১৫ জুন ২০২৪ / ১লা আষাঢ়, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ / রাত ৩:০৬/ শনিবার
জুন ১৫, ২০২৪ ৩:০৬ পূর্বাহ্ণ

ঠাণ্ডা মিয়ার গরম কথা (৩৩৫) প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সমীপে

     

মাননীয়,

গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সমীপে,

শ্রদ্ধেয় হাসিনা আপারে,

গরম গরম কথার শুরুতে আমার লাখ কোটি সালাম জানিবেন। আশা করি আল্লাহ মালিকের অপার মহিমায় ভালো থাকিয়া ভিশন ও মিশন কায়েমের লক্ষ্যে নানান ফর্মূলা তৈরী ও বাস্তবায়ন করিয়া  দ্বাদশ জাতীয় সংসদ লইয়া  নানা চিন্তা ভাবনা করিয়া দিনাতিপাত করিতেছেন। আমিও গ্রাম বাংলার এক মফস্বল শহরে থাকিয়া  মোটা চাল, গ্যাস, আলু ও ডিমের মূল্য বৃদ্ধিতে হিমসিম খাইয়া ছাগলের তিন নাম্বার বাচ্ছার মতো খাইয়া না খাইয়া বাঁচিয়া আছি। গত সপ্তাহে আপনার সরকারের শিক্ষা উপমন্ত্রী ব্যারিষ্টার মহিবুল হাসান চৌধুরী নওফেল সমীপে ঠাণ্ডা মিয়ার গরম কথা লিখিবার পর এইবার আপনার সমীপে লিখিব বলিয়াছিলাম। এইজন্য লিখিতেছি বলিয়া রাগ করিবেন না বরং শত ব্যস্ততার পরও গরম কথাটুকু পড়িয়া দেখিবেন ও যাহা প্রয়োজন তাহা করিবেন এবং ভুল হইলে নিজ গুনে মাফও করিয়া দিবেন।

আপারে,

আপনি হইলেন, এশিয়ার লৌহমানব শ্রেষ্ঠ বাঙ্গালী ও বাঙ্গালীর জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের বড় মেয়ে এই দেশেরই পরপর তিন বারের প্রধানমন্ত্রী। বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের মতো বিশাল দলের প্রতীক নৌকাকে শক্ত হাতে হাল ধরিবার দক্ষ নেত্রী ও আওয়ামী লীগের সভাপতি । আপনার দক্ষ নেতৃত্বে দল ও দেশ চলিতেছে। দেশ ও দলের জন্য কাজ করা একই সাথে এটা আপনার মতো গোটা পৃথিবীতে কয়জনেরই বা আছে? রাজনৈতিক বিশ্লেষকেরা বলিয়া থাকেন আপনার একক সাহস ও বুদ্ধিতে নৌকা ঠিকভাবে চলিতেছে। খন্দকার মোস্তাকের দল যে  ফাদঁ ফাতিয়া বসিয়া নাই তাহা মোটেই ভুলিয়া যাইবেন না। মনে রাখিবেন, কুকুরের লেজ ১২ বছর চোঙ্গায় রাখিলেও সময় মতো বাঁকা হইয়া যায়। ১৫ আগষ্ট  ও ২১ আগষ্ট গ্রেনেড হামলা দুটো একই সুত্রে গাঁথা।  যাক, সেইসব কথা।

আপনারে,

অতি মহামারী করোনাকালে আপনি সৎ সাহস লইয়া অনেক কর্মসূচী দিয়াছেন ও বাস্তবায়ন করিয়াছেন। যদিও বিরুদ্ধবাদীরা অনেক সমালোচনা করিয়াছে। বর্তমানে পেনশন স্কীমটা লইয়াও মানুষ সমালোচনা করিতেছে। লোকেরা বলিতেছে, বীমার মতো এইটি একটি পদ্ধতিকে পেনশন হিসাবে চালাইয়া দিতেছেন । সমালোচকেরা বলিতেছে , নির্বাচনের টাকা জোগানোর জন্য এই পেনশন স্কীম চালু করিয়াছেন । বিষয়টি ডাহা মিথ্যা ও গুজব হইলেও কিছু কিছু মানুষ এই গুজব লইয়া বেঁফাস কথা বার্তা বলিতেছে। এই দেশের সচেতন লোকেরা বলিতেছে, ২০২৪ সাল থেকে পেনশন স্কীমটা চালুর ঘোষনা দিলে গুজবকারীদের গালে একটা থাপ্পর পড়িবে। নির্বাচনী ফাণ্ড সংগ্রহ বিষয়টি যে পেনশন স্কীমের সাথে সম্পর্কিত নয় তা স্পষ্ট প্রমাণিত হইবে।

আপনারে,

রাজনীতিতে এখন নীতি নাই কেন ? দূর্নীতিপরায়ন মার্কা মারা লোক  , ইয়াবা ব্যবসায়ী, আগে অন্য দল করিত এখন আওয়ামী লীগে আশ্রয় লইয়াছে, যেই দল ক্ষমতায় থাকে সেই  দল সাপোর্ট করিয়া সুবিধা আদায় করিয়া থাকে এই মানুষগুলোই এখন আওয়ামী লীগ নিয়ন্ত্রণ করিতেছে।রাজনীতির নামে হাজিরা নীতি, তোয়াজ নীতি,  ঘি, মাখন ও তেল মারা লোকজনই এখন বড় বড় পদবীধারী আওয়ামী লীগের হর্তা কর্তা।ইহাদের আশ্রয় প্রশ্রয় দিয়া অনেক এমপি মন্ত্রী এখন কোটি কোটি টাকার মালিক হইয়াছে।ইহাদের ব্যাপারে খবরা খবর নিবেন।এলাকায় ইহাদের হোমরা চোমড়া আছে বটে কিন্তু সাধারণ জনগণ নাই।অনেক এলাকায় নৌকা পাইয়াও নিবার্চনে জিতিতে না পারিবার এইটায় আসল কারণ।আজীবন দণ্ডিত যুদ্ধ অপরাধী মাওলানা দেলোয়ার হোসাইন সাঈদীর এত সমর্থক ছাত্র লীগে কীভাবে। সাঈদীর এত অনুসারী আপনার দলে ও অঙ্গ সংগঠনে পদ পদবী পাইয়া থাকে তাহা হইলে কীভাবে বুঝিব মোস্তাকেরা দলে নাই। সাতকানিয়া লোহাগাড়ায় ১১ জন ছাত্রলীগ নেতা সাঈদী কাণ্ডে বহিষ্কার হইয়াছে আরো বহুজন আছে বলিয়া শুনিতেছি ।সারাদেশেও একই দশা । ইহাদের কাহারা পদপদবী ও আশ্রয় দিয়াছিল সেই খবর লইয়া কঠোর ব্যবস্থা নিতে হইবে ।

চট্টগ্রামে জলাবদ্ধাতা প্রকল্প লইয়া মেয়র ও সিডিএ চেয়ারম্যানের মধ্যে রশি টানাটানি শুরু হইয়াছে। দুই জন একই দলের হইলেও একজন আরেক জনের উপর দোষ ছাপিয়া দিতে চাহিতেছে।এই কারণে দলের যে ক্ষতি হইতেছে বিষয়টি তাহারা বুঝিয়াও বুঝিতেছে না।তাহাদের রশি টানাটানি কাহিনী শুনিয়া খোঁদ আপনার দলের লোকেরাও বলিতেছে মেয়র হিসাবে আ জ ম নাছির ও সিডিএ’র চেয়ারম্যান হিসাবে আবদুচ ছালাম অনেক ভালোই ছিল। এর আগে মেয়র রেজাউল করিম চৌধুরীকে প্রতিমন্ত্রীর মর্যদা দেওয়ার অনুরোধ করিয়াছিলাম ।তাহাকে প্রতিমন্ত্রীর মর্যদা  দেওয়ায় রেজাউল ভক্তরা মহা খুশী হইয়াছে। কিন্তু আ জ ম নাছির উদ্দিনকে কেন প্রতিমন্ত্রীর মর্যদা দেন নাই তাহা নানান কথা বলাবলি হইতেছে।

আজ আর না। আপনার মঙ্গল ও সুস্বাস্থ্য কামনায় আপনারই  গ্রাম বাংলার অখ্যাত ঠাণ্ডা মিয়া

ইতি আপনারই বিশ্বস্ত গ্রাম বাংলার

অখ্যাত  ঠাণ্ডা মিয়া

গ্রন্থনা ম. আ. হ
আগামী সংখ্যায় বিএনপির সাধারণ সম্পাদক মীর্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর সমীপে ঠাণ্ডা মিয়ার গরম কথা (৩২১) সম্প্রচার করা হইবে।

About The Author

শেয়ার করুনঃ

Leave a Reply