বাংলাদেশ, শুক্রবার, ২২শে মে, ২০২০ ইং, ৮ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

আনোয়ারায় এমএ রশিদের সার্বিক সহযোগিতায় ১৬১ রোগী পেল পরিবহণ সুবিধা এখনো অব্যাহত আছে

আনোয়ারায় এমএ রশিদের সার্বিক সহযোগিতায় ১৬১ রোগী পেল পরিবহণ সুবিধা, যা এখনো চলমান আছে।করোনা ভাইরাস পরিবহণ সংকটকালে  এই সেবা পাবে আনোয়ারার প্রত্যন্ত অঞ্চলেরা  রোগীরা।যে কোন ধরণের রোগী এমন কি দূর্ঘটনায় পতিত কিংবা অন্য কোন কারণে আহতরাও এই সুবিধা পান।

সুত্রমতে, ইতিমধ্যে ১.মোহাম্মদপুর গ্রামের মাওলানা হারুন ডায়ালাইসিস রোগীর সপ্তাহে দুইবার নিতে হয় ২. বৈরাগ ইউনিয়নের খলিফা পাড়ার মুয়াজ্জিন খলিলের মা স্ট্রোক রোগীর ৩. বৈরাগী নিওনের দক্ষিণ বন্দর গ্রামের একজন মহিলা জাহরা বেগমের মেয়ে চট্টগ্রাম মেডিকেলে স্ট্রোক রোগী ৪. বৈরাগ ইউনিয়নের বদলপুরা গ্রামের হাজী নূর হোসেন ক্যান্সার রোগী ৫. বৈরাগী নিওনের খলিফার ম্যানেজার হাসানের মা কিডনি রোগী ৫. দুই নম্বর বারশতের নিওনের গোবাদিয়া গ্রামের মাসুদের ছোট বোন ডেলিভারি রোগী ৬. বারখাইন ইউনিয়নের মাতৃসদন হসপিটালে ডেলিভারি রোগী শাকিল চেয়ারম্যানের রেফারেন্স ৭. গোবাদিয়া আব্দুল হালিম খান আমানুল্লাহ পাড়ার ওয়াজ নূরের স্ত্রী চাতরী চৌমুহনী একজন বার্ধক্যজনিত রোগ ৮.দু’নম্বর বারশতের নিওনের পশ্চিমচাল গ্রামের শীলপাড়া থেকে ডেলিভারি জয়শ্রী ৯. বৈরাগ ইউনিয়ন থেকে বৈরাগ গ্রামের নুর মোহাম্মদ ডেলিভারি রোগী  বারশত থেকে বোয়ালিয়া গ্রামের  ১০.জুলেখা খানম ১১. এক নম্বর বৈরাগী নিওনের পঞ্চগ্রাম থেকে ফারহানা বেগম ডেলিভারি রোগী ১২. পড়ৈকোড়া ইউনিয়ন থেকে হৃদরোগী চট্টগ্রাম মেডিকেলে আলমগীরের মা ১৩. বারখাইন ইউনিয়ন একজন ডেলিভারি রোগী মেনন হসপিটাল ১৪. হাইলধর ইউনিয়ন কুনির বিল গ্রাম থেকে ইমনের চাচতো ভাই চট্টগ্রাম মেডিকেল ১৫. গোবাদিয়া থেকে মালেক মেম্বারের ভাই জলু চট্টগ্রাম মেডিকেল ১৬.সিপ্লাস টিভি আনোয়ারা প্রতিনিধি রেজাউল করিম সাজ্জাদের দাদি গহিরা থেকে ১৭. বটতলী ইউনিয়ন উচ্চ বিদ্যালয়ের শিক্ষক জয়নালকে বটতলী থেকে ১৮. বটতলী ইউনিয়ন বটতলী স্কুলের ইংলিশ মিডিয়ামের টিচার নুর ইসলাম ১৯.বারশত ইউনিয়নের বোয়ালিয়া গ্রামের ইসমাঈল ২০.তিন নম্বর রায়পুর ইউনিয়নের ফেলা মাঝির বাড়ির ফরিদা বেগম।

২১.উত্তর বন্দর কোট্রাপাড়া মুজিবের বউ ডেলিভারি রোগী ২২.বৈরাগ এর সোহেলের বউ ডেলিভারি রোগী ২৩. গুন্দিপ আসকর আলি মাঝির বাড়ি কাশেমের বউ ডেলিভারি রোগী ২৪.পশ্চিম চাল গ্রামের পারভেজ ইন্ঞ্জুরি রোগী ২৫. দক্ষিণ বন্দর বোছা তালুকদারের বাড়ী মন্নানের মা ষ্টোক করে মৃত্যুবরণ করেছেন ২৬. গোয়া পঞ্চক কালুর বউ স্তন ক্যান্সার ২৭. সরেঙ্গা থেকে একজন আতিকুরের ভাই ইনজুরি রোগী ২৮. বারশত ইউনিয়নের বারশত গ্রামের নবী হোসেনের ভাগ্নি ন্যাশনাল হাসপাতাল ২৯.পশ্চিম চালের আব্দুস সত্তার এর মেয়ে মমতা ক্লিনিকে ডেলিভারি ৩০.  রায়পুর ইউনিয়নের জনৈক রোগী ৩১ . বন্ধ সিংহ পাড়া বনশ্রী একজন ডেলিভারি রোগী সূর্যের হাসি ক্লিনিক ৩২.বোয়ালিয়া গ্রামের দফাদার আহমদ ছফার মেয়ে ডেলিভারি রোগী মমতা ক্লিনিক ৩৩. আমানুল্লাহ প্রোগ্রামের কায়সারের স্ত্রী রানু ডেলিভারি রোগী ৩৪.দুধকুমড়া পারকি গ্রামে কাইউম সাহেব চেয়ারম্যানের বাড়ি থেকে ওনার বড় মাকে জামাল বার্ধক্যজনিত রোগী ৩৫.বৈরাগী ইউনিয়নের মোহাম্মদপুর গ্রাম থেকে সাংবাদিক রাজুর স্ত্রী ডেলিভারির রোগী  ৩৬.বটতলী নুর পাড়া থেকে ইসমাইলের বোন ডেলিভারি রোগী।৩৭. মুক্তার উজ্জামান আমান উল্লাপাড়া ইনজুরির রোগী ৩৮.বৈরাগী নিওনের মোহাম্মদপুর গ্রামের খুরশিদের মা হঠাৎ পেট ব্যাথা চট্টগ্রাম মেডিকেল ৩৯. বন্দর জেলেপাড়া ম্যানেজার পলাশের জেঠিমা ৪০.পশ্চিম চাল গ্রামের কবিরার দোকান থেকে চট্টগ্রাম মেডিকেলে ৪১. বটতলী নূর পাড়া থেকে মন্নান চেয়ারম্যানের ভাতিজার বউ কান্তির হাটের শেখ আহামদ সদাগরের মেয়ে মা ও শিশু হাসপাতালে ডেলিভারি রোগী।

উপরেল্লিত রোগীদের মতো ১৬১জন রোগীকে পরিবহণ সেবা দেন এমএ রশিদ।এসব রোগীরা কেউ কেউ কয়েকবার যাতায়াত সুবিধা পান আবার কেউ কেউ পান একবার। কেউ শুধু মেডিকেলে গেছেন আবার কেউ কেউ মেডিকেল থেকে এসেছেন।

প্রসংগত এমএ রশিদ এখন আনোয়ারার রোগী ও রোগী স্বজনদের কাছে পরিচিত এক নাম।তিনি আনোয়ারা থানা আওয়ামী লীগ সিনিয়র সদস্য ও  চট্টগ্রাম সমিতির আজীবন সদস্য।

 

 

শেয়ার করুনঃ

আরো খবর

Leave a Reply