিত’ স্বাধীনতার স্বপক্ষের নাগরিককে ০১৭৯৫৫৬৮১৩৭ নম্বরে এসএমএস করাটা একজন সচেতন নাগরিকের দায়িত্ব।

 

শেয়ার করুনঃ

Leave a Reply