বাংলাদেশ, শনিবার, ১১ই জুলাই, ২০২০ ইং, ২৭শে আষাঢ়, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

হজে যেতে না পারলেও টাকা ফেরত নিতে পারবেন আগামী বছর যেতে চাইলেও পারবেন

হজে যেতে প্রাক নিবন্ধন ও নিবন্ধনের জন্য টাকা জমা দিলেও হজের দায়িত্বে থাকা সরকারি কর্মকর্তারাও তাদের আশা দেখাতে পারছেন না।
তবে কর্মকর্তারা শেষ পর্যন্ত এবার বাংলাদেশ থেকে হজে যেতে না পারলেও কারও টাকা খোয়া যাবে না বলে আশ্বস্ত করেছেন।
আশকোনা হজ অফিসের পরিচালক মো. সাইফুল ইসলাম শুক্রবার (১৯ জুন) বলেন, “এ বছর হজের বিষয়ে এখনও সৌদি সরকার কিছু জানায়নি। আশা করছি রবি-সোমবার একটা কিছু জানাবে। সৌদি সরকার কী জানায় এবং আমাদের সরকারের সর্বোচ্চ পর্যায় থেকে কী সিদ্ধান্ত নেয় তার ওপর সব কিছু নির্ভর করছে।”
করোনাভাইরাসের কারণে হজে যেতে না পারলেও জমা করা টাকা খোয়া যাবে না বলে আশ্বস্ত করেছেন ধর্ম মন্ত্রণালয়ের জনসংযোগ কর্মকর্তা মোহাম্মদ আনোয়ার হোসাইন।
তিনি বলেন, “প্রাক নিবন্ধন ও নিবন্ধনের টাকা ব্যাংকের মাধ্যমে দিতে হয়। টাকা ব্যাংকে জমা দেওয়ার সঙ্গে সঙ্গে মন্ত্রণালয় থেকে একটি চিঠি দেওয়া হয় যেন এই টাকা আর কেউ উঠাতে না পারে। পরে বিমানের টিকেট বা অন্যান্য বাবদ পে-অর্ডারের মাধ্যমে ওই টাকা উত্তোলন করা যাবে। সুতরাং যারা হজে যেতে পারবেন না তাদের টাকা খোয়া যাওয়ার কোনো সুযোগ নেই।”
ধর্ম মন্ত্রণালয়ের এই কর্মকর্তা বলেন, “এ বছর কেউ হজে যেতে না পারলে তারা তাদের টাকা ফেরত নিতে পারবেন। আবার আগামী বছর যেতে চাইলেও তারা যেতে পারবেন। সেটা তার ওপর নির্ভর করবে।”

বেসরকারি ব্যবস্থাপনায় যারা নিবন্ধন করেছিলেন, তাদেরও টাকা খোয়া যাওয়ার কোনো ভয় নেই বলে আশ্বস্ত করেছেন হজ এজেন্সি অ্যাসেসিয়েশন অভ বাংলাদেশের (হাব) সভাপতি শাহাদাত হোসেন তসলিম।
তিনি বলেন, “এখান থেকে কারও টাকা ওঠানোর সুযোগ নেই। সুতরাং কোনো টাকা খোয়া যাবে না-এটা শতভাগ নিশ্চিত।”

শেয়ার করুনঃ
Tags

আরো খবর

Leave a Reply