বাংলাদেশ, রবিবার, ৯ই আগস্ট, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ, ২৫শে শ্রাবণ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

দেখার কেউ নেই! আলীকদম বাজার-উপজেলা সড়কের পাশে ময়লা-আবর্জনার ভাগাড়, পথচারীদের দুর্ভোগ চরমে

প্রশান্ত দে -আলীকদম  প্রতিনিধি

আলীকদম বাজার-উপজেলা পরিষদ সড়কের পাশে ময়লা-আবর্জনার ভাগাড়ে পরিণত হলেও নজর নেই কারো। পুঁতিময় দূর্গন্ধে ওই রাস্তা দিয়ে হেঁটে চলাচল করা সহানীয়দের পক্ষে দুঃসহনীয় হয়ে উঠেছে। দিন দিন প্রকট হচ্ছে এ সমস্যা। আলীকদম বাজারের যাবতীয় ময়লা-আবর্জনা ফেলা হয় সেখানে।

স্হানীয় জানান, উপজেলা সদরের আশেপাশের ময়লা-আবর্জনার ভাগাড়গুলো সরকারি-বেসরকারি উদ্যোগে পরিস্কার-পরি”ছন্নতায় নেই কোন উদ্যোগ বা অভিযান। এ ব্যাপারে সচেতন নয় নাগরিক সমাজও। জনপ্রতিনিধিদেরও খেয়ালা নেই তাতে। ফলে যত্রযত্র ময়লা ফেলছে বাজার ব্যবসায়ীরা।

স্হানীয় ঠিকাদার আব্দুল হামিদ মঙ্গলবার তাঁর ফেসবুকে অপরিছন্ন এ রাস্তা নিয়ে খেদোক্তি করেন এভাবে, ‘আলীকদমের ভিআইপি রাস্তা বলে পরিচিত উপজেলা পরিষদ হতে বাজারে আসা যাওয়ার সময় দুর্গন্ধযুক্ত ময়লাগুলো কোন পরিবেশবাদি অফিসার ও সাংবাদিকদের চোখে পড়ে না?। কারণ তারা এসি গাড়ি নিয়ে চলাচল করে। তাই হয়তো দুর্গন্ধগুলো তাদের নাকের কাছে পৌঁছে না। তবু পরিবেশে রক্ষার স্বার্থে হলেও উপজেলা প্রশাসনের আশু হস্তক্ষেপ কামনা করছি।’

সরেজমিন দেখা যায়, আলীকদম বাজার-উপজেলা পরিষদ সড়ক ছাড়াও আলীকদম বাজারে প্রবেশের আগে আইয়ুব ইঞ্জিনিয়ারিং ওয়ার্কসপের পশ্চিম পাশেও একই ধরণের ময়লা-আবর্জনার ভাগাড় রয়েছে। এ ময়লা-আবর্জনা ভাগাড়ের মধ্যে দু’চারশ’ গজের মধ্যেই সরকারি অফিস, শিক্ষা প্রতিষ্ঠান, ব্যবসা প্রতিষ্ঠান ও জনবসতি। অথচ কোন মহল থেকেই দীর্ঘদিন ধরে ময়লার ভাগাড় পরিস্কার কিংবা অপাসারণের উদ্যোগ নেওয়া হ”েছ না।

উপজেলা স্যানেটারী ইন্সপেক্টর ও নিরাপদ খাদ্য পরিদর্শক মোঃ আসাদুজ্জামান জানান, ময়লা-আবর্জনা ফেলছে আলীকদম বাজার কর্তৃপক্ষ। পরিবেশের বিপর্যয় হলে  স্হানীয় প্রশাসন ব্যবস্হা নিতে পারেন। আমরাও এ বিষয়ে উদ্যোগ নেবো।

শেয়ার করুনঃ

আরো খবর

Leave a Reply