জানুয়ারি ২৫, ২০২২ ১:১৪ পূর্বাহ্ণ

বৈরুতের বন্দরে ভয়াবহ আগুন

Smoke rises over Beirut's port area as seen from Sin-el-fil, Lebanon September 10, 2020. REUTERS/Cynthia Karam

এক মাস আগের ভয়াবহ বিস্ফোরণের ক্ষত না শুকাতেই আবারও বড় ধরনের অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা ঘটেছে লেবাননের রাজধানী বৈরুতে। বৃহস্পতিবার বৈরুতের বন্দরে তেল এবং টায়ারের একটি গুদামে অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা ঘটে বলে লেবাননের সেনাবাহিনী নিশ্চিত করেছে।

এর আগে গত ৪ আগস্ট বৈরুতের বন্দরের কাছে একটি রাসায়নিক গুদামে ভয়াবহ বিস্ফোরণ ও অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা ঘটে। বৈরুতকে ছিন্নভিন্ন করে দেয়া সেই বিস্ফোরণের ক্ষতও এখনও বয়ে বেড়াচ্ছেন বাসিন্দারা।

বিস্ফোরণের ধাক্কায় টালমাটাল বৈরুতে নতুন করে সবকিছু শুরু করার চেষ্টা চলছে। এর মাঝে বৃহস্পতিবারের এ অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা ঘটে। ব্রিটিশ বার্তাসংস্থা রয়টার্স বলছে, বৃহস্পতিবার বৈরুত বন্দরের একটি তেল ও টায়ারের গুদামে ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ড ছড়িয়ে পড়েছে।

বন্দরের শুল্কমুক্ত অঞ্চলে আগুনের সূত্রপাত। এতে শহরের আকাশে বিশাল কালো ধোঁয়ার কুণ্ডলি দেখা যায়। আগুনের কারণ তাৎক্ষণিকভাবে নিশ্চিত হওয়া যায়নি বলে জানিয়েছে দেশটির সেনাবাহিনী।

টেলিভিশনে প্রচারিত ফুটেজে দেখা যায়, বন্দরে অগ্নিনির্বাপণ কর্মীরা আগুন নেভানোর চেষ্টা করছেন।

গত ৪ আগস্ট এই বন্দরের একটি গুদামে ভয়াবহ বিস্ফোরণে লন্ডভন্ড হয়ে যায় বৈরুত। এতে অন্তত ১৯০ জনের প্রাণহানি ও আরও অনেকে আহত হন। বন্দরে কয়েক বছর ধরে অবৈধভাবে মজুত করে রাখা অ্যামোনিয়াম নাইট্রেটের গুদামে বিস্ফোরণ ঘটলে হতাহতের ঘটনা ঘটে।

বৈরুতের বিস্ফোরণে ৩০০ কোটি মার্কিন ডলারের ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে বলে ধারণা করছেন দেশটির সরকারি কর্মকর্তারা। এছাড়া দেশটির সামগ্রিক অর্থনীতি এক হাজার ৫০০ কোটি ডলারের ক্ষতির শিকার হতে পারে বলে সতর্ক করেন তারা।

পরে ১০ আগস্ট দেশটিতে গণবিক্ষোভের মুখে মন্ত্রিসভাসহ পদত্যাগের ঘোষণা দেন লেবাননের প্রধানমন্ত্রী হাসান দিয়াব।সবটুকু পড়তে ক্লিক করুন

শেয়ার করুনঃ

Leave a Reply