বাংলাদেশ, সোমবার, ১৭ই ফেব্রুয়ারি, ২০২০ ইং, ৪ঠা ফাল্গুন, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

অপ্রয়োজনীয় বাঁধের নামে সরকারের টাকা অপচয় করতে কাউকে দেয়া হবেনা -হুইপ মিসবাহ

আল-হেলাল,সুনামগঞ্জ 
সুনামগঞ্জে প্রবীণ কর্মসুচির সদস্যদেরকে বয়স্ক ভাতা,শীতবস্ত্র,হুইল চেয়ার,লাঠিসহ বিভিন্ন উপকরন প্রদান করেছে এনজিও সংস্থা পদক্ষেপ। শুক্রবার সকাল ১১ টায় সংস্থার বেরীগাঁও শাখা কার্যালয়ে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে সংস্থার তালিকাভূক্ত বয়স্কদের হাতে এই ভাতা তুলে দিয়ে আনুষ্ঠানিকভাবে ভাতা প্রদান কর্মসুচির শুভ উদ্বোধন করেন জাতীয় সংসদের বিরোধী দলীয় হুইপ এডভোকেট পীর ফজলুর রহমান মিসবাহ্ এমপি।

সুরমা ইউনিয়নের চেয়ারম্যান আঃ ছত্তার ডিলারের সভাপতিত্বে ও প্রবীণ কর্মসুচির কোঅর্ডিনেটর মোঃ শাহজাহান সিরাজের পরিচালনায় এ উপলক্ষে অনুষ্ঠিত আলোচনা সভায় বক্তব্য রাখেন পদক্ষেপ সিলেট অঞ্চলের এরিয়া ম্যানাজার মোঃ মজিবুল হক, জেলা জাতীয় পার্টির যুগ্ম সম্পাদক আব্দুর রশীদ ও আব্দুছ ছোবহান মাস্টার প্রমুখ। এসময় পদক্ষেপ সুনামগঞ্জের এরিয়া ম্যানেজার মোঃ গোলাম এহিয়া,ইউনিয়ন জাতীয় পার্টির সভাপতি সিরাজুল ইসলাম,ইউপি সদস্য আবুল হোসেন,আব্দুল হাই,সাবেক মেম্বার ফারুক হোসেন,মুক্তিযোদ্ধা আবুল কালাম  ওয়ায়েসকুরুনী,পদক্ষেপ এর সুরমা ব্রাঞ্চ ম্যানেজার মতিউর রহমান,এমআইএস অফিসার মোঃ মনিরুজ্জামান ও প্রোগ্রাম অফিসার আব্দুর রহিম খলিফাসহ সংস্থার কর্মকর্তা কর্মচারী ছাড়াও ভাতাভোগী প্রবীণ নারী পুরুষেরা উপস্থিত ছিলেন।
উল্লেখ্য, পদক্ষেপ মানবিক উন্নয়ন কেন্দ্র প্রবীণ কর্মসূচী ও পিকেএসএফ এর যৌথ অর্থায়নে সদর উপজেলার সুরমা ইউনিয়নের ১০০ জন প্রবীণ সদস্যদের প্রত্যেককে ২ হাজার টাকা করে মোট ২ লক্ষ টাকা বয়স্ক ভাতা প্রদান করা হয়। এছাড়াও ৮০ জন সদস্যদেরকে কম্বল,৩০ জনকে ওয়ার্কিং স্টিক (লাঠি),২ জনকে হুইল চেয়ার,৩ জন শ্রেষ্ঠ প্রবীণ কে সম্মাননা মেডেল ও সার্টিফিকেট, ৩ জন প্রবীণের সন্তানদেরকে সম্মাননা মেডেল ও সনদ প্রদান এবং ৭ জন মৃত প্রবীণ সদস্যদের পরিবারবর্গকে ২ হাজার টাকা করে নগদ অনুদান প্রদান করা হয়। বীর মুক্তিযোদ্ধা আব্দুল আলী,বীর মুক্তিযোদ্ধা চান মিয়া ও মুক্তিযোদ্ধার সন্তান জুয়েল আহম্মদসহ স্থানীয় প্রবীণ নারী পুরুষেরা এসব উপকরন ও পদকপ্রাপ্ত হন।
প্রধান অতিথির বক্তৃতায় সুনামগঞ্জ সদর ও বিশ্বম্ভরপুর উপজেলা থেকে একাধিকবারের নির্বাচিত সংসদ সদস্য এডভোকেট পীর ফজলুর রহমান মিসবাহ্ বলেন,পদক্ষেপ এনজিও প্রতিষ্ঠানটি আমার নির্বাচনী এলাকায় তার যাত্রা থেকে শুরু করে এখন পর্যন্ত এই এলাকার আর্ত মানবতার সেবায় ও সমাজের উন্নয়নে বিশেষ ভূমিকা পালন করে যাচ্ছে। বিশেষ করে সরকারী সুবিধা থেকে যেসব নাগরিকরা বঞ্চিত রয়েছেন তাদেরকে সেবা প্রদানে তারা অগ্রাধিকার দিচ্ছে। আমরা চাই জিও এনজিও সহ সকলের সমান সেবা ও সুষম উন্নয়নে সুনামগঞ্জকে এগিয়ে নিতে। এ লক্ষে আমি সকলকে নিয়ে মাঠপর্যায়ে কাজ করে যাচ্ছি। তিনি বলেন,সুরমা ইউনিয়নসহ সুনামগঞ্জ সদর উপজেলার অনেক জায়গায় কৃষক,জনপ্রতিনিধি ও মাঠ পর্যায়ের লোকদের মতামতকে উপেক্ষা করে অনেক অপ্রয়োজনীয় বাঁধের ভূয়া প্রকল্প নেয়া হয়েছে। এসব অপ্রয়োজনীয় পিআইসি বাতিল করতে হবে। সরকারের টাকা অপচয় করতে কাউকে দেয়া হবেনা। আলোচনা সভা শেষে তিনি পদক্ষেপ এর প্রবীণ কর্মসুচির সদস্যদেরকে বয়স্ক ভাতার টাকা,শীতবস্ত্র,হুইল চেয়ার,লাঠিসহ বিভিন্ন উপকরন উপকারভোগীদের হাতে তুলে দেন।

শেয়ার করুনঃ

আরো খবর

Leave a Reply