বাংলাদেশ, মঙ্গলবার, ২৯শে সেপ্টেম্বর, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ, ১৪ই আশ্বিন, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

আপোষহীন নেতৃত্বের কারনেই খালেদা জিয়া দেশনেত্রী থেকে দেশমাতা : ডাঃ ইরান

স্বৈরাচার এরশাদ থেকে শেখ হাসিনার দমন পীড়ন মামলা গ্রেফতার নির্যাতনেও ক্ষমতা বা পরিবারের জন্য কখনো আপোষ করেননি বেগম খালেদা জিয়া মন্তব্য করে বাংলাদেশ লেবার পার্টির চেয়ারম্যান ডাঃ মোস্তাফিজুর রহমান ইরান বলেছেন, বেগম জিয়া দেশপ্রেমিক শক্তির ঐক্যের প্রতিক। আপোষহীন নেতৃত্বের কারনেই খালেদা জিয়া আজ দেশনেত্রী থেকে দেশমাতা উপাধীতে সিক্ত হয়েছেন। ২০০৮ সালে মঈন-ফখরুদ্দিনের জরুরী সরকার অপকর্মের দায়মুক্তির বিনিময়ে ক্ষমতায় যাওয়ার প্রস্তাব দিলেও তা তিনি প্রতাখ্যান করেন। শেখ হাসিনা দায়মুক্তির বিনিময়ে ২০০৯ সালে ক্ষমতায় আরোহন করেন। খালেদা জিয়া স্বাধীনতা সার্বভৌমত্ব রাষ্ট্রীয় অখন্ডতা সুরক্ষা, ভোটাধিকার-গনতন্ত্র ও মতপ্রকাশের স্বাধীনতা প্রতিষ্ঠার সাংগ্রামে প্রেরনার বাতিঘর।

তিনি বলেন, আওয়ামী ফ্যাসীবাদী শক্তি জিয়া পরিবার ও জাতীয়তাবাদী শক্তি নির্মুল করতেই মঈন-ফখরউদ্দিনের সাথে আতাত করে ক্ষমতা দখল করেছে। শেখ হাসিনা বা আওয়ামী লীগ কখনোই জনগনের ভোটে ক্ষমতায় যেতে পারেনি তাই দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়াকে ক্ষমতায় যেতে দেয়নি, বেগম জিয়াকে মঈনুল রোডের বাড়ী থেকে উচ্ছেদ করেছে। জরুরী সরকারের নির্যাতনের মাধ্যমে কনিষ্ঠপুত্র কোকেকে হত্যা করেছে, তারেক রহমানকে মিথ্যা মামলা দিয়ে দেশান্তরীন করেছে। তিনি এই ফ্যাসিস্ট স্বৈরাচারী সরকারের চক্রান্তের বেড়াজালে আবদ্ধ। তাকে রাজনীতি ও জনগন থেকে দুরে রাখা হয়েছে। তিনি শুধু একজন সাবেক প্রধানমন্ত্রী নন, তিনি গণতান্ত্রিক আন্দোলনের অবিসাংবাদিত মহানায়ক। তিনি সারা জীবন গণতন্ত্রের জন্য সংগ্রাম করেছেন। দীর্ঘ নয় বছর গণতন্ত্রের জন্য সংগ্রাম করে জনগণকে সাথে নিয়ে স্বৈরাচার এরশাদ সরকারকে হটিয়েছেন।

তিনি আজ (শনিবার) দুপুরে দলীয় কার্যালয়ে ২০ দলীয় জোটনেত্রী বেগম খালেদা জিয়ার ৭৬ তম জন্মদিনে সুস্থ্যতা ও দির্ঘায়ু কামনায় দোয়া মাহফিলে সভাপতির বক্তব্যে একথা বলেন।

লেবার পার্টির চেয়ারম্যান ডাঃ মোস্তাফিজুর রহমান ইরানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন লেবার পার্টির সিনিয়র ভাইস চেয়ারম্যান ইঞ্জিনিয়ার ফরিদ উদ্দিন, সাম্যবাদী দলের সাধারন সম্পাদক কমরেড সৈয়দ নুরুল ইসলাম, লেবার পার্টি ঢাকা দক্ষিন সভাপতি মাওলানা আনোয়ার হোসেন, সাধারন সম্পাদক হুমাউন কবীর, ধর্ম বিষয়ক সম্পাদক মাওলানা তরিকুল ইসলাম সাদী, কেন্দ্রীয় নেতা মাওলানা জাকির হোসেন,ছাত্রমিশন সভাপতি সৈয়দ মোঃ মিলন, সাধারন সম্পাদক শরিফুল ইসলাম, যুবমিশন সদস্য সচিব সৈকত চৌধুরী, ছাত্রমিশন অর্থসম্পাদক সাইফুল ইসলাম ও প্রচার সম্পাদক হাফিজুর রহমান রিফাত প্রমুখ।
সভায় বেগম জিয়া সুস্বাস্থ্য ও দির্ঘায়ু কামনা করে বিশেষ দোয়া ও মোনাজাত করা হয়।

শেয়ার করুনঃ

আরো খবর

Leave a Reply