জুন ১৩, ২০২১ ১:৪৮ অপরাহ্ণ

চট্টগ্রাম স্টুডেন্ট ফোরাম এর পক্ষ থেকে ঈদে ভিন্নধর্মী আয়োজন

চট্টগ্রাম প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যায়ের চট্টগ্রামস্থ শিক্ষার্থীদের নিয়ে গঠিত সংগঠন “চট্টগ্রাম স্টুডেন্ট ফোরাম (সি এস এফ)”। চট্টগ্রামের শিক্ষার্থীদের নিয়ে একটি কার্যকর নেটওয়ার্ক গড়ে তোলা এবং বিভিন্ন ইতিবাচক কর্মকান্ডে চট্টগ্রামের শিক্ষার্থীদের সংযুক্ত করবার প্রয়াসে এই সংগঠনটি সৃষ্টি। সারাবছর বিভিন্ন সাংস্কৃতিক ও জনকল্যানমূলক কাজের পাশাপাশি প্রতিবছর মাহে রমজান মাসে এই বিশ্ববিদ্যালয়ের অসংখ্য ছাত্রছাত্রীদের নিয়ে ইফতার/মেজবানির আয়োজন করে আসছে এই ফোরাম। কিন্তু বর্তমান কোভিড পরিস্থিতির কারণে জনসমাবেশ বন্ধ থাকা সত্ত্বেও জনসেবামূলক কার্যক্রমে এগিয়ে এসেছে সংগঠনটি। অনেক অর্থনৈতিক দূর্বাস্থায় জর্জরিত এতিমখানা/মাদ্রাসার চিন্তা করে প্রজেক্ট সাদাকাহ” হাতে নেয় এই ফোরাম।এর লক্ষ্যে ফোরামের শিক্ষার্থীরা নিজেদের সামর্থ্য অনুযায়ী এগিয়ে আসে । সংগৃহীত অর্থ হতে তারা বিভিন্ন ধর্মীয় প্রতিষ্ঠানে বিভিন্নভাবে সাহায্য করে। তন্মধ্যে গুরুত্বপূর্ণ কিছু কাজ হলো – নগরীর বায়েজিদ এলাকায়  অবস্থিত “মিনহাজুল কোরআন হাফেজিয়া মাদ্রাসা ও এতিমখানায়” শিক্ষক-ছাত্রদের এক মাসের খাবারের ব্যবস্থা করে দেওয়া, যার অংশ হিসাবে প্রায় ৪০ জন শিক্ষার্থীর জন্য বহুবিধ নিত্যপ্রয়োজনীয় খাদ্যদ্রব্য সরবরাহ করা হয়। খাদ্যদ্রব্য মাদ্রাসা কর্তৃপক্ষের হাতে তুলে দেয়ার সময় ফোরামের সভাপতি সাগরময় আচার্য, সাধারণ-সম্পাদক আবরার আহমেদ চৌধুরী, সহ-সভাপতি তাকী তাজওয়ার ও নাজমুল ইসলাম, যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক অয়ন চক্রবর্তী,অর্থ-সম্পাদক পিয়াল বড়ুয়া এবং যুগ্ম অর্থ-সম্পাদক সিফাত সোলায়মান উপস্থিত ছিলেন। মাদ্রাসাটির আরেকটি শাখা সীতাকুন্ডে অবস্থিত, যেটির জন্যও সহায়তা প্রদান করা হয়। পাশাপাশি মাদ্রাসা শিক্ষার্থীদের এক বছরের পড়ালেখার সামগ্রী হিসাবে খাতা কলম ও অন্যান্য সহায়তা প্রদান করা হয়। পরবর্তীতে ফোরামের সদস্যরা মাদ্রাসা শিক্ষার্থীদের সাথে ইফতার করেন একসাথে। এছাড়াও আরও বেশ কিছু মসজিদ ও মাদ্রাসায় পবিত্র কোরআন শরীফ বিতরণ করা হয়। টাইগারপাস রেলওয়ে কলোনিস্থ ‘স্বপ্নবাগিচা বিদ্যানিকেতন’-এর পক্ষ থেকে ৯০জন সুবিধাবঞ্চিত শিশু ও তার পরিবারদের সাহায্যার্থে চলমান ‘ঈদ আয়োজন’ এও সাহায্যের হাত বাড়িয়েছে ফোরামের সদস্যরা। এর পাশাপাশি হালিশহরস্থ মাইজাপাড়ায় নির্মানাধীন ‘ইমাম-এ-আজম জামে মসজিদ’ এর চলমান নির্মাণ কাজে সাহায্যের অনুদান দেওয়া। সর্বমোট প্রায় ১ লক্ষ টাকার মত অর্থসাহায্য তাদের হাতে এসে পৌছায় এবং এই অর্থসাহায্যটি তারা যথাযথ ব্যবস্থাপনায় ঈদের আগেই পৌছে দিয়েছে সংশ্লিষ্ট সংগঠনগুলির কাছে।

শেয়ার করুনঃ

Leave a Reply