বাংলাদেশ, সোমবার, ১লা মার্চ, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ, ১৬ই ফাল্গুন, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

ইসহাক ডিপুর আশে – পাশে জুয়া ও মাদক কেনা বেঁচা বেড়ে গেছে রোধ করবে কে?

শাহীন আহমেদ

ক্ষতিকর মাদক নেশাই তলিয়ে যেতে বসেছে এ দেশের যুবসমাজ। মাদকাসক্তের সংখ্যা দিন দিন বৃদ্ধি পাচ্ছে। চিন্তিত হয়ে পড়েছেন অভিভাবকরা, কিন্তু পাচ্ছেনা খুঁজে সমাধান। মাদক পাচার এবং মাদকাসক্তির হার কমানোর জন্য, সীমিত আকারে চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছেন সরকার। সরকারকে যুগোপযোগী সহায়তা দিচ্ছে জাতিসংঘ। তবে এ ব্যাপারে অগ্রাসন ঠেকানোর জন্য প্রয়োজন সকলের সম্মিলিত উদ্যোগ, মাদকের এমনই এক আস্তানা তৈরি হয়েছে, চট্টগ্রাম নগরীর  ২৬ নম্বর ওয়ার্ড হালিশহর এলাকায়, ইসাক দিপুর পাশে এক নির্জন এলাকা রেললাইনের পাশে, অনেক পুরাতন রেল বগি পড়ে আছে এখানে, সেই রেল বগি কে আস্তানা হিসেবে ব্যবহার করেছে কিছু অপরাধীরা। সেখানে সাপ্তাহিক পূর্ববাংলা ও banglapostbd.com অনুসন্ধানে গেলে বেরিয়ে আসে আরো অনেক কিছু তথ্য।

সেখানে দিনের বেলা খেলা করছিল ৩ ছেলে অষ্টম শ্রেণীর ছাত্র শিহাবকে প্রশ্ন করলে এই জায়গার বিষয়, তখন সে দেখিয়ে দেয়, যে ভিতরে একটু যান তাহলে দেখতে পারবেন সবকিছু, ভিতরে গিয়ে দেখা গেল অনেক চিত্র, তার মধ্যে প্রথম হল নেশা সেবন করা, দ্বিতীয় হল জুয়া খেলা, এ ব্যাপারে এলাকার কিছু স্থানীয় লোক কে প্রশ্ন করলে, জনৈক মামুন বলেন এখানে সন্ধ্যার পরে চলে অসামাজিক কার্যকলাপ, এবং ইয়াবা হিরোইন, গাঁজা সহ নানান ধরনের অপরাধ। এবং কোন লক্ষ্যে একা পেলে তার সবকিছু হাতে নেয় ওই অপরাধীরা। তখন এনাকে বললাম এরা কারা আপনি চিনেন নাকি, মামুন সাহেব ভয়ে ভয়ে বললেন সবাইকে চিনি না, তবে ওদের লিডারের নাম নজরুল, তার ইশারায় এইসব হয়। সেখানে পেলাম একজন রেলওয়ে কর্মকর্তাকে, তাহাকে এ ব্যাপারে প্রশ্ন করলে তিনি সবকিছু জোর কন্ঠে অস্বীকার করেন, এবং তাড়াহুড়া করে এখান থেকে চলে যান। সেখানে ছিল আর একজন স্থানীয় বাসিন্দা সালাম সাহেব, উনিও বলেন এই রেলওয়ে নিরাপত্তাকর্মীদের আশকারায় এইসব হয়। সালাম সাহেব আরো বলেন আমি একদিন এই বিষয়ে প্রতিবাদ করায়, আমাকে অনেক মূল্য দিতে হয়েছে, এখানে পাশেই আমি চাকরি করতাম আমার চাকরিটা কেড়ে নিয়েছে, ওই অপরাধীরা। তিনি আরো বলেন নজরুল ওদের গডফাদার। তারপর এখানে আরেকজন নিরাপত্তাকর্মীকে পেলাম, তিনি এও বলেন আমি কিছু জানি না এ ব্যাপারে, কিন্তু পাশে গিয়ে দেখা যায় খন্ড খন্ড গ্রুপে চলছে নেশা সেবন। এ ব্যাপারে খুব শীঘ্রই প্রশাসনের দৃষ্টি কামনা করছি।

শেয়ার করুনঃ

আরো খবর

Leave a Reply