বাংলাদেশ, শনিবার, ১১ই জুলাই, ২০২০ ইং, ২৭শে আষাঢ়, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

সিআরবি এলাকায় ধর্ষণে ব্যর্থ হয়ে হত্যা, আটক ৩

কোতোয়ালী থানার সিআরবি এলাকায় মালেকা বেগম নামের এক মধ্যবয়সী নারীকে ধর্ষণে ব্যর্থ হয়ে তাকে হত্যার ঘটনায় তিন জনকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। গ্রেপ্তারকৃতরা হলেন- কোতোয়ালী এলাকার চিহ্নিত ছিনতাইকারী রুবেল, সুমন এবং মাইকেল বড়ুয়া।

বৃহস্পতিবার (২৫ জুন) ঘটনায় সম্পৃক্ত থাকার অভিযোগে এই তিন জনকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ। এর আগে মঙ্গলবার রাতে ওই নারীকে হত্যা করা হয়।

বৃহস্পতিবার দুপুরে এই হত্যা রহস্য ও আসামিদের গ্রেপ্তারের বিষয়ে বিস্তারিত গণমাধ্যমকে জানিয়েছেন মহানগর পুলিশের উপ কমিশনার (দক্ষিণ) এস এম মেহেদী হাসান।

চট্টগ্রাম নগর পুলিশের উপ-কমিশনার আসামিদের স্বীকারোক্তির উদ্ধৃতি দিয়ে জানান, মালেকা বেগম (৪৫) গত মঙ্গলবার রাতে নগরীর কোতোয়ালী থানার ফলমন্ডী এলাকায়তার স্বামীর খোঁজে এসেছিলেন। মালেকা বেগমের স্বামী আবুল হোসেন সুমন ফলমন্ডীতে দিন মজুরের কাজ করেন। খুঁজতে গিয়ে রাত ১টা বেজে যায়।

স্বামীকে খুঁজে না পেয়ে পরে ওই এলাকায় একা অসহায় দাঁড়িয়ে ছিলেন মালেকা। সেসময় রুবেল ও সুমন নামের দুই যুবক তার স্বামীর সন্ধান দেওয়ার কথা বলে নগরীর সিআরবি এলাকার একটি পরিত্যক্ত বাংলোতে নিয়ে যায় মালেকাকে। সেখানে তারা মালেকা বেগমকে ধর্ষণের চেষ্টা করে।

মালেকা বেগম চিৎতার করতে থাকলে যুবকরা মালেকা বেগমকে শ্বাস রোধ করে হত্যা করে এবং তার কাছ থেকে একটি হুয়াওয়ে ব্র্যান্ডের মোবাইল ফোন নিয়ে পালিয়ে যায়।

গতকাল বুধবার সন্ধ্যার দিকে পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে মালেকা বেগমের লাশ উদ্ধার করে।

কোতোয়ালী থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মোহাম্মদ মহসিন জানান, লাশ উদ্ধারের পর হত্যা রহস্য উদঘাটনে তাৎক্ষণিক কাজ শুরু করে পুলিশ। মালেকা বেগমের কাছ থেকে ছিনিয়ে নেওয়া মোবাইল ফোনের সূত্র ধরে তথ্য প্রযুক্তির সহায়তায় হত্যাকারীদের শনাক্ত করতে সক্ষম হয় পুলিশ।

পরে ‍বৃহস্পতিবার সুমন, রুবেল এবং মোবাইল ফোনের ক্রেতা মাইকেল বড়ুয়াকে গ্রেপ্তার করতে সক্ষম হয় কোতোয়ালী ধানা পুলিশ। গ্রেপ্তারকৃতরা সবাই এলাকার চিহ্নিত অপরাধী এবং ছিনতাইকারী। তাদের বিরুদ্ধে থানায় একাধিক মামলাও রয়েছে বলে জানান ওসি মোহাম্মদ মহসিন।

শেয়ার করুনঃ

আরো খবর

Leave a Reply