বাংলাদেশ, মঙ্গলবার, ৪ঠা আগস্ট, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ, ২০শে শ্রাবণ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

জেলা প্রশাসন ও পৌরসভার জরুরী বৈঠক খাগড়াছড়িতে টানা বর্ষণে পাহাড় ধসের শঙ্কা : নিম্নাঞ্চল প্লাবিত

 

শংকর চৌধুরী,খাগড়াছড়ি

খাগড়াছড়িতে টানা বর্ষণে পাহাড় ধ্বসের শঙ্কা দেখা দিয়েছে। এছাড়া টানা বর্ষণে পাহাড়ী ঢলে জেলা শহরের বেশ কয়েকটি এলাকাসহ পানছড়ি, দীঘিনালা, মহালছড়ি উপজেলার নিম্নাঞ্চল প্লাবিত হয়েছে। বর্ষণ অব্যাহত থাকায় বারছে চেঙ্গী ও মাইন নদীর পানি, সেই সাথে বারছে পাহাড় ধসে শঙ্কা। পাহাড়ের পাদদশে বসবাসরতরা আতংকের মাঝে রয়েছে।
এদিকে, গত রবিবার সকালে জেলা প্রশাসকের সম্মেলন কক্ষে দূর্যোগ মোকাবেলায় এক জরুরী বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়েছে। পাহাড়ের পাদদেশে বসবাসরতদের আশ্রয় কেন্দ্রে যেতে শহরে মাইকিং করা হচ্ছে। তবে, জেলা সদরের বেশকয়েকটি এলাকা ঘুরে দেখা যায়, এখনো ঝুঁিক নিয়ে পাহাড়ের পাদদশে বসবাস করছে লোকজন।খাগড়াছড়ি জেলা প্রশাসক প্রতাপ চন্দ্র বিশ্বাস বলেন, প্রতিবছর ভারী বর্ষণে চেঙ্গী ও মাইনী নদীর পানিতে জেলার নিম্নাঞ্চল  প্লাবিত হয়। ভারী বর্ষণে পাহাড় ধসের শঙ্কা বেড়ে যায়। পাহাড়ের পাদদশে বসবাসরতদের সরিয়ে নিতে উদ্যোগ গ্রহন করা হয়েছে। জেলার প্রত্যেকটি উপজেলায় আশ্রয় কেন্দ্র গুলো প্রস্তুত রাখতে নির্দেশ দেয়া হয়েছে। এছাড়া সরকারের নির্দেশ ক্রমে দুর্যোগ ব্যাবস্থাপনায় করনীয় সকল প্রকার প্রস্তুতি নেয়া হয়েছে।

খাগড়াছড়ির পৌর মেয়র রফিকুল আলম বলেন, প্লাবিত প্রতিটি এলাকা ঘুরে দেখছি এবং সকলকে আশ্রয় কেন্দ্রে যাওয়ার অনুরোধ করছি। প্রবল বর্ষণে শনিবার থেকেই চেঙ্গী নদীর পানিতে গঞ্জপাড়া, কালাডেভা ও মুসলিমপাড়া সহ শহরের বিভিন্ন নিম্নাঞ্চল এলাকা প্লাবিত হয়েছে। ইতিমধ্যে পৌর শহরের শালবন, কুমিল্লাটিলা ও সবুজবাগ এলাকায় পাহাড় ধস দেখা দিয়েছে।

শেয়ার করুনঃ

আরো খবর

Leave a Reply