৬ ফেব্রুয়ারি ২০২৩ / ২৩শে মাঘ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ / সকাল ১১:২৪/ সোমবার
ফেব্রুয়ারি ৬, ২০২৩ ১১:২৪ পূর্বাহ্ণ

আমদানিকারক পরিচয়ের আন্তঃজেলা প্রতারক চক্রের মূল হোতাসহ আটক ৬

     

নিজস্ব প্রতিবেদক
চট্টগ্রাম মহানগর গোয়েন্দা ( বন্দর ও পশ্চিম) বিভাগের বিশেষ অভিযানে আন্তঃ জেলা প্রতারক চক্রের মূলহোতা শেখ জাহাঙ্গীর কবির (৪৬) এবং তার অন্যতম সহযোগী ভূয়া ডিলার মোহাম্মদ আলী (৫১)সহ ০৬ জনকে গ্রেফতার হয়েছে। ডিবি – বন্দর ও পশ্চিমের উপ- পুলিশ কমিশনার মোহাম্মদ আলী হোসেন শনিবার (৭ জানুয়ারি) সকালে একটি প্রেস ব্রিফিংয়ে গনমাধ্যমকে এ বিষয়ে বলেন, ভুক্তভোগীদের দেয়া তথ্যের ভিত্তিতে (ডিবি – বন্দর ও পশ্চিম) এর একটি স্পেশাল টিম চট্টগ্রাম শহরের বিভিন্ন জায়গায় অভিযান পরিচালনা করে আমদানি কারক পরিচয়ের আন্তঃ জেলা প্রতারক চক্রের মূলহোতা শেখ জাহাঙ্গীর কবির (৪৬) এবং তার অন্যতম সহযোগী মোহাম্মদ আলী (৫১) সহ তাদের সহযোগী মোঃ ওয়াসিম আহমেদ (৩৭), মোঃ নাজমুল হুদা খান (৪৬), মোঃ রাজিবুল হক (৩৮) এবং মোঃ শাহজালাল দেরকে চট্টগ্রাম মহানগরের বিভিন্ন স্থানে অভিযান পরিচালনা করে ২৪ ঘন্টার মধ্যে আটক করতে সক্ষম হয়। আসামীদের জিজ্ঞেসাবাদে জানাযায়, আটক শেখ জাহাঙ্গীর কবির (৪৬) এবং মোহাম্মদ আলী (৫১) উক্ত প্রতারক চক্রের মূল হোতা। তারা ঢাকা- চট্টগ্রামের বিভিন্ন আন্তর্জাতিক মানের হোটেলে অবস্থান করে নিজেদের তেল ও চিনির আমদানিকারক বলে পরিচয় দিয়ে থাকে। পরবর্তীতে তাদের সহযোগী আসামীদের সাথে নিয়ে তেল ও চিনি বিক্রির কথা বলে বিভিন্ন ব্যবসায়ীদের নিকট হতে এডভান্স বাবদ লাখ লাখ টাকা নিয়ে প্রতারনার মাধ্যমে টাকা আত্মসাৎ করে। ডিবি – বন্দর ও পশ্চিমের উপ- পুলিশ কমিশনার মোহাম্মদ আলী হোসেন বলেন, গ্রেফতারকৃতরা দীর্ঘদিন ধরে উক্ত প্রতারনার কাজ সংগঠন করে আসলেও প্রতারনার পর গা ঢাকা দেওয়ায় তাদেরকে সনাক্ত করা যাচ্ছিলনা। ভুক্তভোগীরা এ চক্রের বিরুদ্ধে অভিযোগ জানানোরপর চক্রের মূলহোতাকে সদস্যকে তেল ও চিনির অগ্রীম টাকা দেওয়ার প্রলোভন দেখিয়ে কৌশলে আগ্রাবাদের একটি রেস্টুরেন্টে এনে হাতেনাতে আটক করা হয়। অভিযানের বিষয়ে প্রেস ব্রিফিংয়ে অভিযানটিতে নেতৃত্ব দেয়া পরিদর্শক কায়সার হামিদ জানায়, ভিক্টিমদের অভিযোগ আমলে নিয়ে আমরা ৬ জানুয়ারি নগরীর আগ্রাবাদের অভিজাত হোটেল বেস্ট ওয়েস্টার্ন হোটেলের রেস্টুরেন্টে এনে তাদের হাতেনাতে আটক করা হয়। তিনি জানান, এই প্রতারক চক্রের সদস্যরা বাজারের তেল ও চিনির সংকট ও উর্ধগতিকে পুঁজি করে বিভিন্ন সহজ সরল ব্যবসায়ীদের টার্গেট করে। এই চক্রের সদস্য মোহাম্মদ আলী নিজেকে ডিলার পরিচয় দেন এবং তাদের নিজস্ব ভূয়া কোম্পানী ঐশী ইন্টারন্যাশনালের আমদানী করা তেল ও চিনির জাহাজ চট্টগ্রাম বন্দরে মাল খালাসের অপেক্ষায় আছে বলে ব্যবসায়ীদের কাছ থেকে ৫ থেকে ৫০ লক্ষ টাকা পর্যন্ত এডভান্সড নিয়েছেন বলে স্বীকার করেন। মূলত ব্যবসায়ীদের সরল বিশ্বাসকে কাজে লাগিয়ে প্রায় দেড় বছর ধরে চট্টগ্রামে এই প্রতারনা করে আসছে চক্রটি। প্রতারক সদস্যদের প্রত্যেকের বিরুদ্ধে বিভিন্ন জেলায় একাধিক মামলা রয়েছে। চক্রের মূলহোতা শেখ জাহাঙ্গীর হোসেন নিজেকে বিভিন্ন সময় পুলিশ অফিসার, সেনা সদস্য সহ সচিব পরিচয় দিতেন। সমবায়ের উর্ধতনকর্মকর্তা পরিচয় দিয়েও এক ভিক্টিম থেকে ৬২ লক্ষ টাকা হাতিয়ে নেওয়ার অভিযোগ আছে তার বিরুদ্ধে। আগ্রাবাদের যে হোটেল থেকে তাকে আটক করা হয় ২ মাস ধরে সেখানেও কোন বিল দেন নি বলে হোটেল কর্তৃপক্ষ জানায়। এর আগে পুলিশ পরিচয়ে প্রতারনা করায় তার বিরুদ্ধে একটি প্রতারনার মামলা হয়েছিল বলে জানান মহানগর গয়েন্দা বিভাগ (ডিবি)। এদিকে প্রতারক শেখ জাহাঙ্গীর কবির গ্রেফতারের সংবাদ পেয়ে ভুক্তভোগীরা ডলার ডিবি কার্যালয়ে উপস্থিত হতে শুরু করেছেন। মোঃ নুর ইসলাম বাবুল নামক এক ভুক্তভোগী অভিযোগ করেন, প্রতারক মোহাম্মদ আলীও তার সহযোগীরা ব্যবসায়ীদের টার্গেট করে বাজারদর থেকে কম মূল্যে ব্রাজিল থেকে আনা চিনি ও তানজেনিয়া থেকে আনা সয়াবিন তেলের নমুনা দেখিয়ে মূলহোতা শেখ জাহাঙ্গীর কবিরের কাছে নিয়ে গিয়ে অগ্রিম বাবদ ৫০ লক্ষ টাকা চায়, এতে তাদের সন্দেহ হলে তারা মহানগর গয়েন্দা বিভাগ (ডিবি)’র সাথে আলোচনা করলে ডিবি অনুসন্ধান করে প্রতারক চক্রটিকে সনাক্ত করে। পরবর্তীতে অগ্রিম চেক দেওয়ার প্রলোভন দেখিয়ে তাদের আগ্রাবাদের বিলাসবহুল হোটেল বেস্ট রেস্টুরেন্ট থেকে মূলহোতাকে আটক করতে সক্ষম হয়। চট্টগ্রামের সীতাকুণ্ড এলাকায় ২০০ কোটি টাকার একটি বাংলো রয়েছে বলে ছবি দেখিয়ে ব্যবসায়ীদের মনোযোগ আকর্ষন করতো বলে জানায় ভুক্তভোগীরা। এসময় সরকারের কাছে প্রতারকদের কঠোর শাস্তির দাবী জানান ভুক্তভোগীরা। ডিবি জানায়, জিজ্ঞাসা বাদে শেখ জাহাঙ্গীর কবির জানায় খাতুন গঞ্জের এক ব্যবসায়ী থেকে ১শত ৫০ কোটি টাকা হাতিয়ে নেওয়ার কথাও স্বীকার করেন এবং প্রতারনার টাকায় ঢাকার বিভিন্নস্থানে একাধিক ফ্ল্যাট, প্লট সহ আগ্রাবাদে ঐশী ইন্টারন্যাশনালের অফিস রয়েছে বলে জানায়।

শেয়ার করুনঃ

Leave a Reply