বাংলাদেশ, শনিবার, ১৮ই জানুয়ারি, ২০২০ ইং, ৪ঠা মাঘ, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

শেখ হাসিনার নতুন ফর্মূলা প্রেক্ষাপট চট্টগ্রামের রাজনীতি : দলে মোশাররফ, ওয়াশিকা, বিপ্লব ও আমিন আর সরকারে জাবেদ ও নওফেল

সরকার ও দলে ড. হাসান মাহমুদ

 পূবা ডেক্স

আওয়ামী লীগ কমিটি ও আওয়ামী লীগ সরকার এই বিশালাকার অন্তগৃহে নতুনভাবে নব ফর্মূলায় শেখ হাসিনা কাজ শুরু করেছেন।অবাক করে দিয়েছেন সরকার ও দলের নেতৃত্ব ঠিক করে।ভারসাম্য তৈরী করেছেন ঘাটে ঘাটে।অনেক মন্ত্রী ও নেতা-নেত্রীদের পদ – পদবী বিন্যাসে লাগাম টেনে ধরেছেন।সতর্কতা অবলম্বন করে সামনের নতুন বছরে নতুন চিন্তা চেতনায় দল ও সরকারকে সাজানোর আলামতে শেখ হাসিনার দূরদর্শীতা রাজনৈতিক বিশ্লেষকেরা অংক কষতে শুরু করে দিয়েছে।সচেতন সুশীল সমাজ ও রাজনৈতিক বিশ্লেষকেরা ভাবছে শেখ হাসিনার কৌশল ও ফর্মূলা নিয়ে।

রাজনৈতিক বিশ্লেষকদের মতে রাজধানী ঢাকা ও  বন্দরনগরী চট্টগ্রাম থেকে রাজনৈতিক ফর্মূলা তৈরী হয়েছে যুগ যুগ ধরেই।  ২০১৯ সালে আওয়ামী লীগের কাউন্সিল অধিবেশন গিরেই চমক সৃষ্ঠি  হয়েছে ক্ষেত্র বিশেষে।চট্টল বীর এবিএম মহিউদ্দিন চৌধুরীর সুযোগ্য প্রজন্ম ব্যারিষ্টার মহিবুল হাসান চৌধুরী নওফেলকে দলের পদ কেড়ে নিয়ে সরকারের মন্ত্রী রেখেছেন।একইভাবে মুক্তিযুদ্ধের অন্যতম সংগঠক প্রয়াত আখতারুজামান চৌধুরী বাবুর বড় ছেলে সাইফুজ্জামান চৌধুরী জাবেদকে সরকাারের পূর্ণমন্ত্রী রাখলেও দলে ঠাই দেননি।অন্যদিকে যথাযথ মর্যদায় সাবেক মন্ত্র্রী ইঞ্জিয়ার মোশারররফ হোসেনকে সরকারে না রাখলেও  দলের মূল নীতিনির্ধারণী ফোরাম প্রেসিডিয়াম সদস্য রেখেছেন।যে পদে এর আগে চট্টগ্রাম থেকে অধ্যাপক পুলিন দে, সাবেক সফল রাষ্ট্রদূত আতাউর রহমান খান কায়সার ও আখতারুজ্জামান চৌধুরী বাবু ক্রমান্বয়ে দায়িত্ব পালন করেছিলেন। এদিকে এবার আওয়ামী লীগের কাউন্সিল অধিবেশনে চমক দেখিয়েছেন ওয়াশিকা আয়শা খানম।দুইবারের নেতৃত্বে থাকা বাপের পদে আসিন হয়ে নিজ দলে আস্হা অর্জন করেছেন তিনি।অর্থ ও পরিকল্পনা সম্পাদক ছিলেন আতাউর রহমান খান কায়সার ।এবার এই পদে আসীন হলেন তারঁই বড় মেয়ে ওয়াশিকা আয়শা খানম এমপি।’বাপকে বেটি’ প্রমাণ করলেন ওয়াশিকা আয়শা খানম।

৩২ বছর আগে ১৯৮৭ সালে জাতীয় পরিষদের সদস্য  আতাউর রহমান খান কায়সার কেন্দ্রীয় আওয়ামী লীগের অর্থ ও পরিকল্পনা সম্পাদকের দায়িত্ব পালন করেছিলেন। এবার বাবার পদে মেয়ে ওয়াশিকা আয়শা খান এমপি আওয়ামী লীগের ২১তম জাতীয় সম্মেলনের পর ঘোষিত পূর্ণাঙ্গ কমিটিতে প্রথম বারের মত একই সম্পাদকের দায়িত্ব পেয়েছেন।এর আগে তিনি মহিলা আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কমিটির সহ সভাপতির দায়িত্ব পালন করছিলেন।প্রসংগত ওয়াশিকা আয়শা খানমের মা বেগম নিলুফার কায়সার ছিলেন চট্টগ্রাম মহানগর মহিলা আওয়ামী লীগের সভানেত্রী।চট্টগ্রামের আনোয়ারার ঐতিহ্যবাহী জমিদার পরিবারের সন্তান ওয়াশিকা আয়শা খান। বাবা প্রয়াত বীর মুক্তিযোদ্ধা আতাউর রহমান খাঁন কায়সার ছিলেন আওয়ামী লীগের সাবেক প্রেসিডিয়াম সদস্য ও মা বেগম নিলুফার কায়সার ছিলেন চট্টগ্রাম মহানগর মহিলা আওয়ামীলীগের সভানেত্রী।

ওয়াশিকা আয়শা খান আনোয়ারা উপজেলার বারখাইন ইউনিয়নের তৈলারদ্বীপ গ্রামের ঐতিহ্যবাহী জমিদার পরিবারের সন্তান। তবে তার সবচেয়ে বড় পরিচয় তিনি দেশের প্রখ্যাত রাজনীতিবিদ ও কূটনীতিবিদ প্রয়াত আতাউর রহমান খান কায়সার ও চট্টগ্রাম মহানগর মহিলা আওয়ামীলীগের সভানেত্রী বেগম নিলুফার কায়সারের মেয়ে। তার বাবা স্বাধীনতা যুদ্ধের অন্যতম সংগঠক এবং আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর অন্যতম প্রতিনিধি।

প্রসংগত ওয়াসিকা আয়েশা খান চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের সিনেট সদস্য ও ইন্টার পার্লামেন্টারি ইউনিয়নের ব্যুরো অফ ওমেন পার্লামেন্টারিয়ানসের সদস্য হিসেবে আন্তর্জাতিক পর্যায়ে কাজ করছেন। তিনি সংরক্ষিত মহিলা আসনের সংসদ সদস্য হিসেবে নির্বাচিত হয়েছেন। সংসদে সরকারি হিসাব সম্পর্কিত স্থায়ী কমিটি এবং অনুমিত হিসাব সংক্রান্ত কমিটির সদস্য হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন। পাশাপাশি বাংলাদেশ মহিলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি হিসেবেও কাজ করেছেন।

 

 

আরো খবর

Leave a Reply