বাংলাদেশ, রবিবার, ৫ই জুলাই, ২০২০ ইং, ২১শে আষাঢ়, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

স্বাস্থ্য সামগ্রী বিতরনকালে মেয়র প্রার্থী মো. রেজাউল করিম চৌধুরী করোনা নিয়ে রাজনীতি নয়, কঠোর সতর্কতা কাম্য

করোনা নিয়ে রাজনীতি না করে সচেতন ও সতর্ক হওয়ার আহবান জানিয়েছেন চট্টগ্রাম মহানগর আওয়ামী লীগের সিনিয়র যুগ্ম সাধারন সম্পাদক মো. রেজাউল করিম চৌধুরী।
আজ রবিবার সকাল থেকে নিত্যদিনের মত নেতাকর্মী ও সমর্থকদের অনেকেই তাঁর বাসভবনে এসে কুশল বিনিময় করেন। এ সময় তিনি বিশ্বমহামারী প্রতিরোধে সকলকে সচেতন ও সতর্ক জীবন যাপন করার আহবান জানান।
তিনি বলেন, আওয়ামী লীগ সরকার সবসময় গণমুখী সরকার। আওয়ামী লীগের আবেগ অনুভুতির বিরাট একটি জায়গা মুজিব শতবর্ষ। পরিস্থিতি বিবেচনায় বিভিন্ন দেশের রাষ্ট্রপ্রধান ও গুরুত্বপূর্ণ ব্যক্তিদের নিয়ে মুজিব শতবর্ষ উদযাপনের শতভাগ প্রস্তুতি নেয়ার পরও করোনা ঝুঁকি এড়াতে তা বাতিল করা হয়। প্রবাসী ভাইয়েরা আমাদের সম্পদ, তাদের এদেশে আসাটা আত্মীয় পরিজনসহ সকলের কাছে অত্যন্ত আনন্দের বিষয়। কিন্তু ভাইরাস ঠেকাতে তাদেরকে ১৪ দিনের কোয়ারেন্টেনে থাকতে অনুরোধ করা হয় পরিবার, সমাজ ও দেশকে করোনামুক্ত রাখতে। না বুঝে অনেকেই আমাদের সে অনুরোধ রাখেনি। এখানেই আমাদের শঙ্কার জায়গা। সার্বিক বিবেচনায় দেশকে করোনামুক্ত রাখতে সরকার স্কুল, কলেজ, বিশ্ববিদ্যালয়, কোচিং সেন্টার বন্ধ ঘোষনা করে। বেশ কিছু প্রবাসী ও তাদের পরিবারের মধ্যে করোনা ভাইরাসের অত্বিত্ব চিহ্নিত হওয়ায় এর বিস্তৃতি রোধে সকল প্রকার গনজমায়েতসহ সিটি নির্বাচন স্থগিত করা হয়। জনস্বাস্থ্য বান্ধব সিদ্ধান্তকে আমরা স্বাগত জানাই। এখন দরকার সর্বমহলে সচেতনতা তৈরী করা।
তিনি নেতাকর্মী ও সমর্থকদের নিজ নিজ এলাকায় কোন প্রকার জটলা না করে জনে জনে করোনা প্রতিরোধে করনীয় সম্পর্কে সচেতনতা তৈরীর আহবান জানান। তুলনামূলক অসচ্ছল পরিবারে মাস্ক, হ্যান্ড স্যানিটাইজার ও সাবান বিতরনেও কাজ করার আহবান জানান এবং তাদের হাতে বেশ কিছু স্বাস্থ্য সুরক্ষা সামগ্রী তুলে দেন।
রেজাউল করিম চৌধুরী বলেন, রাজনৈতিক হীন স্বার্থে অনেকেই রোগ বালাইকে কাজে লাগাতে চাইছেন। শত শত মানুষের সমাগম ঘটিয়ে প্রয়োজনের তুলনায় অপ্রতুল সামগ্রী বিলিয়ে অন্যের গীবত গাইছে। তারা কারা, তাদেরকে মানুষ চিনে এবং জানে। আমি তাদের কাছে অনুরোধ করব রাজনীতি নয়, করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে সচেতনতা তৈরী করুন। বার বার সাবান পানি দিয়ে হাত ধোয়ার জন্য আমি আমার নির্বাচনী প্রচারনায় সবাইকে উৎসাহিত করেছি। এখন থেকে আর ভোটের কথা বলছিনা। বলছি করোনা থেকে নিজে মুক্ত থাকুন, অন্যদেরও মুক্ত রাখুন।
বিভিন্ন ওয়ার্ডের জন্য মাস্ক, সাবান ও হ্যান্ড স্যানিটাইজার প্রদান কালে উপস্থিত ছিলেন চসিক ৬ নং পূর্ব ষোলশহর ওয়ার্ডের কাউন্সিলর লায়ন এম. আশরাফুল আলম, মহানগর শ্রমিকলীগের সাবেক সভাপতি মো. নুরুল ইসলাম, বাংলাদেশ শিক্ষা ও গবেষণা ফাউন্ডেশনের সাধারণ সম্পাদক অধ্যক্ষ এম সোলাইমান কাসেমী, মোহরা ওয়ার্ড আওয়ামীলীগের যুগ্ম আহবায়ক নাজিম উদ্দিন চৌধুরী, কাবেদুর রহমান কচি, সাইফুদ্দিন, মো. আনোয়ার, মো. বখতেয়ার ও মুহাম্মদ নুর উদ্দিন, দক্ষিণ জেলা কৃষিক লীগের সভাপতি মুহাম্মদ আতিকুর রহমান চৌধুরী প্রমুখ।
এসময় এম রেজাউল করিম লোক দেখানো কার্যক্রমকে নিরুৎসাহিত করে আরো বলেন, ঝুঁকিমুক্ত উপায়ে সচেতনতা কার্যক্রম পরিচালনা ও অসচ্ছল পরিবারের মাঝে স্বাস্থ্য সামগ্রী বিতরন করতে হবে।

শেয়ার করুনঃ

আরো খবর

Leave a Reply