জুলাই ২, ২০২২ ১১:৩৮ অপরাহ্ণ

চাক্তাই ট্রাকে চাঁদাবাজির করতে না পেরে দুই শ্রমিক নেতাকে মারধর

চাক্তাই ট্রাক শ্রমিক কল্যাণ সমবায় সমিতির সাধারণ সম্পাদক বেলাল হোসেন বেলাল  ও পরিবহন শ্রমিক নেতা নুরুল হক ট্রাক থেকে জোর পুর্বক চাঁদাবাজির প্রতিবাদ করায় বৃহস্পতিবার বেলা ১২টায় চাক্তাই এলাকায় সন্ত্রাসীরা মারধর করেছে। আহত শ্রমিক নেতারা চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধিন রয়েছে।

স্থানীয় সূত্রে জানায়, চট্টগ্রাম চাক্তাই-খাতুনগঞ্জে বিভিন্ন জেলা থেকে পণ্যবাহী আসা ট্রাক থেকে প্রতিদিন লক্ষ লক্ষ টাকার চাঁদাবাজি করে আসছে একটি চক্র। কেউ সাহস করে চাঁদাবাজির প্রতিবাদ করলে সন্ত্রাসী বাহিনী পরিকল্পিতভাবে হামলা এবং হামলার পর বিভিন্ন মামলা হামলায় ফাঁসিয়ে দেয় চক্রটি। চাক্তাই খাতুনগঞ্জে চাঁদাবাজির ঘটনায় ১৮মে বুধবার চাক্তাই এলাকার ব্যবসায়ী ও  পরিবহন শ্রমিক সংগঠন মিলে প্রতিবাদ সভায় করেছে। চাক্তাই ব্যবসায়ী ও বনিক সমিতির নাম ভাঙ্গিয়ে সমিতির সদস্যদের কাছে তথ্য গোপন করে সমিতির কেরানী মোহাম্মদ ইউনুছ দীর্ঘদিন ধরে চাক্তাই এলাকায় একটি চাঁদাবাজি গ্রুপ তৈরী করেছে। সমিতির সিকিউরিটি গার্ডদের অপব্যবহার করে প্রতিদিন লক্ষ লক্ষ টাকা চাঁদাবাজি করে আসছে। সমিতির সদস্যরা আয় ব্যয়সহ হিসাব পত্রের তথ্য জানতে চাইলে সমিতির কেরানী ইউনুছ ওই সদস্যর বিরুদ্ধে বিভিন্ন কৌশলে সভাপতি  এবং সাধারণ সম্পাদকসহ বাকী সদস্যদের সাথে কৌশলে দুরত্ব সৃষ্টির করে দেন। সমিতির কেরানী ইউনুছের সাথে ব্যক্তিগত বিরোধের কারণে চাক্তাই খাতুনগঞ্জের অনেক জনপ্রিয় রাজনৈতিক দলের নেতা এবং জনপ্রতিনিধিকেও সমিতির সাথে দুরত্ব সৃষ্টি এবং বিভিন্নভাবে মিথ্যা মামলায় ফাঁসিয়ে দেয়ার অভিযোগও রয়েছে ইউনুছ কেরানির বিরুদ্ধে। এর মধ্যে চট্টগ্রামের জনপ্রিয় কাউন্সিলর ও চট্টগ্রাম মহানগর আওয়ামী লীগ নেতা নুরুল হক হাজীকে মিথ্যা মামলায় নারী দিয়ে ফাঁসানো, বক্সিরহাট ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও ব্যবসায়ী নেতা ফয়েজুল্লাহ বাহাদুরের বিরুদ্ধে একাধিক মিথ্যা মামলায় ফাঁসানো, সাবেক কাউন্সিলর জামাল উদ্দীনসহ অনেকে দায়িত্বশীল ব্যক্তির সাথে সমিতির সাথে দুরত্ব সৃষ্ঠি করেছে সমিতির কেরানী ইউনুছ। চাক্তাই শিল্প ও বণিক সমিতির কেরানী ইউনুছ সরকার বিরোধী বিভিন্ন কর্মকান্ডের সাথে জড়িত থাকার  অভিযোগ রয়েছে। চাক্তাই-খাতুনগঞ্জে ট্রাক থেকে গণহারে চাঁদাবাজির ঘটনায় পরিবহণ শ্রমিকদের পক্ষ থেকে সমিতির কেরাণী মোহাম্মদ ইউনুছসহ চাঁদা সংগ্রহে জড়িতের বিরুদ্ধে সিএমপি কমিশনার, র‌্যাব-৭, বাকলিয়া থানাসহ বিভিন্ন দপ্তরে অভিযোগ করা হয়েছে। চাক্তাই ট্রাক শ্রমিক কল্যাণ সমবায় সমিতির সাধারণ সম্পাদক বেলাল হোসেন বেলাল জানান, ট্রাকে চাঁদাবাজি করে একটি গ্রুপ বদনাম হচ্ছে আমাদের বিয়ষটি নিয়ে আমরা বিভিন্ন সময় প্রতিবাদ জানিয়ে আসছি, পরিবহন শ্রমিকদের প্রতিবাদের কারণে তারা চাঁদাবাজিতে সুবিধা করতে না পেরে সমিতির কেরানী ইউনুছের নির্দেশে সিকিউরিটি গার্ডরা আমাদের উপর হামলা চালিয়েছে। চাঁদাবাজমুক্ত চাক্তাই এলাকা করতে পরিবহণ শ্রমিকেরা প্রতিবাদ অব্যহত থাকবে এবং চাক্তাই শিল্প ও বণিক সমিতির সাথে আমরা কাজ করে যাবে।

এ বিষয়ে বক্সিরহাট ওয়াড কাউন্সিলর ও চট্টগ্রাম মহানগর আওয়ামী লীগ নেতা হাজী নুরুল হক জানান, চাক্তাই ট্রাক থেকে চাঁদাবাজির ঘটনা এটা সবাই জানে যারা চাঁদাবাজদের বিরুদ্ধে প্রতিবাদ করেছে তাদেরে বিভিন্ন সময় বিভিন্ন কৌশলে চাঁদাবাজ চক্রটি  মিথ্যা মামলা দিয়ে হয়রানি করেছে। সমিতির সভাপতি এবং সাধারণ সম্পাদক তাদের কোন ক্ষমতা নাই ইউনুছ কেরানী যেভাবে চালাই সমিতি সেভাবে চলে ইউনুচ কেরানির কাছে সমিতির  সদস্যরা জিম্মি বলে তিনি জানান।  এ বিষয়ে বাকলিয়া থানা অফিসার ইনচার্জ  রাশেদুল হক জানান,  চাক্তাই  এ চাঁদাবাজির  ঘটনায় মারধরের বিষয়ে থানায় এখনো পর্যন্ত কোন কেউ অভিযোগ নিয়ে আসেনি, অভিযোগ হাতে আসার পর চাঁদাবাজির ঘটনায় জড়িতদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে বলে তিনি জানান।

শেয়ার করুনঃ

Leave a Reply