বাংলাদেশ, শুক্রবার, ১৪ই আগস্ট, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ, ৩০শে শ্রাবণ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

আনোয়ারায় স্কুলছাত্র আত্নহত্যার পেছনে মূল হোতাদের শাস্তির দাবিতে মানববন্ধন

আরমান হোসেন, আনোয়ারা প্রতিনিধি

আনোয়ারা উপজেলার কৈনপুরা উচ্চ বিদ্যালয়ের অষ্টম শ্রেনীর ছাত্র দুর্জয় দাশের (১৬) আত্মহত্যার পেছনে জড়িত ব্যক্তিদের দূষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবিতে মানববন্ধন ও বিক্ষোভ মিছিল করেছে কৈনপুরা এলাকাবাসী ও শিক্ষার্থীরা।

৩ জুলাই,শুক্রবার সকালে সাড়ে দশটার দিকে কৈনপুরা স্কুলের সামনে মানববন্ধন ও বিক্ষোভ করে এলাকাবাসী ও শিক্ষার্থীরা। মানববন্ধনে বক্তারা, কৈনপুরা স্কুলের প্রধান শিক্ষক সুধাংশু চন্দ্র দেবনাথ ও স্কুল কমিটির সভাপতির অবহেলা ও দায়িত্বহীনতার কারণে দুর্জয় দাশ তিন দিন ধরে বিভিন্ন দপ্তরে ঘুরে প্রত্যয়ন পত্র ও জন্মনিবন্ধন সংশোধন না পাওয়ায় জেএসসি পরীক্ষার রেজিট্রেশন করতে না পেরে আত্মহত্যা করে বলে অভিযোগ করে। বয়স সংশোধনী প্রত্যয়ন পত্রের জন্য স্কুলের প্রধাণ শিক্ষকের কাছে বার বার গেলেও তিনি প্রত্যয়নপত্র না দেওয়ায় জন্মসনদ আনতে ব্যর্থ হয়। ফলে আত্নহত্যার মতো কঠিন পথ বেঁচে নেয়। এ সময় শিক্ষার্থীরা দুর্জয়ের আত্মহত্যার পেছনে জড়িত ব্যক্তিদের আইনের আওতায় এনে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি করেন।দুর্জয়ের আত্নহত্যার পেছনে স্কুলের প্রধান শিক্ষক সুধাংশু চন্দ্র দেবনাথ ও স্কুল কমিটির সভাপতি রঘুপতি সেনের অবহেলা ও অমানবিক আচরণ দায়ি করে তাদের অপসারণের দাবি জানান। এ সময় বক্তব্য রাখেন দুর্জয়ের দাশের পিতা মিলন দাশ, কৈনপুরা সচেতন সংঘের সভাপতি সুরজিত দত্ত সৈকত, স্কুল প্রতিষ্ঠাতার নাতি ভাস্কর দত্ত, কৈনপুরা ওয়ার্ড আওয়ামীলীগের সহ-সভাপতি প্রণদশ দত্ত, দুর্জয় দাশের সহপাঠি শান্ত দাশ , নন্দন ঘোষ, উপজেলা ছাত্রলীগ নেতা মহিউদ্দিন, রাশেদ, অনন্ত দাশ, বজ্রহরি দাশ, মিশু দাশ, শীপন, মিজানুর রহমান প্রমুখ।

শেয়ার করুনঃ

আরো খবর

Leave a Reply