মে ৯, ২০২১ ৮:২০ পূর্বাহ্ণ

শেষ হলো আরব সাগরে ফ্রান্স-ভারতের যৌথ নৌ মহড়া

বিগত কয়েক বছর ধরে প্রতিনিয়ত আয়োজন করা ‘ভারুনা’ মহড়া ভারত এবং ফ্রান্সের প্রতিরক্ষা খাতে এবং আন্তঃবাহিনী সম্পর্ক উন্নয়নে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখছে।

সম্প্রতি আরব সাগরে অনুষ্ঠিত হওয়া ভারত এবং ফ্রান্সের নৌবাহিনীর মধ্যকার তিনদিন ব্যাপী ‘ভারুনা-২০২১’ মহড়া শেষ হয়েছে। ২৭ এপ্রিল, ২০২১, মঙ্গলবার, উক্ত দ্বিপক্ষীয় মহড়া আয়োজনের সমাপ্তি ঘটে।

সাম্প্রতিককালে ভারত এবং ফ্রান্স নিজেদের মধ্যকার ক্রমবর্ধমান কূটনৈতিক সম্পর্কের উন্নতির ভিত মজবুতকরণে সামরিক ক্ষেত্রে বেশ কয়েকটি যৌথ মহড়ায় অংশ নেয়। তারই ধারাবাহিকতায় সম্প্রতি ২৫-২৭ এপ্রিল আরব সাগরে তিনদিন ব্যাপী ‘ভারুনা-২০২১’ শীর্ষক এক যৌথ মহড়ায় অংশ নিয়েছিলো ভারতীয় এবং ফরাসী নৌ বাহিনী।

প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় সূত্রে জানা গিয়েছে, সমুদ্রে অবস্থানরত অবস্থায় বিমান প্রতিরক্ষা, সাবমেরিন প্রতিরোধী কৌশল, শত্রুর আক্রমণ ঠেকিয়ে দেয়া, ক্রস ডেক হেলিকপ্টার অবতরণ সহ সামুদ্রিক সুরক্ষা কার্যক্রমের উচ্চমানের কিছু মহড়ায় অংশ নিয়েছিলো দেশ দুটো। মূলত পারস্পরিক সহায়তার মাধ্যমে সমুদ্র সীমায় শান্তি প্রতিষ্ঠান এবং নিজেদের রণকৌশলকে আরও এক ধাপ শানিয়ে নিতে এই আয়োজন।

জানা গিয়েছে ভারতীয় নৌবাহিনীর পক্ষ থেকে উক্ত ভারুনা-২০২১ মহড়ায়- মিসাইল বিধ্বংসী আইএনএস কলকাতা, রণতরী আইএনএস তর্কশ এবং আইএনএস তালোয়ার, ফ্লিট সাপোর্ট জাহাজ আইএনএস দীপক, সিভিং ৪২বি এবং চেতক ইন্টিগ্রাল হেলিকপ্টার, একটি কাল্ভারি শ্রেণীয় সাবমেরিন, পি৮আই লং রেঞ্জ মেরিটাইম পেট্রোল এয়ারক্রাফট অংশ নিয়েছিলো।
অন্যদিকে ফরাসী নৌবাহিনীর পক্ষে রাফায়েল এম ফাইটার জেট সহ এয়ারক্রাফট ক্যারিয়ার চার্লস-ডি-গল, ই২সি মডেলের হক আই এয়ারক্রাফট, কেমেন এম এবং ডফিন হেলিকপ্টার, বিধ্বংসী রণতরী শেভালিয়ার পল ছাড়াও কিছু হেলিকপ্টার এবং জাহাজ অংশ মহড়াটিতে অংশ নিয়েছিলো।

উক্ত যৌথ আয়োজনটি দুই বাহিনীর মধ্যকার আন্তঃসম্পর্ক বৃদ্ধি, পারস্পরিক সহায়তা এবং বাহিনী সদস্যদের আত্মবিশ্বাস বৃদ্ধিতে কাজে আসবে বলে বিশেষজ্ঞ মহল আশা করছেন।

তবে মহড়াটি শেষ হলেও ২৮ এপ্রিল থেকে ১ মে অবধি ভারতীয় রণতরী তর্কশ ফরাসী নৌবাহিনীর সাথে মহড়া চালিয়ে যাবে এবং বিভিন্ন প্রতিরক্ষা প্রশিক্ষণে অংশ নেবে।

শেয়ার করুনঃ

Leave a Reply