বাংলাদেশ, শুক্রবার, ২৭শে নভেম্বর, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ, ১২ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

মার্চ মাস থেকে যদি মাস্ক পরিধান বাধ্যতামূলক করা হতো, করোনা পরিস্থিতি আজ এই পর্যায়ে যেত না – ডা. শাহাদাত হোসেন

চট্টগ্রাম মহানগর বিএনপির সভাপতি ও বিএনপির মেয়র প্রার্থী ডা. শাহাদাত হোসেন বলেছেন. মার্চ মাস থেকে যদি মাস্ক পরিধান বাধ্যতামূলক করা হতো, করোনা পরিস্থিতি আজ এই ভয়াবহ পর্যায়ে যেত না। ১৮ মার্চ থেকে আমরাই প্রথম গণ সচেতনামূলক মাস্ক পরিধানের কর্মসূচি শুরু করেছিলাম। তখন থেকে এখনো পর্যন্ত বিএনপির গণসচেতনামূলক মাস্ক, হ্যান্ড স্যানিটাইজার বিতরণ কর্মসূচিসহ বিভিন্ন সচেতনামূলক কর্মসূচি পালন করে আসছে। কিন্তু সরকার ৪ মাস পরে এসে মাস্ক পরিধানের উপর বাধ্যবাধকতা ও আইন প্রয়োগ করে। সরকার যখন করোনা ভাইরেসের কারণে লকডাউন ঘোষণা দিয়েছিল যদি তখন থেকেই মাস্ক বাধ্যতামূলক হিসেবে ঘোষণা দিত এবং না পড়লে জরিমানা আরোপ করে আইন প্রয়োগ করত তাহলে আজ “করোনা পরিস্থিতি” এই ভয়াবহতার পর্যায়ে যেত না। আমাদের পার্শ্ববতী দেশ থাইল্যান্ত ও ভুটান প্রথম থেকেই তারা করোনা টেষ্ট সহ করোনা সচেতনামূলক কার্যকরী পদক্ষেপের নিয়েছিল কিন্তু আমাদের দেশের বর্তমান সরকার ও সরকার দলীয় লোকজন করোনাকে পুঁজি করে করোনা কালীন সময়ে জনগণের নামে প্রকল্পের বরাদ্দকৃত শত শত কোটি টাকা ও ত্রাণ লুটপাট করেছে।

ডা. শাহাদাত হোসেন আরও বলেন, চট্টগ্রামে বর্তমানে ১৪ হাজার করোনা আক্রান্ত রোগী রয়েছে। আর করোনা পরীক্ষা ছাড়া ও করোনা উপসর্গ নিয়ে হাজার হাজার রোগী পথে ঘাটে ঘুরে বেড়াচ্ছে। সরকার চট্টগ্রামের দশটি ওয়ার্ড গুলোকে ও জোনিং এর আওতায় এনেছে। অবিলম্বে অন্যান্য ওয়ার্ড গুলোকেও জোনিং এর আওতায় আনতে হবে। তিনি আজ ২৪ জুলাই, শুক্রবার, বাদে জমুা আমিরবাগ, বাদশা মিয়া রোড, গোল পাহাড় এলাকায় চট্টগ্রাম মহানগর ছাত্রদলের উদ্যোগে মুসল্লী ও সাধারণ জনগনের মাঝে মাক্স বিতরণকালে এ কথা বলেন। এ সময় উপস্থিত ছিলেন, চট্টগ্রাম মহানগর ছাত্রদল সভাপতি গাজী মোহাম্মদ সিরাজ উল্লাহ। সহ-সভাপতি জসিম উদ্দীন চৌধুরী, জিয়াউর রহমান জিয়া, নগর ছাত্রদল নেতা মহসিন কাবির আপেল, আলিফ উদ্দিন রুবেল, আবু বক্কর সিকদার, শফিকুর রহমান স্বপন, আব্দুল্লাহ আল সোনামানিক, জাফরুল হাসান রানা, শহীদুজ্জামান শহীদ, শফিউল আলম শফি, সানিয়াত আমিন জিসান, মামুন খান, আলাউদ্দিন, মোহাম্মদ আনোয়ার, আমির হোসেন মামুন প্রমুখ নেতৃবৃন্দ।

শেয়ার করুনঃ

আরো খবর

Leave a Reply