ডিসেম্বর ৩, ২০২১ ৩:৪৬ পূর্বাহ্ণ

পাবনায় চিকিৎসক ও গ্রামীণ ব্যাংক ম্যানেজারের কারোনা আক্রান্ত

আলাউদ্দিন হোসেন,পাবনা
  পাবনার ভাঙ্গুড়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের একজন চিকিৎসক এবং চাটমোহরে গ্রামীণ ব্যাংক ম্যানেজারের করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন।
ভাঙ্গুড়া উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা অফিসার ডাঃ হালিমা খানম জানান, উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের একজন ডাক্তার অসুস্থ্য হলে গত ৭ জুন তার দেহের নমুনা সংগ্রহ করে রাজশাহী পিসিআর ল্যাবে পরীক্সার জন্য পাঠানো হয়। সেই পরীক্ষার ফলাফলের রির্পোট উপজেলা স্বাস্থ্য বিভাগ হাতে পায় ১৩ জুন। সেই রির্পোটে ওই ডাক্তারের দেহে করোনাভাইরাস পজেটিভ ফলাফল আসে। বর্তমানে তিনি প্রতিষ্ঠানিক আইসোলেশনে আছেন। তবে তিনি শারীরিকভাবে সুস্থ্য আছেন। ফলে এপর্যন্ত এ উপজেলায় প্রথম একজন ডাক্তারসহ মোট আক্রান্তের সংখ্যা দাড়াল ১১জন। এর মধ্যে সুস্থ্য হয়েছেন ৩ জন।
এদিকে পাবনার চাটমোহর উপজেলার স্থানীয় গ্রামীণ ব্যাংকের ম্যানেজার করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন। তার বাড়ি বগুড়া শহরে। শুক্রবার রাতে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ (রামেক) হাসপাতালের ল্যাব থেকে তার পজিটিভ রিপোর্ট আসে।
এদিকে এ ঘটনার পর গ্রামীণ ব্যাংকের চাটমোহর শাখা, ওই কর্মকর্তার ভাড়া বাসা ও পাশের দুটি দোকান লকডাউন ঘোষণা করেছে উপজেলা প্রশাসন।
পাবনা উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. শোয়েবুর রহমান জানান, গ্রামীণ ব্যাংকের ওই কর্মকর্তার জ্বর-ঠাণ্ডা, গলাব্যথাসহ নানা উপসর্গ দেখা দেয়। গত ৭ জুন তার নমুনা সংগ্রহ করে পরীক্ষার জন্য রাজশাহী মেডিকেল কলেজ (রামেক) হাসপাতালের ল্যাবে পাঠানো হয়। এরপর শুক্রবার রাতে তার ফলাফল পজিটিভ আসে।
এ ব্যাপারে উপজেলা করোনা সেলের সভাপতি ইউএনও সরকার মোহাম্মদ রায়হান জানান, বাসস্ট্যান্ড এলাকার গ্রামীণ ব্যাংকের অফিস, পাশের দুটি দোকান এবং তিনি যে বাসায় ভাড়া থাকতেন সেগুলো লকডাউন করা হয়েছে। বর্তমানে গ্রামীণ ব্যাংকের ওই কর্মকর্তা ছুটি নিয়ে বাড়িতে অবস্থান করছেন এবং আইসোলেশনে আছেন বলে জানান তিনি।
উল্লেখ্য, এ নিয়ে চাটমোহরে স্বাস্থ্যকর্মীসহ মোট চারজন করোনা রোগী শনাক্ত হলো। এর মধ্যে তিনজন ইতিমধ্যে সুস্থ হয়েছেন।
শেয়ার করুনঃ

Leave a Reply