বাংলাদেশ, শুক্রবার, ২৬শে ফেব্রুয়ারি, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ, ১৩ই ফাল্গুন, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

মিঠাপুকুরে চাঁদাবাজির সময় ভুয়া ডিবি আটক

রংপুরের মিঠাপুকুরে ডিবি পুলিশ পরিচয়ে চাঁদাবাজি করতে গিয়ে এক প্রতারককে আটক করে পুলিশে দিয়েছে স্থানীয় জনতা। শনিবার ( ২৩ জানুয়ারি) ওই প্রতারককে রংপুর কেন্দ্রীয় কারাগারে পাঠিয়েছে পুলিশ।

ডিবি পুলিশ পরিচয়ে আটক ওই প্রতারকের নাম মো. লিটন মিয়া (৪০)। সে উপজেলার বালারহাটের মৃত. ওয়াহেদ আলীর ছেলে। এসময় তার ২ সহযোগী পালিয়ে গেছে।

পুলিশ ও এলাকাবাসি সূত্রে জানা গেছে, লিটন মিয়া দীর্ঘদিন ধরে উপজেলার বিভিন্ন এলাকায় কখনও সিআইডি, কখনও ডিবি পুলিশের একজন উচ্চ পর্যায়ের কর্মকর্তা পরিচয় দিয়ে মানুষের কাছে চাঁদা দাবি করতো।শনিবার সকালে ২ জন সহযোগীকে সাথে নিয়ে মোটরসাইকেল যোগে উপজেলার গোপালপুর ইউনিয়নের শাল্টিপাড়া গ্রামে যায়। সেখানে ভূট্টোর বাড়িতে গিয়ে ডিবির কর্মকর্তা পরিচয়ে চাঁদা চায়। এসময় ভূট্টোর সন্দেহ হলে আশপাশের লোকজনকে বিষয়টি জানান।

পরে, স্থানীয় জনতা লিটনকে আটক করে। এসময় অবস্থা বেগতিক দেখে তার অন্য ২ সহযোগী পালিয়ে যায়। পালিয়ে যাওয়া একজনের নাম দেলোয়ার হোসেন। সে শঠিবাড়ী এলাকার দুর্গাপুর গ্রামের বাসিন্দা বলে জানা গেছে। স্থানীয় লোকজন আটক লিটনকে গোপালপুর ইউনিয়ন পরিষদে নিয়ে যায়। পরে তাকে পুলিশে সোপর্দ করা হয়েছে।

ইউপি চেয়ারম্যান আমিরুল ইসলাম পাইকাড় দিলীপ বলেন, ‘লিটন মিয়া ও তার সহযোগীরা দীর্ঘদিন ধরে এলাকায় ডিবি ও সিআইডি পুলিশ পরিচয়ে মানুষের কাছে চাঁদাদাবি করতো। মূলত তারা প্রতারক। তাদের খপ্পরে পড়ে অনেকেই সর্বশান্ত হয়েছে।’

মিঠাপুকুর থানার ওসি আমিরুজ্জামান বলেন, ‘ডিবি পুলিশ পরিচয়দানকারী একজন প্রতারককে আটক করা হয়েছে। আরও তথ্য জানতে তাকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে। এ ঘটনায় একটি মামলা হয়েছে।’

শেয়ার করুনঃ

আরো খবর

Leave a Reply