সেপ্টেম্বর ২৪, ২০২১ ৬:১৪ অপরাহ্ণ

প্রেমিক প্রেমিকা সেজে টার্গেট করা ব্যাক্তিকে জখম করে সর্বস্ব ছিনতাই; অস্ত্রসহ চক্রের ১৩ সদস্য আটক

নগরীর বিভিন্ন স্থানে প্রেমিক প্রেমিকা সেজে অবস্থান করে পরে সুযোগ বুঝে ব্লেড ও ছুরির ভয় দেখিয়ে টার্গেট করা ব্যাক্তির সর্বস্ব ছিনিয়ে নেয়া তাদের কাজ। সেই সংঘবদ্ধ ছিনতাইকারী চক্রের ১৩ সদস্যকে আটক করেছে চট্টগ্রাম মেট্রোপলিটন পুলিশের কোতোয়ালী থানা পুলিশ। এসময় গ্রেফতারদের কাছ থেকে ১৪টি মোবাইল ফোন, ৩টি কাটার ব্লেড ও ৬টি ধারালো ছোড়া উদ্ধার করা হয়। গতকাল মঙ্গলবার (১৭ নভেম্বর) রাতভর নগরীর বিভিন্ন এলাকায় অভিযান চালিয়ে তাদেরকে গ্রেফতার করা হয়েছে বলে জানান কোতোয়ালী থানার এসআই মুমিনুল হাসান । কোতোয়ালী থানা

 

 

সূত্রে জানা যায়, অভিনব কায়দায় প্রেমিক প্রেমিকা সেজে অবস্থান নিয়ে সুযোগ বুঝে পথচারী ও টার্গেটকরা ব্যাক্তির সর্বস্ব ছিনিয়ে নেয়ার সাথে জড়িত ৩টি গ্রুপের ১৩ জন নারী পুরুষকে গ্রেফতার করা হয়। গ্রেপ্তারকৃতরা হলেন- রাকিবুল হাসান রাকিব (২৫), তার সহযোগী রুপা প্রকাশ নিপা (২০) ও মো. আলাউদ্দিন। অপর একটি গ্রপের মো. রুবেল (২৮) ও তার স্ত্রী ফারজানা বেগম (২৬), সহযোগী রাজু প্রকাশ সুমন (২৩), মো. আলামিন (২৮) ও আব্দুল নাইম (২০)। এছাড়া অপর একটি কিশোর ছিনতাইকারী চক্রের পাঁচ সদস্যকে গ্রেফতার করা হয়েছে। গ্রেপ্তারকৃতরা হলেন- শফিক (১৬), মো. দেলোয়ার (১৭), মো. উজ্জল (১৩), মো. ইসহাক (১৯) ও অপু প্রকাশ হৃদয় (১৪)। এসময় গ্রেফতারদের কাছ থেকে ১৪টি মোবাইল ফোন, ৩টি কাটার ব্লেড ও ৬টি ধারালো ছোড়া উদ্ধার করা হয়। আজ বুধবার ১৮ নভেম্বর কোতোয়ালী থানায় আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে জানান, গত ১৬ নভেম্বর সন্ধ্যায় নগরের গনি বেকারি মোড়ে ছিনতাইয়ের শিকার হন অরবিন্দু দত্ত নামে এক ব্যক্তি। এ সময় ছিনতাইকারীরা তাকে ছুরিকাঘাত করে পালিয়ে যায়।

গতকাল রাত ৮টার দিকে নগরের চকবাজারের সার্সন রোড দিয়ে যাওয়ার সময় মো. সেলিম নামে আরও এক ব্যক্তি ছিনতাইয়ের শিকার হন। এ ঘটনাতেও ভুক্তভোগীর বুক, পেট ও উরুতে ধারালো ছোরা দিয়ে মারাত্মক জঘম করে ছিনতাইকারীরা। ছিনতাইকারী চক্রটি প্রেমিক-প্রেমিকা পরিচয়ে সিএনজি অটোরিকশা ভাড়া করেন। এরপর ঘুরে বেড়ানোর ছলে পথচারীদের টার্গেট করে । একপর্যায়ে অটোরিকশা দাঁড় করিয়ে টার্গেটকৃতকে ছুরিকাঘাত করে তার সর্বস্ব কেড়ে নিয়ে পালিয়ে যায়। ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোহাম্মদ মহসীন বলেন, দুটি ঘটনায় কোতোয়ালী থানায় অভিযোগ করা হলে ঘটনা তদন্তে নামে পুলিশ। তথ্য-প্রযক্তির সাহায্যে ছিনতাই হওয়া মোবাইল ফোন ক্রয়কারী শনাক্তের পর প্রথমে নগরের সিরাজউদ্দৌলা রোড থেকে রুবেল ও তার স্ত্রী ফারজানা বেগমকে এবং তাদের দলের আরও তিন সদস্যকে গ্রেফতার করা হয়। পরে আন্দরকিল্লা রাজাপুকুর লেন থেকে পাঁচ কিশোর ছিনতাকারীকে গ্রেফতার করা হয়। তিনি বলেন, তাদের গ্রেফতারের পরও গতকাল রাত ৮টার দিকে নগরের চকবাজারের সার্সন রোডে ছিনতাইয়ের শিকার হন মো. সেলিম। এ ঘটনায় বিচলিত হয়ে পড়ি। পরে আবারও তথ্যপ্রযুক্তির সাহায্যে রাত ৮টার দিকে নগরীর রেল স্টেশন রোড থেকে দুই ছিনতাইকারী রাকিব ও নিপাকে গ্রেফতার করা হয়। তিনি আরও বলেন, ছিনতাইকারী চক্রের আরও কেউ আছে কিনা খতিয়ে দেখা হচ্ছে। ছিনতাইকারী চক্রের সবাইকে গ্রেপ্তারে অভিযান পরিচালনার পাশাপাশি টহল জোরদার করা হবে

শেয়ার করুনঃ

Leave a Reply