ডিসেম্বর ২, ২০২১ ৪:০১ অপরাহ্ণ

৮০৯ ইউপিতে বিদ্রোহী চেয়ারম্যান প্রার্থী ১৩০০

সাম্প্রদায়িক হামলা মোকাবিলার পাশাপাশি দল নিয়েও অস্বস্তিতে রয়েছে আওয়ামী লীগ। আগামী ১১ নভেম্বর অনুষ্ঠিতব্য দ্বিতীয় ধাপের ৮৪৮ ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী চেয়ারম্যান প্রার্থী ১৩ শতাধিক। এরমধ্যে অনেকে দল মনোনীতদের চেয়ে জনপ্রিয় ও গুরুত্বপূর্ণ পদে আছেন। এদিকে দলের মধ্যে থাকা সাম্প্রদায়িক নেতাদেরও বিদায় করার উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে। কুমিল্লাসহ দেশের বিভিন্ন এলাকায় হিন্দু সম্প্রদায়ের উপাসনালয়, ঘরবাড়ি ও ব্যবসাপ্রতিষ্ঠানে হামলার ঘটনায় ফেসবুক পেজে সাম্প্রদায়িক মনোভাবের প্রমাণ পেয়ে ছাত্রলীগের ১৩ জন নেতাকে সংগঠন থেকে অব্যাহতি দেওয়া হয়েছে।

 

 

 

 

এবার ৮৪০টি ইউনিয়ন পরিষদে দল মনোনীত একক চেয়ারম্যান প্রার্থী ঘোষণা করে আওয়ামী লীগ। বাকি আটটি ইউপিতে প্রার্থিতা উন্মুক্ত রাখা হয়। গোপালগঞ্জের কাশিয়ানী উপজেলার সাতটিতে এবং রাঙ্গামাটি জেলার বরকল উপজেলার একটিতে আওয়ামী লীগ কোনো প্রার্থী দেয়নি। ইতিমধ্যে ৩১টি ইউপিতে বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় চেয়ারম্যান হওয়ার পথে রয়েছেন আওয়ামী লীগের একক প্রার্থীরা। আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় তিন জন নেতা বলেন, দলের বিদ্রোহীদের বিষয়ে আওয়ামী লীগ কঠোর অবস্থানে রয়েছে। তবে বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত হওয়ার বিষয়টিও দলে অস্বস্তি তৈরি করছে। প্রসঙ্গত, গত ২০ সেপ্টেম্বর অনুষ্ঠিত হয় ১৬০টি ইউনিয়ন পরিষদের নির্বাচন। শতাধিক ইউনিয়নে নৌকার বিরুদ্ধে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেন আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী প্রার্থী।সবটুকু জানতে ক্লিক করুন

শেয়ার করুনঃ

Leave a Reply