বাংলাদেশ, মঙ্গলবার, ১৬ই জুলাই, ২০১৯ ইং, ১লা শ্রাবণ, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ।

অযত্নে অবহেলায় শহীদ বশরুজ্জামান চত্বর দেখার কী কেউ নেই?

এ.ইউ.চৌধুরী

নতুন ব্রীজ খ্যাত কর্ণফুলী সেতুর উত্তর পাশে শহীদ বশরুজ্জামর স্বরণে নির্মাণ করা হয় শহীদ বশরুজ্জামান চত্বর। এই নামে একটি ফলকও উন্মোচন করা হয় সেতুর উত্তর পাশে। কিন্তু শহিদ বশরুজ্জামানের সম্মানে ফলক উন্মোচন করা হলেও তার যথাযত যত্ন ও পরিচর্যা নেই। স্বশরীরে গিয়ে দেখা যায় চত্বরের চতুর পাশে জমে আছে ময়লার স্তুপ। আর নাম ফলক ভরে আছে বিভিন্ন বিজ্ঞাপন সম্বলিত পোস্টার। এছাড়াও ফলকে লাগানো হয়েছে অশ্লীল ছবি সম্বলিত সিনেমার পোস্টার। কিন্তু সেতু কর্তৃপক্ষ বা প্রশাসনের নজর নেই অবহেলিত এই চত্বরের দিকে। যাদের ত্যাগে দেশ আজ মাথা উঁচু করে দাঁড়াতে সক্ষম হয়েছে তাঁদের স্মৃতি ফলকের যদি এই রূপ নাজুক পরিস্থিতি হয় তাহলে শহীদের মর্যাদা কোথায়? ব্যস্ত নগরী চট্টগ্রাম হতে আনোয়ারা,বাঁশখালী,পটিয়া,বান্দরবান ও কক্সবাজারের যাতায়াত মূলত সেতুর উত্তর পাশ থেকেই হয়ে থাকে। সেখানে রয়েছে পুলিশ প্রসাশন ও চেক পোস্ট।

একজন শহীদের মর্যাদা রক্ষা করা সকলের নৈতিক দায়িত্ব। কিন্তু দূর্ভাগ্য এইসব বিষয় প্রসাশন ও কর্তৃপক্ষের নজর কাড়ে না। এমতাবস্তায় শহীদের প্রতি যথাযত সম্মান প্রদর্শনের নিমিত্তে শহীদ বশরুজ্জামান চৌধুরী চত্বরের সংস্কার ও পরিচর্যা অপরিহার্য হয়ে পড়েছে।

 

আরো খবর

Leave a Reply