মার্চ ৭, ২০২১ ১০:৪৫ পূর্বাহ্ণ

আওয়ামীলীগের কাউন্সিলর প্রার্থী সালেহ আহমদ চৌধুরীর পুত্র কর্তৃক বঙ্গবন্ধু ও প্রধানমন্ত্রীর ব্যানারকে অবমাননার অভিযোগ 

নজরুল ইসলাম চৌধুরী 

চট্টগ্রাম মহানগরীর ৪১নং ওয়ার্ড আওয়ামীলীগের মনোনীত প্রার্থী ও সাবেক ৩ বারের কাউন্সিলর সালেহ আহমদ চৌধুরীর ছেলে ওয়াহিদ চৌধুরী সাগর পাড়ে প্রধানমন্ত্রী ও বঙ্গবন্ধুর ছবি সম্বলিত ব্যানারের উপর পা রেখে ছবি তোলার অভিযোগ পাওয়া গেছে। জানা যায়, একটি প্রোগ্রাম শেষে বন্ধু বান্ধব মিলে সাগর পাড়ে হাওয়া খেতে যাওয়ার কিছুক্ষণ পর সাবেক কাউন্সিলরের বেঁকে যাওয়া পুত্র ওয়াহিদ চৌধুরী এই ছবি তুলেছেন। বঙ্গবন্ধু ও প্রধানমন্ত্রীর ছবি সম্বলিত ব্যানারকে অবমাননা করে ছবি তোলার কারনে এলাকায় সাধারণ জনগন ও আওয়ামীলীগের অঙ্গ সংগঠনের মাঝে টান টান উত্তেজনা বিরাজ করছে। পতেঙ্গা এলাকায় অলি গলি চায়ের দোকানসহ বিভিন্ন স্কুল কলেজের শিক্ষার্থী ও সুশীল সমাজের মধ্যে এ নিয়ে চলছে আলোচনা ও সমালোচনার ঝড়।

পতেঙ্গায় এক ব্যবসায়ী নাম প্রকাশ না করার শর্তে জানায়, এরা কি প্রকৃত আওয়ামীলীগ নাকি স্বাধীনতা বিরোধী চক্রের সদস্য ? স্বাধীনতার শক্তির মুখোশের আড়ালে থেকে ক্ষমতার স্বাদ ভোগ করে কিনা তা আমাদের প্রশ্ন। তিনি আরো জানান, পিতা ছালেহ আহমদ চৌধুরী ক্ষমতার অপব্যবহার করে এলাকায় চাঁদাবাজি, টেন্ডার বাজিসহ জলে ও স্থলে যত রকমের বৈধ অবৈধ কারবার আছে ওয়াহিদ চৌধুরীর হাতের ছোয়া পড়েনা এমন কিছুই বাকি নেই। সী বীচ এয়ারপোর্ট রোডে অবৈধ টম টম থেকে দৈনিক ও মাসিক চাঁদা আসে কয়েক লক্ষ টাকা, চোরা তেল তো আছেই। এয়ারপোর্ট ও সী বীচ রোডে এই অবৈধ গাড়ী চলাচলের কমিটির একটি গুরু দায়িত্ব তার উপর ন্যস্ত রয়েছে। তার আচার আচরণ এবং অবৈধ কর্মকান্ড ও চাঁদাবাজীর কারণে ৪১নং ওয়ার্ড দলীয় নেতা কর্মীদের মাঝে বিরূপ প্রতিক্রিয়া সৃষ্টি ও বিভ্রান্তিতে পড়েছে। বঙ্গবন্ধু ও প্রধানন্ত্রীর ছবির ব্যানারের উপর কিভাবে পা দিয়ে ছবিতে পোজ দিল তা কিছুতেই এলাকাবাসী ও সুশীল সমাজ মেনে নিতে পারছেনা এবং পুরো পতেঙ্গা এলাকা এখন তেলে বেগুনে অবস্থা । সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা যায়, ওয়াহিদ চৌধুরী ও তার পিতা সালেহ আহমদ চৌধুরী মিলে ছবি তোলার বিষয়টি যাতে বেশীর দুর না যায় সেজন্য কোমর বেঁধে মাঠে নেমেছেন। যোগাযোগ করেছেন এলাকার কিছু মিডিয়া কর্মীর সাথে। কিভাবে বিষয়টি ধামাচাপা দেওয়া যায়।

এ বিষয়ে ওয়াহিদ চৌধুরীর সাথে মুঠোফোনে যোগাযোগ করলে তিনি জানান, বিষয়টি আসলে ভূল বশতঃ হয়েছে।

 

শেয়ার করুনঃ

Leave a Reply