বাংলাদেশ, মঙ্গলবার, ২০শে অক্টোবর, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ, ৪ঠা কার্তিক, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

স্মরণ সভা ও দোয়া মাহফিলে মাওলানা মামুনুর রশীদ নূরী বায়তুশ শরফের ত্রিরত্ব তাঁদের কর্মের দ্বারা জীবন্ত হয়ে আছেন

বায়তুশ শরফ মজলিসুল ওলামা বাংলাদেশের মহাসচিব প্রখ্যাত আলেমেদ্বীন হযরত মাওলানা মামুনুর রশীদ নূরী বলেছেন,তাসাউফ ও আধ্যাত্বিকতা সৎচরিত্রের প্রাণ যেটা বান্দার অন্তরে আল্লাহর সাথে মিলনের আগ্রহ সৃষ্টি করে এবং পথহারা ও বিপদগামী মানুষদেরকে বাতেনী রোগ হতে মুক্ত করে সৎচরিত্র দ্বারা জীবনকে সৌন্দর্যময় করে তুলতে সাহায্য করে, আর ক¦লবকে আল্লাহর প্রেম দ্বারা পূর্ণ করে দেয়। তবে এই তাসাউফ এর ভিত্তি হতে হবে ইসলামী শরীআহ, উৎস হতে হবে কুরআন ও হাদীস।
মাওলানা মামুনুর রশীদ নূরী আজ হাটহাজারী উপজেলার খন্দকিয়া চিকনদন্ডী বায়তুশ শরফ কমপ্লেক্স ও আনজুমানে ইত্তেহাদ খন্দকিয়া শাখার উদ্যোগে আয়োজিত মরহুম শাহ মাওলানা মীর মো: আখতর, শাহ মাওলানা আবদুল জব্বার, শাহ মাওলানা কুতুব উদ্দিন এবং কেন্দ্রীয় মসজিদের খতিব মাওলানা নুরুল ইসলামের স্মরণ সভা ও ইছালে ছাওয়াব মাহফিলে প্রধান মেহমানের বক্তব্যে উপরোক্ত কথা বলেন।
খন্দকিয়া বায়তুশ শরফ কমপ্লেক্স এর হাজী আজগর আলী জামে মসজিদে খতিব মাওলানা হাফেজ মুহাম্মদ মাহমুদুল করিম এর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত মাহফিলে তিনি আরো বলেন, বায়তুশ শরফের ত্রিরত্ব কুতুবুল আলম আল্লামা শাহ মীর মোহাম্মদ আখতর (রহ) , হাদীয়ে জামান আল্লামা শাহ আবদুল জব্বার (রহ) বাহরুল উলুম আল্লামা শাহ কুতুব উদ্দিন (রহ) তাঁদের কর্মের দ্বারা জীবন্ত হয়ে আছেন।
তিনি আরো বলেন, আল্লাহর প্রকৃত অলীগনের শাশ^ত নীতি হচ্ছে দ্বীন ও আমলহীন মানুষদেরকে দয়া আর মহানুভবতার মাধ্যমে সুন্নাতে নববীর অনুকরনেফিরিয়ে আনা। তিনি বায়তুশ শরফকে শিরক, বিদআত ও কুসংস্কারমুক্ত এবং মানব কল্যাণেনিবেদিত একটি পরিচ্ছন্ন দরবার আখ্যায়িত করে আরো বলেন, যে কারণেই বায়তুশ শরফ পৃথিবীর সকল তৌহিদবাদী হক্কানী পীর ওলামা ও ইসলামী স্কলারদের কাছে শ্রদ্ধার মুকুট হিসেবে স্থান করে নিয়েছে। প্রধান মেহমান বায়তুশ শরফের বর্তমান পীর, আন্তর্জাতিক ইসলামী ব্যক্তিত্ব, লিখক ও গবেষক আল্লামা আবদুল হাই নদভীর প্রতি আনুগত্য, সহযোগিতা, সুস্বাস্থ্য ও দীর্ঘ হাযাতের জন্য দোয়া করতে সকলেল প্রতি আহবান জানান। স্মরণ সভায় বিশেষ অতিথি ছিলেন মাওলানা মুহাম্মদ আছিফুল হক। অনুষ্ঠান পরিচালনা করেন বায়তুশ শরফ কমপ্লেক্স এর সভাপতি হাজী ছালেহ জহুর কাইছার।বক্তব্য রাখেন আনজুমানে ইত্তেহাদের সভাপতি মো: রাশেদুল ইসলাম। উপস্থিত ছিলেন হাজী মো: আবদুস সালাম, আকতার হোসেন, হাজী আবদুস সালাম, আবু বকর ছিদ্দিক, হাফেজ মো: ফারুক, মিনহাজ উদ্দিন, মাসুম, মামুন,ইলিয়াছ, সাইফুদ্দীন, মো: রাশেদ, মান্নান, সাইফুল ইসলাম মানিক প্রমুখ।স্মরণ সভা ও ইছালে সাওয়াব মাহফিল শেষে বৈশ্বিক মহামারি করোনা থেকে মুক্তির জন্য বিশেষ মোনাজাত এবং তবারুক বিতরণ করা হয়।

শেয়ার করুনঃ
Tags

আরো খবর

Leave a Reply