মে ৯, ২০২১ ৭:২৩ পূর্বাহ্ণ

দুর্গম এলাকায় কর্মহীন মানুষের ঘরে ঘরে সেনাবাহিনীর ত্রাণ সহায়তা

শংকর চৌধুরী,খাগড়াছড়ি

পার্বত্য জেলা খাগড়াছড়ির দুর্গম এলাকায় সেনাবাহিনীর ত্রাণ সামগ্রী বিতরণ অব্যাহত রয়েছে।
সোমবার (২৯ জুন) মহামরী করোনা মোকাবেলায় মানবিক সেবার অংশ হিসেবে জেলার সীমান্তবর্তী পানছড়ি উপজেলায় এই মহামারী থেকে পরিত্রাণের জন্য হোম কোয়ারান্টাইনে থাকা, ৩৫০ নিন্মবিত্ত, গরিব, অসহায় পরিবার, এবং দুস্থ জনগোষ্ঠীর মাঝে ত্রাণ সামগ্রী বিতরণ করেছে, বাংলাদেশ সেনাবাহিনী খাগড়াছড়ি সদর জোন।
উপজেলার দুর্গম প্রদীবপাড়া, নীলকারবারীপাড়া, হরিমঙ্গলপাড়া, তালতলা এবং ফাতেমানগর এলাকায় কর্মহীন দুস্থ পরিবারের মাঝে এসব ত্রাণ সামগ্রী বিতরণ করা হয়েছে।

ত্রাণ বিতরণ কালে সেনাবাহিনীর খাগড়াছড়ি সদর জোন কমান্ডার লেঃ কর্ণেল জাহিদুল ইসলাম, পিএসসি বলেন, মহামারী কোভিড ১৯ পরিস্থিতি মোকাবেলায় শত প্রতিকূলতার মাঝেও নদী,ছড়া আর দুর্গম পাহাড়ি পথ পাড়ি দিয়ে করোনায় কর্মহীন, দুস্থ ও অসহায় মানুষের ঘরে ঘরে ত্রাণ সহায়তা পৌঁছে দিচ্ছে সেনা সদস্যরা।

তিনি বলেন, দেশ রক্ষার পাশাপাশি যেকোনো দুর্যোগপূর্ণ পরিস্থিতি মোকাবেলা এবং আর্ত মানবতার সেবায় ঝাপিয়ে পড়ায় আমাদের দ্বায়ত্ব। পার্বত্যাঞ্চলে শান্তি সম্প্রীতি এবং উন্নয়ন মুলমন্ত্রকে সামনে রেখে, সেনাবাহিনী দীর্ঘদিন যাবৎ অত্যন্ত দক্ষতার সাথে পেশাগত দায়ত্ব পালন করে আসছে। পাহাড়ে বসবাসরত সকল জনগণের জানমাল রক্ষা এবং এলাকায় আর্থ সামাজিক উন্নয়নের পাশাপাশি শিক্ষা, চিকিৎসাসহ সকল সম্প্রদায়ের মাঝে সম্প্রীতি রক্ষায় সেনাবাহিনীর এমন উদ্যোগ ভবিষ্যতেও অব্যাহত থাকবে বলে জানান, লেঃ কর্ণেল জাহিদুল ইসলাম।

এসময়, খাগড়াছড়ি সদর জোনের উপ অধিনায়ক মেজর চৌধুরী মোহাম্মদ ফাহিম আশরাফী, পিএসসি এবং পানছড়ি সাবজোন কমান্ডার ক্যাপ্টেন মোঃ আহসান হাবীব সহ অন্যান্যরা উপস্থিত ছিলেন।

পরে, উপস্থিত সকলকে অতি জরুরি প্রয়োজন ছাড়া বাহিরে ঘুরাফেরা না করতে এবং সরকারি সকল বিধিনিষেধ মেনে চলার জন্য বিশেষভাবে অনুরোধ জানানো হয়। এছাড়াও স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলা, বারবার সাবান দিয়ে ভালো ভাবে হাত ধোয়া এবং প্রয়োজনে ঘরের বাহিরে আসতে হলে সামাজিক দুরত্ব বজায় রেখে অবশ্যয় মাস্ক ব্যবহার করার পরামর্শ দেয়া হয়।

শেয়ার করুনঃ

Leave a Reply