অক্টোবর ১৬, ২০২১ ৫:৩৫ পূর্বাহ্ণ

যুক্তরাষ্ট্রে করোনা ভাইরাসে বাংলাদেশি আক্রান্ত

বাংলা প্রেস, নিউ ইয়র্ক

 

 

 

যুক্তরাষ্ট্রের নিউ ইয়র্ক অঙ্গরাজ্যের লং আইল্যান্ড প্রবাসী এক বাংলাদেশি করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হবার খবর পাওয়া গেছে। যুক্তরাষ্ট্রে তিনিই প্রথম বাংলাদেশি করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত রোগী। নিউ ইয়র্কে তথ্যপ্রযুক্তি (আইটি) পেশায় কর্মরত ৪২ বছর বয়সী ওই বাংলাদেশি লং আইল্যান্ডের পার্শ্ববর্তী এনওয়াইইউ উইনথ্রোপ হাসপাতালের কোয়ারেন্টাইনে রয়েছেন বলে জানা গেছে। আক্রান্তের পরিবারের আরও চার সদস্য করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হওয়ার শঙ্কায় আছেন বলে পারিবারিক সূত্রে জানা গেছে। করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হবার খবরে দ্বিগুন আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়েছে হাজার হাজার প্রবাসীদের মাঝে।নিউ ইয়র্ক থেকে বাংলা প্রেস এসব তথ্য দিয়েছে।
করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত ওই বাংলাদেশির বন্ধু ইউসুফ আহমেদ জানিয়েছেন তাদের সঙ্গে তার যোগাযোগ রয়েছে। সর্বোচ্চ সতর্কতা অবলম্বন করে রোগীর দেখাশোনা করছেন তারা।
এদিকে, নিউ ইয়র্ক শহরে করোনা ভাইরাস সংক্রমিত কোভিড-১৯ রোগে আক্রান্ত অশীতিপর এক নারীর নিউ ইয়র্ক সিটি হাসপাতালে মৃত্যু হয়েছে। নিউ ইয়র্কে করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে এটিই প্রথম মৃত্যু। তবে গোটা যুক্তরাষ্ট্রে এই ভাইরাসে ৫১ জন ইতিপূর্বে প্রাণ হারিয়েছেন। এ ছাড়া দেশটিতে করোনা আক্রান্ত মানুষের সংখ্যা ২ হাজার ৩৪০ জন ছাড়িয়ে গেছে। এরই প্রেক্ষিতে  যুক্তরাষ্ট্রে জাতীয় জরুরি অবস্থা জারি করেছেন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প।
নিউ ইয়র্ক শহরের গভর্নর অ্যান্ড্রু কুওমো ৮২ বছর বয়সী ওই নারীর মৃত্যুর খবর নিশ্চিত করে জানান, সম্প্রতি ওই নিউ ইয়র্ক সিটি হাসপাতালে ওই নারীর শরীরে করোনা ভাইরাসের উপস্থিতি শনাক্ত করা হয়। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয়েছে।
স্থানীয় সময় শনিবার সকালে ভিডিও কনফারেন্সে তিনি সাংবাদিকদের বলেন, ‘গতরাতে নিউ ইয়র্ক সিটি হাসপাতালে ৮২ বছর বয়সী এক নারীর মৃত্যু হয়েছে—যিনি করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত ছিলেন। জানা গেছে, গত ৩ মার্চ তিনি হাসপাতালে ভর্তি হন। তিনি দীর্ঘদিন ধরে ‘‘এমফিসেমা’’ নামক রোগে ভুগছিলেন।’
ইউরোপের দেশ যুক্তরাজ্যে করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে গত ২৪ ঘণ্টায় মৃত্যুর সংখ্যা বেড়ে দ্বিগুণ হয়েছে। দেশটিতে নতুন করে করোনা ভাইরাস আক্রান্ত ১০ জনের মৃত্যু হয়েছে। এ নিয়ে দেশটিতে করোনা সংক্রমিত কোভিড-১৯ রোগে আক্রান্ত হয়ে মৃত্যু হলো ২১ জনের।
সর্বশেষ খবর অনুযায়ী, বিশ্বের ১২৩টি দেশের ১ লাখ ৪৯ হাজার ৬২৬ জন বেশি মানুষ কোভিড-১৯ রোগে আক্রান্ত হয়েছে। মৃত্যুর সংখ্যা ৫ হাজার ৬০০ ছাড়িয়েছে। এরই প্রেক্ষিতে  বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা ভাইরাসটিকে প্যানডেমিক অর্থাৎ বিশ্বের বড় অঞ্চলজুড়ে ছড়িয়ে পড়া মহামারি বলে  ঘোষণা দেয়।

শেয়ার করুনঃ

Leave a Reply