বাংলাদেশ, মঙ্গলবার, ১৮ই ফেব্রুয়ারি, ২০২০ ইং, ৫ই ফাল্গুন, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

সারজন স্কুল এন্ড কলেজ আগ্রাবাদ প্রধান ক্যাম্পাসের বার্ষিক পরীক্ষার ফলাফল ও পুরষ্কার বিতরণী অনুষ্ঠান

 

আজ ৩১ ডিসেম্বর ২০১৯ইং মঙ্গলবার সকাল ১০টায় ঐতিহ্যবাহী সারজন স্কুল এন্ড কলেজ আগ্রাবাদ প্রধান ক্যাম্পাসের ২০১৯ সালের বার্ষিক পরীক্ষার ফলাফল প্রকাশ ও পুরস্কার বিতরনী অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়। উক্ত অনুষ্ঠান সিনিয়র শিক্ষক মো: মোজাম্মেলুল হক হোসাইনীর পরিচালনায় ও অধ্যক্ষ মিসেস রাহেলা বি চৌধুরী সভাপতিত্বে, প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ কিন্ডারগার্টন স্কুল এন্ড কলেজ ঐক্য পরিষদের কেন্দ্রীয় চেয়ারম্যান অধ্যক্ষ এম ইকবাল বাহার চৌধুরী, বিশেষ অতিথি ছিলেন বিশিষ্ট শিক্ষানুরাগী, রাজনীতিবিদ ও ব্যবসায়ী, ফরেষ্ট কলোনী উচ্চ বিদ্যালয়ের পরিচালনা পরিষদের চেয়ারম্যান মো: আব্দুল আজিজ মোল্লা। সারজন স্কুল এন্ড কলেজ আগ্রাবাদ প্রধান ক্যাম্পাসের ৭ম শ্রেণির ছাত্র নুর আলম রাব্বীর পবিত্র কোরআন তেলোয়াতের মাধ্যমে শুরু হওয়া অনুষ্ঠানে আরো বক্তব্য রাখেন আগ্রাবাদ প্রধান ক্যাম্পাসের শিক্ষক শিক্ষিকা যথাক্রমে হালিমা বেগম, নাহার আফরোজ নীলা, ফাতেমা আক্তার, জাহানারা পারভীন, নাসরিন সুলতানা, মো: তরিকুল ইসলাম, নুর নাহার বেগম, জয়া বড়ুয়া প্রমুখ।
প্রধান অতিথির বক্তব্যে বাংলাদেশ কিন্ডারগার্টন স্কুল এন্ড কলেজ ঐক্য পরিষদের কেন্দ্রীয় চেয়ারম্যান অধ্যক্ষ এম ইকবাল বাহার চৌধুরী বলেন এই কুড়িসম মুকুলিত শিশুরাই এই দেশ এবং জাতীর আগামীর কর্ণধার। যদি তাদেরকে প্রকৃত শিক্ষায় শিক্ষিত করে মানুষ করতে না পারি তাহলে আগামীতে এই দেশ ও জাতীর ভবিষ্যত অন্ধকারাছন্ন হবে। তাই বৃহত্তর স্বার্থে আমাদের সকলকে তাদের প্রতি দৃষ্টি রাখতে হবে। বিশেষ করে মা বাবা তথা অভিভাবকদের। শিক্ষার্থীদের নৈতিক শিক্ষায় ক্ষেত্রে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান তথা টিচারর্সবৃন্দকে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখতে হবে। সেই সাথে শিক্ষার্থীদের হাতে মোবাইল না দেয়া, ছেলেরা যাতে বখাটে স্টাইল চুল না কাটে, সন্ধ্যার পর বাহিরে যাতে শিক্ষার্থীরা আড্ডা না দেয়সহ শিক্ষার্থীদের বিভিন্ন নৈতিক শিক্ষার উপর গুরুত্বপূর্ন পরামর্শ দেন। এই ঐতিহ্যবাহী সারজন স্কুল এন্ড কলেজ শিক্ষার পাশাপাশি নৈতিক শিক্ষাও দিয়ে থাকে বিধায় আপনার সন্তানের লেখাপড়ার জন্য সারজন স্কুল এন্ড কলেজ’কে বেঁচে নেওয়ায় আপনাদের’কে ধন্যবাদ ও মোবারক বাদ জানাচ্ছি। আশা করছি এই প্রতিষ্ঠান তার সফলতা ধরে রাখার জন্য আপনার সন্তানকে নৈতিক শিক্ষাসহ সুশিক্ষায় শিক্ষিত করে প্রকৃত মানুষ হিসেবে তৈরি করবে এ প্রত্যাশা ব্যক্ত করছি। পরিশেষে ফলাফল প্রকাশ, পুরষ্কার বিতরণ, সভাপতির সমাপনী বক্তব্য ও ছাত্র-ছাত্রীদের পরিবেশনায় মনোজ্ঞ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের মাধ্যমে অনুষ্ঠানের সমাপ্তি ঘোষনা করা হয়।

শেয়ার করুনঃ

আরো খবর

Leave a Reply